স্কুল থেকে ফেরার পথে ৯ বছরের শিশুকে ধর্ষণ ও হত্য

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৭:৫৫:৩৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৪
  • / ২৩ Time View

সোহাইবুল ইসলাম সোহাগ, কুমিল্লা

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলায় নয় বছরের এক শিশুকে বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণ করে হত্যার অভিযোগ।

এ ঘটনায় সোমবার সন্ধ্যায় কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় শিশুটির মা বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা করেছেন।

জানা যায়, সোমবার স্থানীয় সোনালী শিশু বিদ্যানিকেতন কিন্ডারগার্টেন স্কুলের ৩য় শ্রেণিতে পড়ুয়া ওই শিশু বিদ্যালয় সকাল ১০টায় ছুটির পর আর বাড়িতে ফেরেনি। এতে ওই শিশুর মা কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় সন্তানের নিখোঁজ বিষয়ে একটি অভিযোগ দিতে যায়। পরে দুপুর ৩টার দিকে শুনতে পায় গলিয়ারা উত্তর ইউনিয়নের খেয়াইশ মসজিদের পাশে বাঁশ মুড়ার নিকটবর্তী ধানক্ষেতে সন্তানের মৃতদেহ পড়ে আছে। পরে থানার পুলিশসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়।

শিশুর মা রাজিয়া, আমাদের সাথে কারও শত্রুতাও নেই। কেনো আমার এই অবুঝ ছোট্ট শিশুটিকে হত্যা করতে হলো। আমি আমার সন্তানের হত্যাকারীদের ফাঁসি চাই।

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর ভূঁইয়া বলেন, শিশুর মা অভিযোগ করতে আসার পর ঘটনার খবর পেয়ে আমিসহ আমার টিম ঘটনাস্থলে যাই। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা যাচ্ছে শিশুটিকে ধর্ষণের পর তাকে হত্যা করা হয়েছক। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর বলা যাবে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

স্কুল থেকে ফেরার পথে ৯ বছরের শিশুকে ধর্ষণ ও হত্য

Update Time : ০৭:৫৫:৩৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৪

সোহাইবুল ইসলাম সোহাগ, কুমিল্লা

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলায় নয় বছরের এক শিশুকে বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণ করে হত্যার অভিযোগ।

এ ঘটনায় সোমবার সন্ধ্যায় কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় শিশুটির মা বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা করেছেন।

জানা যায়, সোমবার স্থানীয় সোনালী শিশু বিদ্যানিকেতন কিন্ডারগার্টেন স্কুলের ৩য় শ্রেণিতে পড়ুয়া ওই শিশু বিদ্যালয় সকাল ১০টায় ছুটির পর আর বাড়িতে ফেরেনি। এতে ওই শিশুর মা কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় সন্তানের নিখোঁজ বিষয়ে একটি অভিযোগ দিতে যায়। পরে দুপুর ৩টার দিকে শুনতে পায় গলিয়ারা উত্তর ইউনিয়নের খেয়াইশ মসজিদের পাশে বাঁশ মুড়ার নিকটবর্তী ধানক্ষেতে সন্তানের মৃতদেহ পড়ে আছে। পরে থানার পুলিশসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়।

শিশুর মা রাজিয়া, আমাদের সাথে কারও শত্রুতাও নেই। কেনো আমার এই অবুঝ ছোট্ট শিশুটিকে হত্যা করতে হলো। আমি আমার সন্তানের হত্যাকারীদের ফাঁসি চাই।

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর ভূঁইয়া বলেন, শিশুর মা অভিযোগ করতে আসার পর ঘটনার খবর পেয়ে আমিসহ আমার টিম ঘটনাস্থলে যাই। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা যাচ্ছে শিশুটিকে ধর্ষণের পর তাকে হত্যা করা হয়েছক। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর বলা যাবে।