নোটিশ :
সংবাদ কর্মী আবশ‌্যক
সংবাদ শিরোনাম
ষ্টেজ ফর ইয়ুথের কমিটি ঘোষণা সারাদেশে এমপিওভুক্ত হচ্ছে ১৭৬৩ স্কুল-কলেজ বালিশকাণ্ড: গণপূর্ত অধিদপ্তরের ১৪ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা রাজধানীর পল্লবী এলাকা থেকে ১ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণকারী আটক চাঁদপুরে আবারও মেঘনার ভাঙ্গনে ৮টি বসতভিটা নদীগর্ভে বিলীন।। হুমকির মুখে শহর রক্ষা বাঁধ কয়লাখনি দুর্নীতি: সাবেক এমডিসহ ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা নরসিংদীতে স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত নরসিংদীতে নতুন গুচ্ছ গ্রাম উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন সার্টিফিকেট জালিয়াতি ও দূর্নীতির দায়ে অব্যাহতি প্রাপ্ত সেকেন্দারের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি আনসার সদস্যদের রাণীশংকৈলে অতিরিক্ত পরীক্ষার ফি আদায়ের দাবীতে শিক্ষার্থীদের মিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান
মসজিদে ঢুকে নামাজরত যুবককে কোপালো মাদক ব্যবসায়ীরা

মসজিদে ঢুকে নামাজরত যুবককে কোপালো মাদক ব্যবসায়ীরা

 জেলা প্রতিনিধি  কক্সবাজার:

কক্সবাজার সদর উপজেলায় খরুলিয়া এলাকায় মসজিদে ঢুকে নামাজরত এক যুবককে কুপিয়ে আহত করেছে স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ীরা। শুক্রবার জুম্মার নামাজের সময় খরুলিয়া এলাকার সুতারচর গ্রামের জামে মসজিদের ভেতর এ ঘটনা ঘটে।

আহত যুবক আব্দুল মালেককে (৩২) কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি সুতারচর গ্রামের ছুরুত আলমের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আহত মালেক জুমার নামাজ শেষে পরবর্তী নামাজ পড়ছিলেন। এমন সময় মসজিদের ভেতরে ঢুকে প্রতিবেশী একই গ্রামের মাদক কারবারী ইউসুফ আলীর ছেলে রাজা মিয়া, তার তিন ভাই ওসমান গনি, নবাব মিয়া, আকাশসহ ৫/৬ জন নিয়ে নামাজরত মালেকের ওপর হামলা চালায়। রামদা দিয়ে তার মাথায় ও শরীরে কোপাতে থাকে তারা। অবস্থা দেখে অন্য মুসল্লিরা ভয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও স্বজনরা এসে মালেককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

 

ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান টিপু সুলতান তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে পরিবারের বরাতে বলেন, কয়েকদিন আগে আহত মালেকের ছোট ভাই মান্নানের মোবাইল ও ২৫ হাজার টাকা দিনে দুপুরে ছিনিয়ে নেয় রাজা মিয়া। পরে মালেক তার ভাই মান্নান টাকা ও মোবাইল ফিরে পেতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করেও সুরাহা না পেয়ে সন্ত্রাসী রাজা মিয়াকে ধাওয়া করে। এ ঘটনার জের ধরে রাজা মিয়া ও তার ভাইয়েরা সব সময় হুমকি দিয়ে আসছিল। এর জেরে শুক্রবার এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান, সদর থানার পুলিশ, ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য শরীফ উদ্দিন ও আব্দু রশিদ।

সদর থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) খাইরুজ্জামান জানান, আমি হাসপাতালে গিয়ে রোগীকে দেখে এসেছি। দ্রুত সময়ের মধ্যে আসামিদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে কাজ করছে পুলিশ। ভিকটিমের পরিবারকে মামলা করতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এদিকে, আহত মালেকের বড় ভাই আব্দুস সালাম জানান, মসজিদে নামাজরত অবস্থায় হামলার পর পরিবার নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি আমরা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018   bdsomachar24.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET