সালিসের সুযোগে কিশোরীকে বিয়ে করা ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১১:১৭:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ জুন ২০২১
  • / 183

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সালিশ করতে গিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করে এক কিশোরীকে বিয়ে করায় পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার ৬ নম্বর কনকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহিন হাওলাদারকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

সোমবার (২৮ জুন) দুপুরে স্থানীয় সরকার বিভাগ এই সিদ্ধান্ত নেয়। একই সঙ্গে ওই চেয়ারম্যানকে কেন চূড়ান্তভাবে অপসারণ করা হবে না, তার কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।পত্র পাওয়ার ১০ কার্যদিবসের মধ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগে জবাব পাঠাতে হবে।

গত শুক্রবার (২৫ জুন) ওই কিশোরীকে বিয়ে করেন চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদার। ওই কিশোরী ও স্থানীয় এক যুবকের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিশোরীর বাবা বিষয়টি চেয়ারম্যানকে জানালে তিনি সালিশ ডেকে নিজের পছন্দ হওয়ায় কিশোরীকে বিয়ে করেন। একদিন পর ওই কিশোরী নিজেই চেয়ারম্যানকে তালাক দেন। বিষয়টি দেশব্যাপী ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা পরিণত হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

সালিসের সুযোগে কিশোরীকে বিয়ে করা ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

Update Time : ১১:১৭:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ জুন ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সালিশ করতে গিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করে এক কিশোরীকে বিয়ে করায় পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার ৬ নম্বর কনকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহিন হাওলাদারকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

সোমবার (২৮ জুন) দুপুরে স্থানীয় সরকার বিভাগ এই সিদ্ধান্ত নেয়। একই সঙ্গে ওই চেয়ারম্যানকে কেন চূড়ান্তভাবে অপসারণ করা হবে না, তার কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।পত্র পাওয়ার ১০ কার্যদিবসের মধ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগে জবাব পাঠাতে হবে।

গত শুক্রবার (২৫ জুন) ওই কিশোরীকে বিয়ে করেন চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদার। ওই কিশোরী ও স্থানীয় এক যুবকের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিশোরীর বাবা বিষয়টি চেয়ারম্যানকে জানালে তিনি সালিশ ডেকে নিজের পছন্দ হওয়ায় কিশোরীকে বিয়ে করেন। একদিন পর ওই কিশোরী নিজেই চেয়ারম্যানকে তালাক দেন। বিষয়টি দেশব্যাপী ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা পরিণত হয়।