সুখবর পাচ্ছেন সাড়ে ৫ হাজার শিক্ষক

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১০:২৮:০৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪
  • / ৫৪ Time View

সারাদেশের বেসরকারি স্কুল-কলেজে নতুন নিয়োগ পাওয়া ৫ হাজার ৪৬৩ জন শিক্ষক-কর্মচারীকে এমপিওভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের এমপিও কমিটি। তাদের মধ্যে স্কুলে ৪ হাজার ৬৯৬ জন ও কলেজের ৭৬৭ জন শিক্ষক রয়েছেন।

এ ছাড়া ২ হাজার ৮২৮ জন শিক্ষককে উচ্চতর স্কেল ও ১ হাজার ৪৫৩ জন স্কুলশিক্ষককে বিএড স্কেল দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আর ১৩২ জন প্রভাষককে পদোন্নতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এমপিও কমিটি।

গতকাল মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের এমপিও কমিটির সভায় নতুন এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক নেহাল আহমেদ।

বৈঠকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তিনজন কর্মকর্তা, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের নয়জন করে আঞ্চলিক পরিচালক ও উপ-পরিচালক এবং অধিদপ্তরের সিনিয়র সিস্টেম অ্যানালিস্টসহ ৩৫ জন কর্মকর্তা অংশ নেন।

সভায় অংশ নেয়া কর্মকর্তারা জানান, স্কুলের ৪ হাজার ৬৯৬ জন শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ৩১০, চট্টগ্রামের ৩৩৮, কুমিল্লার ২৮৯, ঢাকার ৭৪১, খুলনার ৫৯১, ময়মনসিংহের ৫১৪, রাজশাহীর ১ হাজার ৬১, রংপুরের ৬৮৩ এবং সিলেটের ১৬৯ জন আছেন।

কলেজের ৭৬৭ জন শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ৭৩ জন, চট্টগ্রামের ২৪, কুমিল্লার ৪৩, ঢাকার ১৬০, খুলনার ৭৬, ময়মনসিংহের ১১৮, রাজশাহীর ১২৩, রংপুরের ১০৫ এবং সিলেট অঞ্চলের ৪৫ জন রয়েছেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্র জানায়, নিয়ম অনুযায়ী-গত কয়েকমাসে নিয়োগ পাওয়া শিক্ষক ও কর্মচারীরা এমপিওভুক্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করেছিলেন।

জানুয়ারি মাসের আবেদন নিষ্পত্তি করে এসব শিক্ষক-কর্মচারীকে এমপিওভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিটি। নতুন এমপিওভুক্তদের মধ্যে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তিতে নিয়োগ সুপারিশ পাওয়া শিক্ষকই বেশি।

উচ্চতর স্কেল পাচ্ছেন ২ হাজার ৮২৮ জন

বিভিন্ন বেসরকারি স্কুল-কলেজের ২ হাজার ৮২৮ জন শিক্ষক-কর্মচারীকে উচ্চতর গ্রেড দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এমপিও কমিটি। এদের মধ্যে স্কুলের ২ হাজার ৪৬৫ জন এবং কলেজের ৩৬৩ জন শিক্ষক-কর্মচারী রয়েছেন।

সভায় অংশ নেয়া কর্মকর্তারা জানান, উচ্চতর গ্রেড পাওয়া স্কুলের শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ২৭০, চট্টগ্রামের ৯৯, কুমিল্লার ৯৪, ঢাকার ৩০২, খুলনার ২৪৩, ময়মনসিংহের ৩২৯, রাজশাহীর ৩৮৮, রংপুরের ৬৭০ এবং সিলেটের ৭০ জন রয়েছেন।

অপরদিকে, উচ্চতর গ্রেড পাওয়া কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ১৯, চট্টগ্রামের ১৮, কুমিল্লার ২৪, ঢাকার ৬২, খুলনার ৪৭, ময়মনসিংহের ২৫, রাজশাহীর ১০৪, রংপুরের ৪৬ ও সিলেট অঞ্চলের ১৮ জন রয়েছেন।

বিএড স্কেল পাচ্ছেন ১ হাজার ৪৫৩

বিভিন্ন বেসরকারি স্কুলে কর্মরত ১ হাজার ৪৫৩ জন শিক্ষককে বিএড স্কেল দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সভায় অংশ নেয়া কর্মকর্তারা জানান, বিএড স্কেল পাওয়া স্কুলশিক্ষকের মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ৯০, চট্টগ্রামের ১০৭, কুমিল্লার ১১৯, ঢাকার ২৬৩, খুলনার ৩০৬, ময়মনসিংহের ২০৮, রাজশাহীর ১৭০, রংপুরের ১২৬ এবং সিলেট অঞ্চলের ৯১ জন শিক্ষক আছেন।

১৩২ কলেজ শিক্ষককে পদোন্নতি

এ ছাড়া বিভিন্ন বেসরকারি কলেজে কর্মরত ১৩২ জন শিক্ষককে পদোন্নতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এমপিও কমিটি। তাদের মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ৫, চট্টগ্রামের ৯, কুমিল্লার ৭, ঢাকার ৩১, খুলনার ১১, ময়মনসিংহের ১১, রাজশাহীর ৪১, রংপুরের ১৩ এবং সিলেট অঞ্চলের ৪ জন শিক্ষক আছেন।

প্রতি দুই মাস পর পর মাউশিতে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে গত ১৭ জানুয়ারি বেসরকারি স্কুল-কলেজের ৯ হাজার ৬৫০ জন শিক্ষক-কর্মচারীকে এমপিওভুক্ত করার সিদ্ধান্ত হয়।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

সুখবর পাচ্ছেন সাড়ে ৫ হাজার শিক্ষক

Update Time : ১০:২৮:০৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪

সারাদেশের বেসরকারি স্কুল-কলেজে নতুন নিয়োগ পাওয়া ৫ হাজার ৪৬৩ জন শিক্ষক-কর্মচারীকে এমপিওভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের এমপিও কমিটি। তাদের মধ্যে স্কুলে ৪ হাজার ৬৯৬ জন ও কলেজের ৭৬৭ জন শিক্ষক রয়েছেন।

এ ছাড়া ২ হাজার ৮২৮ জন শিক্ষককে উচ্চতর স্কেল ও ১ হাজার ৪৫৩ জন স্কুলশিক্ষককে বিএড স্কেল দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আর ১৩২ জন প্রভাষককে পদোন্নতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এমপিও কমিটি।

গতকাল মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের এমপিও কমিটির সভায় নতুন এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক নেহাল আহমেদ।

বৈঠকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তিনজন কর্মকর্তা, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের নয়জন করে আঞ্চলিক পরিচালক ও উপ-পরিচালক এবং অধিদপ্তরের সিনিয়র সিস্টেম অ্যানালিস্টসহ ৩৫ জন কর্মকর্তা অংশ নেন।

সভায় অংশ নেয়া কর্মকর্তারা জানান, স্কুলের ৪ হাজার ৬৯৬ জন শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ৩১০, চট্টগ্রামের ৩৩৮, কুমিল্লার ২৮৯, ঢাকার ৭৪১, খুলনার ৫৯১, ময়মনসিংহের ৫১৪, রাজশাহীর ১ হাজার ৬১, রংপুরের ৬৮৩ এবং সিলেটের ১৬৯ জন আছেন।

কলেজের ৭৬৭ জন শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ৭৩ জন, চট্টগ্রামের ২৪, কুমিল্লার ৪৩, ঢাকার ১৬০, খুলনার ৭৬, ময়মনসিংহের ১১৮, রাজশাহীর ১২৩, রংপুরের ১০৫ এবং সিলেট অঞ্চলের ৪৫ জন রয়েছেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্র জানায়, নিয়ম অনুযায়ী-গত কয়েকমাসে নিয়োগ পাওয়া শিক্ষক ও কর্মচারীরা এমপিওভুক্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করেছিলেন।

জানুয়ারি মাসের আবেদন নিষ্পত্তি করে এসব শিক্ষক-কর্মচারীকে এমপিওভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিটি। নতুন এমপিওভুক্তদের মধ্যে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তিতে নিয়োগ সুপারিশ পাওয়া শিক্ষকই বেশি।

উচ্চতর স্কেল পাচ্ছেন ২ হাজার ৮২৮ জন

বিভিন্ন বেসরকারি স্কুল-কলেজের ২ হাজার ৮২৮ জন শিক্ষক-কর্মচারীকে উচ্চতর গ্রেড দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এমপিও কমিটি। এদের মধ্যে স্কুলের ২ হাজার ৪৬৫ জন এবং কলেজের ৩৬৩ জন শিক্ষক-কর্মচারী রয়েছেন।

সভায় অংশ নেয়া কর্মকর্তারা জানান, উচ্চতর গ্রেড পাওয়া স্কুলের শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ২৭০, চট্টগ্রামের ৯৯, কুমিল্লার ৯৪, ঢাকার ৩০২, খুলনার ২৪৩, ময়মনসিংহের ৩২৯, রাজশাহীর ৩৮৮, রংপুরের ৬৭০ এবং সিলেটের ৭০ জন রয়েছেন।

অপরদিকে, উচ্চতর গ্রেড পাওয়া কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ১৯, চট্টগ্রামের ১৮, কুমিল্লার ২৪, ঢাকার ৬২, খুলনার ৪৭, ময়মনসিংহের ২৫, রাজশাহীর ১০৪, রংপুরের ৪৬ ও সিলেট অঞ্চলের ১৮ জন রয়েছেন।

বিএড স্কেল পাচ্ছেন ১ হাজার ৪৫৩

বিভিন্ন বেসরকারি স্কুলে কর্মরত ১ হাজার ৪৫৩ জন শিক্ষককে বিএড স্কেল দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সভায় অংশ নেয়া কর্মকর্তারা জানান, বিএড স্কেল পাওয়া স্কুলশিক্ষকের মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ৯০, চট্টগ্রামের ১০৭, কুমিল্লার ১১৯, ঢাকার ২৬৩, খুলনার ৩০৬, ময়মনসিংহের ২০৮, রাজশাহীর ১৭০, রংপুরের ১২৬ এবং সিলেট অঞ্চলের ৯১ জন শিক্ষক আছেন।

১৩২ কলেজ শিক্ষককে পদোন্নতি

এ ছাড়া বিভিন্ন বেসরকারি কলেজে কর্মরত ১৩২ জন শিক্ষককে পদোন্নতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এমপিও কমিটি। তাদের মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ৫, চট্টগ্রামের ৯, কুমিল্লার ৭, ঢাকার ৩১, খুলনার ১১, ময়মনসিংহের ১১, রাজশাহীর ৪১, রংপুরের ১৩ এবং সিলেট অঞ্চলের ৪ জন শিক্ষক আছেন।

প্রতি দুই মাস পর পর মাউশিতে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে গত ১৭ জানুয়ারি বেসরকারি স্কুল-কলেজের ৯ হাজার ৬৫০ জন শিক্ষক-কর্মচারীকে এমপিওভুক্ত করার সিদ্ধান্ত হয়।