মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘ সাড়ে ৪ মাস ধরে বন্ধ দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। চলতি মাসের ১২ জুলাই থেকে দেশের হাফেজি মাদ্রাসাগুলো খুললেও এখনও বন্ধ বাকি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক ৬ আগস্ট পর্যন্ত বন্ধ থাকবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থেই সেপ্টেম্বরের আগে সরকারি প্রাথমিক স্কুলগুলো খুলছে না। যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিকের দিকে গড়ায় তাহলে সেপ্টেম্বরের শুরুতে বা মাঝামাঝির দিকে খোলা হতে পারে।

এ বিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন গণমাধ্যমকে জানান, সেপ্টেম্বরের আগে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ভাবনা নেই সরকারের। পরিস্থিতি বিবেচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ৬ আগস্ট পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছুটি রয়েছে। এখনও বেশ কয়েকদিন ছুটি রয়েছে। তাছাড়া ঈদের পরও কয়েকদিন পাওয়া যাচ্ছে। এর মধ্যেই সিদ্ধান্ত নিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা বা কবে নাগাদ খোলা যাবে সে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

শিক্ষা ও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধ ও শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার জন্য গত ১৭ মার্চ থেকে আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এ সময় শিক্ষার্থীদের বাসায় থাকতে বলা হয়েছে। শিক্ষক, শিক্ষা কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে জরুরি কাজ সম্পন্ন করার কথা বলা হয়েছে। ঈদুল আজহার সময় শিক্ষক, শিক্ষা কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কর্মস্থল ত্যাগ না করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে বলা হয়েছে। সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

এদিকে, বৃহস্পতিবার রাজধানীর মতিঝিলে ‘আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশের’ কার্যালয়ে কো-চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল কুদ্দুছের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্থায়ী কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে, আগামী ৮ আগস্ট (শনিবার) থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সারাদেশের সব কওমি মাদ্রাসাগুলো খুলবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন মাওলানা মুফতি মো. ওয়াক্কাস, মাওলানা নূরুল ইসলাম, মাওলানা আব্দুল হামীদ (পীর সাহেব, মধুপুর) মাওলানা আবু তাহের নদভী, মুফতি শাসমুদ্দীন জিয়া, মাওলানা মুহিব্বুল হক, মাওলানা এনামুল হক, মুফতি আরশাদ রাহমানী, মাওলানা মাহমুদুল আলম, মুফতি মোহাম্মাদ আলী, মাওলানা ইয়াহইয়া মাহমুদ, মাওলানা সাজিদুর রহমান, মুফতি ফয়জুল্লাহ, মাওলানা মাহফুজুল হক প্রমুখ।

sharethis sharing button

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে