নিজস্ব প্রতিবেদক  সিলেট :
পবিত্র ঈদুল আজহায় সিলেট নগরীর ৩০টি স্থানে পশু জবাই করা যাবে। এর আগে মহানগরীর ৩৬টি স্থানে পশু জবাইর কথা বললেও তা কমিয়ে আনা হয়েছে। সিলেট সিটি কর্পোরেশন (সিসিক)-এর ২৭টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৩০টি স্থানে পশু জবাই করতে নগরবাসীকে অনুরোধ করেছেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।
শুক্রবার সিসিকের জনসংযোগ কর্মকর্তা শাহাব উদ্দিন শিহাব স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। ২৭টি ওয়ার্ডের সিটি কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে এই ৩০টি স্থানে পশু কোরবানির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
নির্ধারিত পশু জবাইয়ের স্থানগুলো হলো- ১নং ওয়ার্ডের ৩০-অর্ণব, মীরের ময়দান, ২নং ওয়ার্ডের প্রহরী আ/এ পুরাতন মেডিকেল কলোনী, ৩নং ওয়ার্ডের ডা. গার্ডেন কাজলশাহ, পুকুরপাড়, ৪ নম্বর ওয়ার্ডের আম্বরখানা সরকারি কলোনী মাঠ, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর কার্যালয়, বাসা নং ৬৯,আম্বরখানা বড় বাজার, ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর কার্যালয় চৌকীদেখী,এয়ারপোর্ট রোড, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর কার্যালয়, ১০৯ ঐক্যতান পশ্চিম পীরমহল্লাহ, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর কার্যালয়, কালিবাড়ি, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের জবাইখানা, এতিম স্কুল রোড, বাগবাড়ী, ১০নং ওয়ার্ডের কলাপাড়া ওয়ার্কশপের মাঠ ঘাসিটুলা, একই ওয়ার্ডের নবাব রোড, পিডিবি কোয়াটার, ১১ নং ওয়ার্ডের লালাদিঘীর পাড় কাউন্সিলর কার্যালয়, ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর বাসা সংলগ্ন স্থান, শেখঘাট, ১৩ নং ওয়ার্ড কাজীর বাজার মাদ্রাসা মাঠ, ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর বাসা সংলগ্ন স্থান, ছড়ারপার, একই ওয়ার্ডের জেলা প্রশাসকের কার্যালয় মাঠ, ১৫নং ওয়ার্ডের শাহজালাল জামিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠ, মিরাবাজার, ১৬নং ওয়ার্ডের সওদাগর টুলা মাঠ, ১৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলরের বাসা সংলগ্ন খোলা স্থান, কাজীটুলা, ১৮নং ওয়ার্ডের মেয়রের বাসার সামনের মাঠ।
কুমারপাড়া, ১৯নং ওয়ার্ডের দপ্তরীপাড়া জামে মসজিদ সংলগ্ন মাঠ, ২০নং ওয়ার্ডের সৈয়দ হাতিম আলী (রহ.) উচ্চবিদ্যালয় মাঠ, ২১নং ওয়ার্ডের সৈয়দ হাতিম আলী (রহ.) সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ, ২২নং ওয়ার্ডের ব¬ক- এ, রোড নং-৭, শাহজালাল উপশহর, একই ওয়ার্ডের ব্লক- আই, খেলার মাঠ, শাহজালাল উপশহর,২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর কার্যালয়, মাছিমপুর, ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর বাসা সংলগ্ন স্থান প্রতিশ্রুতি-৮০, কুশিঘাট, গাজী বুরহান উদ্দিন রোড, ২৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর বাসা সংলগ্ন স্থান, বঙ্গবীর রোড, ২৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর বাসা সংলগ্ন স্থান, কদমতলী ও ২৭নং ওয়ার্ডের আলমপুর বিভাগীয় কমিশনারের বাস ভবন সংলগ্ন স্থান।
নির্ধারিত এসব স্থানে পশু জবাই করে বর্জ্য যত্রতত্র না ফেলে সিটি কর্পোরেশনের নির্ধারিত স্থানে রাখতে নগরবাসীকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে