সোমবারের মধ্যে ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধবিরতি: বাইডেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১১:৫১:২৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৩২ Time View

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

কাতারে এখন যুদ্ধবিরতি নিয়ে আলোচনা চলছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে প্রশ্ন করা হয়েছিল- কবে নাগাদ যুদ্ধবিরতি হবে বলে তিনি আশা করেন। জবাবে তিনি বলেছেন, ‘আমার নিরাপত্তা উপদেষ্টা আমাকে বলেছেন, তারা যুদ্ধবিরতি নিয়ে মতৈক্যের খুব কাছাকাছি পৌঁছে গেছেন। আমার আশা, আগামী সোমবারের মধ্যে তা হয়ে যাবে।’

এদিকে আরব দেশগুলি আন্তর্জাতিক আদালত(আইসিজে)-এর বিচারপতিদের অনুরোধ করেছে, ইসরায়েল যে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড দখল করেছে, তা যেন তারা অবৈধ বলে ঘোষণা করেন।

জাতিসংঘের সাধারণ সভা ২০২২ সালে আইসিজে-কে অনুরোধ করে, তারা যেন এই বিষয়ে মতামত দেয়। তবে দেশগুলি তাদের সিদ্ধান্ত মানতে বাধ্য থাকবে না।

তরস্ক জানিয়েছে, ভূখণ্ড দখল করে নেয়াটাই ওই অঞ্চলে বিরোধের মূল কারণ। আরব দেশগুলির আর্জি, ইসরায়েলের অধিকৃত ভূখণ্ডকে বেআইনি ঘোষণা করা হোক।

ইসরায়েল এই শুনানিতে অংশ নিচ্ছে না। তারা বলেছে, আলোচনা করে যে সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে আদালতের রায় তাতে বাধা হয়ে দাঁড়াবে। তাদের দাবি, আদালতে যে প্রশ্ন করা হচ্ছে তা পক্ষপাতমূলক।

আইসিজের শুনানি সোমবার শেষ হয়েছে। পরে তারা সিদ্ধান্ত ঘোষণা করবে। ১৫ বিচারপতির বেঞ্চের রায় দিতে ছয় মাস মতো সময় লাগতে পারে।

এদিকে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্টের অফিস জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শাতায়েহর পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন। পরবর্তী সরকারের গঠন পর্যন্ত তাকে কাজ চালিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

সোমবার শাতায়েহ পদত্যাগ করেছিলেন। ইসরায়েল-হামাস লড়াইয়ের পরিপ্রেক্ষিতে ফিলিস্তিনিরা যাতে রাজনৈতিক কাঠানো নিয়ে অধিকতর মতৈক্য়ে আসতে পারে, সেজন্যই তিনি ইস্তফা দিয়েছেন বলে জানানো হয়েছে।

ফিলিস্তিনের সরকার ব্যবস্থা ঢেলে সাজাতে প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের উপর আমেরিকার একটা চাপ ছিল। এই ফিলিস্তিনি সরকার অধিকৃত পশ্চিম তীরের একটা অংশ শাসন করে। সূত্র: ডিডাব্লিউ, এপি, এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

সোমবারের মধ্যে ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধবিরতি: বাইডেন

Update Time : ১১:৫১:২৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

কাতারে এখন যুদ্ধবিরতি নিয়ে আলোচনা চলছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে প্রশ্ন করা হয়েছিল- কবে নাগাদ যুদ্ধবিরতি হবে বলে তিনি আশা করেন। জবাবে তিনি বলেছেন, ‘আমার নিরাপত্তা উপদেষ্টা আমাকে বলেছেন, তারা যুদ্ধবিরতি নিয়ে মতৈক্যের খুব কাছাকাছি পৌঁছে গেছেন। আমার আশা, আগামী সোমবারের মধ্যে তা হয়ে যাবে।’

এদিকে আরব দেশগুলি আন্তর্জাতিক আদালত(আইসিজে)-এর বিচারপতিদের অনুরোধ করেছে, ইসরায়েল যে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড দখল করেছে, তা যেন তারা অবৈধ বলে ঘোষণা করেন।

জাতিসংঘের সাধারণ সভা ২০২২ সালে আইসিজে-কে অনুরোধ করে, তারা যেন এই বিষয়ে মতামত দেয়। তবে দেশগুলি তাদের সিদ্ধান্ত মানতে বাধ্য থাকবে না।

তরস্ক জানিয়েছে, ভূখণ্ড দখল করে নেয়াটাই ওই অঞ্চলে বিরোধের মূল কারণ। আরব দেশগুলির আর্জি, ইসরায়েলের অধিকৃত ভূখণ্ডকে বেআইনি ঘোষণা করা হোক।

ইসরায়েল এই শুনানিতে অংশ নিচ্ছে না। তারা বলেছে, আলোচনা করে যে সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে আদালতের রায় তাতে বাধা হয়ে দাঁড়াবে। তাদের দাবি, আদালতে যে প্রশ্ন করা হচ্ছে তা পক্ষপাতমূলক।

আইসিজের শুনানি সোমবার শেষ হয়েছে। পরে তারা সিদ্ধান্ত ঘোষণা করবে। ১৫ বিচারপতির বেঞ্চের রায় দিতে ছয় মাস মতো সময় লাগতে পারে।

এদিকে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্টের অফিস জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শাতায়েহর পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন। পরবর্তী সরকারের গঠন পর্যন্ত তাকে কাজ চালিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

সোমবার শাতায়েহ পদত্যাগ করেছিলেন। ইসরায়েল-হামাস লড়াইয়ের পরিপ্রেক্ষিতে ফিলিস্তিনিরা যাতে রাজনৈতিক কাঠানো নিয়ে অধিকতর মতৈক্য়ে আসতে পারে, সেজন্যই তিনি ইস্তফা দিয়েছেন বলে জানানো হয়েছে।

ফিলিস্তিনের সরকার ব্যবস্থা ঢেলে সাজাতে প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের উপর আমেরিকার একটা চাপ ছিল। এই ফিলিস্তিনি সরকার অধিকৃত পশ্চিম তীরের একটা অংশ শাসন করে। সূত্র: ডিডাব্লিউ, এপি, এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স