রাকিবুল হাসান,বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি:

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভাগ রূপান্তরের মাধ্যমে ক্লাসে ফেরার দাবিতে মানববন্ধন করেছে ইটিই বিভাগের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

আজ মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় গোপালগঞ্জের অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে উপস্থিত হয়ে মানববন্ধন পালন করতে দেখা গিয়েছে।

মানববন্ধন চলাকালে ইটিই বিভাগের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের পক্ষে ১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী কামরুল হাসান বলেন, আজকের মানববন্ধনের মূল বিষয় হল দ্রুত সিলেবাস প্রণয়ন পূর্বক ইইই সিলেবাসের আলোকে আমাদের ক্লাসে ফিরিয়ে নেওয়া। গত ১৭ অক্টোবর,২০২০ সর্বপ্রথম ইটিই বিভাগকে ইইই’তে রূপান্তরের যৌক্তিক দাবি তোলা হলে পরবর্তী ৩ মাসেও তৎকালীন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনরূপ আশ্বাস না পেয়ে আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করি। এরই পরিপ্রেক্ষিতে তৎকালীন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এবং বেশকিছু বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সমন্বয়ে ১৬ সদস্যের কমিটি গঠিত হয়।

এ সময় কমিটিতে থাকা সদস্যরা আমাদের দাবির পক্ষে যৌক্তিকতা স্বীকার করেন এবং বলেন স্থায়ী ভাইস চ্যান্সেলর ছাড়া এই সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়। তৎকালীন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের আশ্বাসের পর ৯ মাস অতিবাহিত হলে এই সমস্যার কোনরূপ সমাধান হয়নি।

তিনি আরও বলেন, গত ৪ সেপ্টেম্বর,২০২০ স্থায়ী ভাইস চ্যান্সেলর মহাদয় দায়িত্ব গ্রহণের পর আমাদের এই সমস্যার বিষয়ে অবগত হয়ে দাবির পক্ষে যৌক্তিকতা স্বীকার করার পরও এখন পর্যন্ত আমরা নতুন পাঠ্যসূচির আলোকে একাডেমি কার্যক্রমে ফিরে যেতে পারিনি। আমাদের বলা হচ্ছে, একাডেমিক কাউন্সিল বা রিজেন্ট বোর্ডের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

কামরুল হাসান আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হওয়া সত্ত্বেও ১ বছর যাবৎ আমরা একাডেমি কার্যক্রমের বাইরে। বারবার আশ্বাস পাওয়ার পরও আমাদের এই সমস্যার বিষয়ে কোনরূপ সমাধান পাইনি। করোনাকালীন এই সময়ে শত বাধা অতিক্রম করে আজ আমরা আমাদের যৌক্তিক দাবি নিয়ে মানববন্ধন পালন করছি। অতিদ্রুত দাবি মেনে যথাযথভাবে সমাধানের মাধ্যমে একাডেমি কার্যক্রমের সুযোগ সৃষ্টি করা না হলে ইটিই বিভাগের সকলেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অবস্থানসহ কঠোর থেকে কঠোরতর কর্মসূচি পালনের কথা জানান তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

eighteen + eight =