যবিপ্রবি প্রতিনিধি:
যশোর বিজ্ঞান ও পযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পধান ফটকের সামনের রাস্তা অবরোধ করেন। রবিবার সন্ধ্যা ৭টায় অনিয়ন্ত্রিত মোটরসাইকেল ও ট্রাকের গতির কারণে দুর্ঘটনার শিকার হয় পরিবেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মোহাইমেনুল হক। এর প্রতিবাদে আজ (সোমবার) দুপুর ১টা৩০মিনিটে যবিপ্রবির প্রধান ফটকের সামনের রাস্তায় মানববন্ধন ও প্রায় এক ঘন্টা রাস্তা অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা তাদের সাত দফা দাবি তুলে ধরে।
আন্দলোনরত শিক্ষার্থীদের মাঝে উপস্থিত হয়ে যবিপ্রবির ভারপাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনিসুর রহমান বলেন, এ দাবি শুধু তোমাদের নয় এ দাবি আমাদেরও। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বারবার বিষয়টি অবগত করার পরেও তারা কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। তাই আমি তোমাদের দাবির সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে ২৪ ঘন্টা সময় দিচ্ছি গতিরোধক নির্মাণের জন্য, আমরা চাইনা আমাদের আর কোনো শিক্ষার্থী দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোঃ ইকবাল কবির জাহিদ, সাধারণ সম্পাদক ড. ইঞ্জি মোঃ আমজাদ হোসেন, সহ-সভাপতি ড. সাইবুর রহমান মোল্যা, শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট ড. সেলিনা আক্তার, প্রধান প্রকৌশলী ও কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার হেলাল উদ্দিন পাটোয়ারী, জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ অর্নব সহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকগণ ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা।
শিক্ষার্থীদের মধ্যে পরিবেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সজিবুর রহমান দাবিগুলো তুলে ধরেন। দাবিগুলো হলো, বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন আমবটতলা বাজার থেকে বেলতলা পর্যন্ত গাড়ির সর্বোচ্চ গতিসীমা ২০ কিলোমিটার করতে হবে, বিশ্ববিদ্যালয়ের সীমানার শুরুতে একটি ও প্রধান ফটকের সামনে দুটি গতিরোধক নির্মাণ করতে হবে, বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন রাস্তায় ওভারটেকিং ও হর্ন নিষিদ্ধের সাইন সংযুক্ত করতে হবে, বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন সড়কে ফুটপাত নির্মাণ করতে হবে এবং যতদিন ফুটপাত নির্মাণ না হচ্ছে ততদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্ব দিকের গেট খোলা রাখতে হবে, সম্পূর্ণ রাস্তাটিতে ল্যাম্পপোস্ট সংযুক্ত করতে হবে। যবিপবির প্রধান ফটকের সামনে অনেকদিন ধরেই গতিরোধক তৈরির দাবি জানিয়ে আসছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।
তাদের দাবী প্রশাসন এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। সড়ক বিভাগকে গতিরোধক তৈরির চিঠি দিলেও এখনো তা বাস্তবায়ন হয়নি। এরইমধ্যে কয়েকটি ছোটখাট দুর্ঘটনা হলেও গতকাল রাতে রাস্তার পাশ দিয়ে হেটে যাওয়া ঐ শিক্ষার্থীকে ধাক্কা দেয় নিয়ন্ত্রনহীন এক মোটর সাইকেল আরোহী। উক্ত দুর্ঘটনায় ওই শিক্ষার্থী গুরুতর আহত না হলেও তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় কেটে গিয়েছে। এর পেক্ষিতে মানববন্ধন ও অবরোধ করে যবিপবির সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে