লাইভ সংবাদে গরমে অজ্ঞান হয়ে গেলেন উপস্থাপিকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১১:৩৮:০৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৩৪ Time View

বাংলাদেশের মতো পাশের দেশ ভারতেও চলছে তীব্র তাপপ্রবাহ। প্রচণ্ড খরতাপে পুড়ছে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা শহর। জারি করা হয়েছে হিট এলার্ট। ভয়াবহ গরমে নাভিশ্বাস উঠে যাচ্ছে নগরবাসীর। এরকমই গরমে লাইভ সংবাদ পাঠ করার সময় অসুস্থ হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন লোপামুদ্রা সিনহা নামে দূর্দশন টিভির এক সংবাদ পাঠিক।

ঘটনার পর নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে অসুস্থতার কথা জানান এই সংবাদ উপস্থাপক।

ভিডিওবার্তায় নিজের অনুসারীদের লোপামুদ্রা জানান, গতকাল শুক্রবার সকালে নিউজ বুলেটিন পড়ার সময় মারাত্মক গরমে হঠাৎ অসুস্থবোধ হয় তার। লাইভ নিউজ চলার সময় তার রক্তচাপ আশঙ্কাজনকভাবে কমে যায় এবং তিনি অজ্ঞান হয়ে যান।

দূরদর্শনের এ নিউজ প্রেজেন্টেটর বলেন, বেশ কিছুক্ষণ ধরেই আমার শরীর খারাপ লাগছিল, মনে হচ্ছিল একটু পানি খেলে ঠিক হয়ে যাবে। আমি কোনোদিন পানি নিয়ে সংবাদ পড়তে বসি না। সেটা ১০ মিনিটের নিউজ হোক বা আধ ঘণ্টার, কখনো প্রয়োজন পড়েনি। ফ্লোর ম্যানেজারকে ইশারা করে পানির বোতল চাই। সেই সময় জেনারেল স্টোরি যাচ্ছিল, কোনো বাইট চলছিল না। ফলে আমি পানি খেতে পারছিলাম না। অবশেষে একটা বাইট আসায় পানি খাওয়ার সুযোগ মেলে।

টিভির নিউজ ফ্লোর শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত হলেও ওইদিন সেটি কাজ করছিল না এবং এর ফলে ফ্লোর ভ্যাপসা গরম হয়ে পড়েছিল বলে ভিডিওবার্তায় জানান লোপামুদ্রা

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

লাইভ সংবাদে গরমে অজ্ঞান হয়ে গেলেন উপস্থাপিকা

Update Time : ১১:৩৮:০৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

বাংলাদেশের মতো পাশের দেশ ভারতেও চলছে তীব্র তাপপ্রবাহ। প্রচণ্ড খরতাপে পুড়ছে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা শহর। জারি করা হয়েছে হিট এলার্ট। ভয়াবহ গরমে নাভিশ্বাস উঠে যাচ্ছে নগরবাসীর। এরকমই গরমে লাইভ সংবাদ পাঠ করার সময় অসুস্থ হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন লোপামুদ্রা সিনহা নামে দূর্দশন টিভির এক সংবাদ পাঠিক।

ঘটনার পর নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে অসুস্থতার কথা জানান এই সংবাদ উপস্থাপক।

ভিডিওবার্তায় নিজের অনুসারীদের লোপামুদ্রা জানান, গতকাল শুক্রবার সকালে নিউজ বুলেটিন পড়ার সময় মারাত্মক গরমে হঠাৎ অসুস্থবোধ হয় তার। লাইভ নিউজ চলার সময় তার রক্তচাপ আশঙ্কাজনকভাবে কমে যায় এবং তিনি অজ্ঞান হয়ে যান।

দূরদর্শনের এ নিউজ প্রেজেন্টেটর বলেন, বেশ কিছুক্ষণ ধরেই আমার শরীর খারাপ লাগছিল, মনে হচ্ছিল একটু পানি খেলে ঠিক হয়ে যাবে। আমি কোনোদিন পানি নিয়ে সংবাদ পড়তে বসি না। সেটা ১০ মিনিটের নিউজ হোক বা আধ ঘণ্টার, কখনো প্রয়োজন পড়েনি। ফ্লোর ম্যানেজারকে ইশারা করে পানির বোতল চাই। সেই সময় জেনারেল স্টোরি যাচ্ছিল, কোনো বাইট চলছিল না। ফলে আমি পানি খেতে পারছিলাম না। অবশেষে একটা বাইট আসায় পানি খাওয়ার সুযোগ মেলে।

টিভির নিউজ ফ্লোর শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত হলেও ওইদিন সেটি কাজ করছিল না এবং এর ফলে ফ্লোর ভ্যাপসা গরম হয়ে পড়েছিল বলে ভিডিওবার্তায় জানান লোপামুদ্রা