নোয়াখালীর সাংবাদিক হত্যার প্রতিবাদে মশাল মিছিলে পুলিশের বাধা

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে গাজীপুর চৌরাস্তায় প্রতিবাদী মশাল মিছিল করেছে বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদ।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টার পর তারা এ মশাল মিছিল করে। এ সময় পুলিশের বাধায় সেই মিছিল পণ্ড হয়ে যায়।

পুলিশের বাধার মুখে পড়ে তিনজন আন্দোলনকারী আহত হয়েছেন। তারা হলেন- গাজীপুর মহানগর যুব অধিকার পরিষদের সমন্বয়ক ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল ইসলাম, সহ-সমন্বয়ক মমিন আকন্দ তন্ময় এবং সদস্য শহীদ।

মশাল মিছিলে অংশ নেয়া বাংলাদেশ শ্রমিক অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক আরমান হোসাইন বলেন, নোয়াখালীর বিষয় নিয়ে সন্ধ্যা ৬টার পর গাজীপুর যুব অধিকার পরিষদ একটা মশাল মিছিল বের করেছিল। গাজীপুর চৌরাস্তার শাপলা ম্যানশনের সামনে মিছিলকারীদের সঙ্গে পুলিশ ধস্তাধস্তি হয়।

তিনি বলেন, সেখানে ৭ থেকে ৮ জন পুলিশ ছিল। তাদের অধিকাংশই অফিসার ছিল। দুই-তিনজন কনস্টেবল ছিল। তারা এসে ব্যানার কেড়ে নিয়েছে। তারা একজনের মুখে ঘুষি মেরেছে, একজনের বুকে ঘুষি মেরেছে। অথচ আমরা একদম শান্তিপূর্ণভাবে মশাল মিছিল করছিলাম রাস্তার একপাশ দিয়ে।

তার অভিযোগ, ‘লাইভ করার সময় পুলিশ ফোন কেড়ে নিয়েছিল দুইটা। তার মধ্যে একটা পাওয়া গেছে, আরেকটা পাওয়া যায়নি।’

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারীদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের একাংশের নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের মধ্যে গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে মারা যান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

3 × four =