গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল গোপন সংবাদে প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার রাজশাহী মহানগরস্থ দামকুড়া থানাধীন কাদিপুর গ্রামস্থ জনৈক মো: এনামুল হক @কনক (৪২) পিতা- মৃত: আবুল হোসেন এর বসত বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে -মেসার্স রফিক এন্ড কোম্পানী প্রা: লি: কর্তৃক আমদানীকৃত চায়না (নো স্মোক) মশার কয়েলের হুবহু নকল মশার কয়েল সর্বমোট ১০০ টি কলাপাতা রংয়ের কাগজের কাটুন যাহার মোড়কের গায়ে ইংরেজীতে ইড়ধগধ গঙঝছটঞঞঊ ঈঙওখ অঈঞওঠঊ ওঘএজঊউওঊঘঞ ্মঃ; ০.৩ % ও বাংলায় রপ্তানী যোগ্য বাওমা মশার কয়েল (নো স্মোক) সহ অন্যান্য লেখা আছে।

যার প্রতিটি কাটুনের ভিতরে ৬০ (ষাট) প্যাকেট করিয়া সর্বমোট (৬০দ্ধ১০০)=৬০০০ (ছয় হাজার) প্যাকেট, যাহার আনুমানিক মূল্য- (৬০০০দ্ধ৭০)=৪,২০,০০০/- (চার লক্ষ বিশ হাজার) টাকা উদ্ধার করে। এতদ সংক্রান্তে আসামী ১। মো: মারুফ উদ্দিন (৪৫), পিতা- মৃত: কবির উদ্দিন, সাং- লক্ষীপুর ভাটাপাড়া, থানা- রাজপাড়া, ২। মো: পিয়ারুল ইসলাম (৩৫) (অটোচালক), পিতা- মো: গোলজার আলী, সাং- হড়গ্রাম, শেখপাড়া, থানা- কাশিয়া ডাঙ্গা, উভয়- আরএমপি, রাজশাহীদ্বয়কে গ্রেফতার করা হয়।

এতদ সংক্রান্তে  গোলাম মোর্শেদ (৩৮), পিতা- গোলাম সরোয়ার, মাতা-মোছা: মরিয়ম খাতুন, সাং- হোল্ডিং নং- ২/২৩১ কলেজ রোড, গাবতলী, পোষ্ট: গাবতলী, থানা- গাবতলী, জেলা- বগুড়া, বর্তমানে-মেসার্স রফিক এন্ড কোম্পানী প্রা: লি: এর রাজশাহী বিভাগীয় সেল্ধসঢ়;স ম্যানেজার, হাদির মোড়, বোয়ালিয়া, রাজশাহী বাদী হইয়া দামকুড়া থানায় মামলা দায়ের করিয়াছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

4 − 3 =