নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন, র‌্যাব এলিট ফোর্স হিসেবে আত্মপ্রকাশের সূচনালগ্ন থেকেই বিভিন্ন ধরণের নৃশংস ও ঘৃন্যতম অপরাধ নির্মূলের লক্ষ্যে অত্যন্ত আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করে আসছে। বর্তমান সমাজে যৌন নিপীড়ন ধর্ষণ, সামাজিক ব্যাধির মত ছড়িয়ে পড়েছে এবং এর থেকে রেহাই পাচ্ছে না শিশুরাও। এহেন ঘৃণ্য অপরাধকে নির্মূলের জন্য র‌্যাবের প্রতিটি সদস্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়ে নারী ও শিশুদের জন্য একটি নিরাপদ বাসযোগ্য সমাজ তথা দেশ বিনির্মাণে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
এরই ধারাবাহিকতায় একটি সুনির্দিষ্ট অভিযোগের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় র‌্যাব-৪ এর একটি আভিযানিক দল সহকারী পুলিশ সুপার সাগর দিপা বিশ্বাস এর নেতৃত্বে পল্লবী থানাধীন ১০নং জোটপট্টি রাব্বনী হোটেলের সামনে পাকা রাস্তার উপর অভিযান পরিচালনা করে ধর্ষণকারী আসামী মোঃ সেলিম সেলু (৩৫) কে গ্রেফতার করা হয়।
ধর্ষণকারী সেলিম সেলু (৩৫)-জেলা-ভোলা এর স্ত্রী বিদেশে চাকুরী করে এবং এক সন্তানের জনক। বর্তমানে সে রাজধানীর পল্লবী থানাধীন এলাকায় তার ছেলেকে নিয়ে একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করছে। বিভিন্ন অজুহাতে নিজ বাসায় নাবালিকা মামত বোন ভিকটিমকে ডেকে নিয়ে বিগত প্রায় ১৫ দিন যাবৎ সুকৌশলে আসামী ভিকটিমকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে যৌন নির্যাতন ও ধর্ষণসহ বিভিন্ন অশ্লীল, অপকর্ম করে আসছিল। এই বিষয়ে ভিকটিম প্রথমে বাড়ির মালিকের স্ত্রীকে জানায় এবং পরবর্তীতে তার বাবা-মাকে জানালে ভিকটিম এর পিতা র‌্যাব-৪ এর অধিনায়ক বরাবর মঙ্গলবার একটি অভিযোগ দায়ের করে। র‌্যাব অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহন করে দুই ঘন্টার মধ্যে শিশু ধর্ষণকারীকে গ্রেফতার করে। আসামীকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ভিকটিমকে ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতন করেছে বলে স্বীকার করে।
গ্রেফতারকৃত ধর্ষণকারীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে