শেয়ার হস্তান্তরে গড়িমসি, তদন্ত কমিটি

বীর সাহাবী
  • Update Time : ১১:৫৩:৩৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অগাস্ট ২০২১
  • / 5

শেয়ারবাজারে প্রকৌশল খাতে তালিকাভুক্ত কোম্পানি মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের বিরুদ্ধে আইন অমান্য করার দায়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

কোম্পানিটির বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী শেয়ার হস্তান্তর না করা, অফিস পরিবর্তন করার পর তা বন্ধ রাখার অভিযোগে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিকে আগামী ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের কাছে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে বিষয়টি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালককে জানানো হয়েছে।

তদন্ত কমিটির সদস্যরা হলেন- বিএসইসির উপ-পরিচালক মো. রফিকুন্নবী ও মোহাম্মদ রতন মিয়া এবং ডিএসইর ব্যবস্থাপক স্নেহাশিষ চক্রবর্তী।

চিঠিতে বলা হয়, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ ২০২১ সালে ১৪ জুনের মধ্যে চারজন শেয়ারহোল্ডার পরিচালক বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শেয়ার অর্জন, অধিগ্রহণ ও কতৃত্ব গ্রহণ) বিধিমালা, ২০১৮ এর ৫ ও ৬ বিধি মোতাবেক মেহবুব ইক্যুইটিকে ৩৫ লাখ ২২ হাজার ৯০০ শেয়ার হস্তান্তর সম্পন্ন করেছে বলে জানিয়েছে। তবে প্রকৃতপক্ষে ওই শেয়ার হস্তান্তরের প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়নি, যা বিএসইসির দৃষ্টিগোচর হয়েছে।

চিঠিতে আরো বলা হয়, সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ অর্ডিন্যান্স, ১৯৬৯ (১৯৬৯ সালের অর্ডিন্যান্স নম্বর XVII) এর ২১ ধারা এবং বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন আইন, ১৯৯৩ (১৯৯৩ সালের ১৫নং আইন) এর ১৭ক ধারা অনুযায়ী কোম্পানিটির বিরুদ্ধে কমিশন তদন্ত কমিটি গঠন করার নির্দেশ দেওয়া হলো। তদন্ত কমিটিতে বিএসইসি ও ডিএসইর কর্মকর্তাদের অন্তর্ভুক্ত করা হলো। তদন্ত কর্মকর্তারা এ আদেশ জারির ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে বিএসইসর কাছে প্রতিবেদন জমা দেবেন।

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের একজন মনোনীত পরিচালক মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজে শেয়ারহোল্ডার হিসেবে আছেন। তিনি বিডি সমাচার টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ তার অফিসের অবস্থান পরিবর্তন করেছে বা তার অফিস বন্ধ করেছে। এ বিষয়টি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (লিস্টিং) রেগুলেশন ২০১৫ এর রেগুলেশেন ৩৮ অনুযায়ী সকল স্টেকহোল্ডারদের অবহিত করার প্রয়োজন ছিল। কিন্তু, কোম্পানিটি তা যাথাযথভাবে পরিপালন করেনি। তাই, এসব অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কমিশন মনে করে, স্টক এক্সচেঞ্জের তালিকাভুক্ত কোম্পানি মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজের সার্বিক বিষয়ে তদন্ত করা প্রয়োজন।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

শেয়ার হস্তান্তরে গড়িমসি, তদন্ত কমিটি

Update Time : ১১:৫৩:৩৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অগাস্ট ২০২১

শেয়ারবাজারে প্রকৌশল খাতে তালিকাভুক্ত কোম্পানি মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের বিরুদ্ধে আইন অমান্য করার দায়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

কোম্পানিটির বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী শেয়ার হস্তান্তর না করা, অফিস পরিবর্তন করার পর তা বন্ধ রাখার অভিযোগে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিকে আগামী ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের কাছে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে বিষয়টি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালককে জানানো হয়েছে।

তদন্ত কমিটির সদস্যরা হলেন- বিএসইসির উপ-পরিচালক মো. রফিকুন্নবী ও মোহাম্মদ রতন মিয়া এবং ডিএসইর ব্যবস্থাপক স্নেহাশিষ চক্রবর্তী।

চিঠিতে বলা হয়, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ ২০২১ সালে ১৪ জুনের মধ্যে চারজন শেয়ারহোল্ডার পরিচালক বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শেয়ার অর্জন, অধিগ্রহণ ও কতৃত্ব গ্রহণ) বিধিমালা, ২০১৮ এর ৫ ও ৬ বিধি মোতাবেক মেহবুব ইক্যুইটিকে ৩৫ লাখ ২২ হাজার ৯০০ শেয়ার হস্তান্তর সম্পন্ন করেছে বলে জানিয়েছে। তবে প্রকৃতপক্ষে ওই শেয়ার হস্তান্তরের প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়নি, যা বিএসইসির দৃষ্টিগোচর হয়েছে।

চিঠিতে আরো বলা হয়, সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ অর্ডিন্যান্স, ১৯৬৯ (১৯৬৯ সালের অর্ডিন্যান্স নম্বর XVII) এর ২১ ধারা এবং বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন আইন, ১৯৯৩ (১৯৯৩ সালের ১৫নং আইন) এর ১৭ক ধারা অনুযায়ী কোম্পানিটির বিরুদ্ধে কমিশন তদন্ত কমিটি গঠন করার নির্দেশ দেওয়া হলো। তদন্ত কমিটিতে বিএসইসি ও ডিএসইর কর্মকর্তাদের অন্তর্ভুক্ত করা হলো। তদন্ত কর্মকর্তারা এ আদেশ জারির ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে বিএসইসর কাছে প্রতিবেদন জমা দেবেন।

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের একজন মনোনীত পরিচালক মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজে শেয়ারহোল্ডার হিসেবে আছেন। তিনি বিডি সমাচার টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ তার অফিসের অবস্থান পরিবর্তন করেছে বা তার অফিস বন্ধ করেছে। এ বিষয়টি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (লিস্টিং) রেগুলেশন ২০১৫ এর রেগুলেশেন ৩৮ অনুযায়ী সকল স্টেকহোল্ডারদের অবহিত করার প্রয়োজন ছিল। কিন্তু, কোম্পানিটি তা যাথাযথভাবে পরিপালন করেনি। তাই, এসব অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কমিশন মনে করে, স্টক এক্সচেঞ্জের তালিকাভুক্ত কোম্পানি মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজের সার্বিক বিষয়ে তদন্ত করা প্রয়োজন।