সিলেট প্রতিনিধি :
.

বিদ্যুৎ ছাড়া যেখানে কয়েক ঘণ্টাও চলা মুশকিল সেখানে বিদ্যুৎহীন অবস্থায় কেটে গেছে ২৪ ঘণ্টা। গতকাল মঙ্গলবার সিলেট নগরীর পার্শ্ববর্তী কুমারগাঁও ১২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে আগুন লেগে বিদ্যুতের দুটি গ্রিড পুড়ে যায়। এরপর থেকে পুরো সিলেটে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে।

২৪ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে বিদ্যুৎ না থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন সিলেটবাসী। বিদ্যুতের জন্য চারদিকে শুরু হয়েছে হাহাকার। আলো, বাতাস ও পানির অভাবে বিপাকে পড়েছেন এই এলাকার মানুষজন। ব্যাহত হচ্ছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। দেখা দিয়েছে পানির সংকট। অনেকে পুকুরের পানি ব্যবহারে বাধ্য হচ্ছেন।

গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে এই আগুন লাগে। প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিস। বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে জানানো হয়েছিল, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সরবরাহ স্বাভাবিক করার চেষ্টা করবেন তারা। কিন্তু ২৪ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও তা সম্ভব হয়নি। আজকের দিনের মধ্যে সরবরাহ স্বাভাবিক করা যাবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বুধবার বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড সিলেটের প্রধান প্রকৌশলী (বিক্রয় ও বিতরণ) খন্দকার মোকাম্মেল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, মঙ্গলবার রাত থেকে প্রায় ৪০০ কর্মী কাজ করছেন। বুধবার দুপুরের আগে মেরামত করা কিছু পিলার পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হবে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে জেলার কিছু এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হবে।

আগুন লাগার পরপর সিলেট বিভাগের সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলার বিদ্যুৎ চলে যায়। এতে সাড়ে চার লক্ষাধিক গ্রাহক বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েন। তবে সুনামগঞ্জ ও মৌলভীবাজারে বিকল্প উপায়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

20 − 16 =