নোটিশ :
সংবাদ কর্মী আবশ‌্যক
ভূমিদস্যূদের হাত থেকে পৈত্রিক সম্পত্তি ফেরৎ পেতে ছাগলনাইয়ায় মনির’র সংবাদ সম্মেলন

ভূমিদস্যূদের হাত থেকে পৈত্রিক সম্পত্তি ফেরৎ পেতে ছাগলনাইয়ায় মনির’র সংবাদ সম্মেলন

কমল পাটোয়ারি,ছাগলনাইয়া প্রতিনিধিঃ
ছাগলনাইয়ায় ভূমিদস্যূদের হাত থেকে পৈত্রিক সম্মপত্তি ফেরৎ পেতে সংবাদ সম্মেলন করেন ভূক্তভোগী মনির। ২৬ মে রবিবার দুপুর ২টায় ছাগলনাইয়া প্রেস ক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় ভোক্তভোগী মনির আহাম্মদ’র সাথে উপস্থিত ছিলেন মৃত কোব্বাত আলীর ছেলে মোঃ ইউছুপ ও মোঃ ইউনুছ, মৃত নজির আহাম্মদ’র ছেলে খুরশীদ আলম, মৃত সামছুল হক’র ছেলে মোমিনুল হক, মৃত মজিবুল হক’র ছেলে আবদুল মালেক, মৃত মুজিবুল হক’র ছেলে মোঃ রেদোওয়ানুল্লাহ।
এ সময় মনির আহাম্মদ তার লিখিত বক্তব্যে কান্না জনিত কন্ঠে বলেন, আমার বাড়ী চট্টগ্রাম জেলার জোরারগঞ্জ থানায় পশ্চিম হিঙ্গুলির পুরাতন দাগনভূঁঞা বাড়ী ছিলো। ১৯৭২-৭৩ সালে নদী ভাঙ্গনে বিলীন হওয়ায় আমি উপারে চট্টগ্রাম জেলার জোরারগঞ্জ থানায় উত্তর ধুম মির্জা আলী হাজী বাড়ীতে বর্তমানে বসবাসরত আসছি। ১৯৮৫ সালে তৎকালীন এরশাদ সরকার ফেনী নদীতে মুহুরী সুউচ গেট নির্মাণের ফলে নদীর উত্তর পাড়ে ২০০৫ সালে নতুন চর জাগে যাহা আমার পৈত্রিক সম্পত্তির উপর প্রায় ২৬একর জমিতে নতুন চর জাগে। যাহার খাজনা আমি নদীতে বিলীন থাকায় অবস্থাতেও ১৯৮৯সাল পর্যন্ত পরিশোধ করে থাকি এবং ঐ জমির ১৩ একরের মধ্যে ২০০৭ সালে মনির আহাম্মদ ভূঞাঁ মৎস্য খামার নামক একটি খামার প্রতিষ্ঠ করে মৎস্য চাষ করে জিবীকা নির্বাহ করি। কিন্তু ২ বছর পর ছাগলনাইয়া উপজেলাধীন ঘোপাল ইউপির নিজকুঞ্জরা (৯নং ওয়ার্ড) এলাকার ভূমিদষ্যু চক্রের মৃত বদরুজ বলী’র ছেলে জাহাঙ্গীর আলম, মৃত মজিবুল হক’র ছেলে ওমর আলী ফকির, মৃত সফি উল্যাহ’র ছেলে আবুল কালাম, মৃত সৈয়দের রহমান’র ছেলে জয়নাল আবেদিন প্রকাশ তুফান, মৃত হারেজ মিয়া’র ছেলে মোঃ ইউনুছ, মৃত জুলু মেস্ত্রী’র ছেলে আমিনুল হক মিন্টু, মৃত হাফেজ আহাম্মদ’র ছেলে মোঃ ইউসুফ, উল্লেখিত ব্যক্তিগন সহ একটি ভূমিদষ্যু সন্ত্রাসী চক্র ২০০৯ সালে আমাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তাদের জায়গা বলে দাবী করে আমার পৈত্রিক সম্পদ থেকে আমাকে বেদখল করে জোর পূর্বক তাদের দখলে নিয়ে নেয়। পরে সন্ত্রাসী ঐ চক্রটি আমাকে বলে ১০লক্ষ টাকা তাদেরকে চাঁদা দিলে তারা ঐ জমি আমাকে ফেরত দিবে অন্যথায়ে উক্ত জায়গা আসলে স্বপরিবারে মেরে ফেলা হবে, কেউ বাঁচাতে পারবে না। এ বিষয়ে আমি ছাগলনাইয়ার ১০নং ঘোপাল ইউনিয়ন পরিষদে, ৪নং ধুম ইউনিয়ন পরিষদে, ২য় হিঙ্গুলী ইউনিয়ন পরিষদে এবং জোরারগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করি। যার পরিপ্রেক্ষিতে তৎকালীন বিচারকগন আমাকে খতিয়ান অনুযায়ী আমার জায়গায় পরিমাপ করিয়া বুঝাইয়া দেয়। কিন্তু অন্তত্য দুঃখের বিষয় সন্ত্রাসী ও ভূমিদষ্যু চক্র আমাকে অস্ত্র ঠেকেয়ি মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে ঐ জায়গায় পুনরায় বেদখল করে। এরপর আমি মহামান্য আদালতে একটি মামলা দায়ের করি। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আদালত ঐ জায়গার উপর ১৪৫ ধারা জারি করে। কিন্তু দুঃখের বিষয় বিষয়টি আদালত থানা পুলিশকে দায়িত্ব দিলেও তাহা অদ্যবধি কার্যকর হয়নি এবং আমি জায়গাটিও দখলে আনতে পারি নাই।
এ সময় সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, উক্ত বিষয়টি মানবিক দিক বিবেচনা করিয়া করিয়া আপনাদের লিখুনির মাধ্যমে ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে দেশের সর্বচ্চো পর্যায়ে পৌছিয়ে দিবেন, যাহাতে আমরা আমাদের পৈত্রিক সম্পদটি ভূমিদস্যুদের হাত উদ্ধার করতে পারি। এ ব্যাপার আমি ফেনীর স্থানীয় সাংসদ, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারসহ ও জনপ্রতিনিধিদের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018   bdsomachar24.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET