Friday, January 21, 2022
Homeলাইফ-স্টাইললবঙ্গ খাওয়ার উপকারিতা

লবঙ্গ খাওয়ার উপকারিতা

মস্তিষ্কের সুস্থতা রক্ষায় অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলো ম্যাঙ্গানিজ। এই উপাদানটি হাড় মজবুত করতেও ভূমিকা রাখে। আর ম্যাঙ্গানিজের উৎকৃষ্ট উৎস হলো লবঙ্গ।

লবঙ্গ সাধারণত মসলা হিসেবেই বেশি পরিচিত। খাবারের স্বাদ ও সুঘ্রাণ বাড়াতে এটি ব্যবহার করা হয়। লবঙ্গের রয়েছে অনেক ঔষধি গুণ। হেলথলাইন ডটকমের প্রতিবেদন অনুসারে, লবঙ্গকে ওষুধ হিসেবেও ব্যবহার করা যায়। এই মসলাটির সবচেয়ে বড় উপাকারিতা হলো- এটি লিভারের নানা সমস্যা সমাধানের পাশাপাশি ব্লাড সুগারের মাত্রাও নিয়ন্ত্রণ করে। এ ছাড়া শরীরের আরও যেসব উপকারিতায় লবঙ্গ কার্যকরী, চলুন সেগুলো জেনে নেয়া যাক-

পুষ্টি উপাদান

লবঙ্গে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার, ভিটামিন এবং মিনারেলের মতো পুষ্টি উপাদান। রান্নায় সুঘ্রাণ এবং স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি এটি পুষ্টিগুণ বাড়াতেও কাজ করে। এ ছাড়া ১ চা চামচ লবঙ্গ থেকে ৬ গ্রাম ক্যালরি, ১ গ্রাম শর্করা, ২ গ্রাম ফাইবার ও দৈনিক চাহিদার ২ শতাংশ ভিটামিন কে পাওয়া যায়।

ম্যাঙ্গানিজ

মস্তিষ্কের সুস্থতা রক্ষায় অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলো ম্যাঙ্গানিজ। এই উপাদানটি হাড় মজবুত করতেও ভূমিকা রাখে। আর ম্যাঙ্গানিজের উৎকৃষ্ট উৎস হলো লবঙ্গ।

অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট

অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ফ্রি র‍্যাডিক্যালস কমাতে সহায়তা করে। লবঙ্গের একটি উপাদান হলো ইউজেনল। এটি শরীরের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। লবঙ্গে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট পাওয়া যায়।

ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণ

লবঙ্গের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলো নাইজেরিসিন। এই উপাদানটি রক্ত থেকে শর্করা শরীরের বিভিন্ন কোষে পৌঁছে দেয়। এ ছাড়া এটি ইনসুলিন উৎপাদনকারী অঙ্গের কার্যকারিতা বাড়ায়। ফলে ইনসুলিন নিঃসৃত হওয়ার পরিমাণ বাড়ে। তাই ডায়বেটিস থাকলে লবঙ্গ খেলে উপকার পাওয়া যাবে।

অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়া

লবঙ্গে রয়েছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়া ও অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান। এগুলো সর্দি-কাশি ও সাইনাসের সমস্যা উপশম করে। পাশাপাশি দাঁত ব্যথায়ও লবঙ্গ অত্যন্ত কার্যকর। নিয়মিত লবঙ্গযুক্ত মাউথওয়াশ ব্যবহার করলে মাড়ি থেকে রক্ত পড়া বন্ধ হয় এবং দাঁত আরও মজবুত হয়। মুখকে দুর্গন্ধমুক্ত রাখতেও লবঙ্গ কাজ করে।

আলসার নিরাময়

অনেক মানুষই পেপটিক আলসার বা স্টমাক আলসারের সমস্যায় ভোগেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, লবঙ্গের এসেনশিয়াল অয়েল গ্যাস্ট্রিক মিউকাস উৎপাদনে কাজ করে। এই মিউকাস বিভিন্ন সংক্রমণের হাত থেকে পাকস্থলী রক্ষা করে এবং আলসার রোধে কাজ করে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular