রুশ রাষ্ট্রদূতের বক্তব্যের জবাব দিল বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৪:১০:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৬০ Time View

বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে রাশিয়ান রাষ্ট্রদূতের বক্তব্য অনাকাঙ্ক্ষিত, অনভিপ্রেত ও আওয়ামীসুলভ। এমন মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, রাষ্ট্রদূতের এ ধরনের বক্তব্য দেশের জনগণের গণতান্ত্রিক অনুভূতিতে আঘাত করেছে।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকালে রিজভীর সই করা এক বিবৃতিতে এসব কথা বলা হয়। এতে ঢাকায় নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার মান্টিটস্কির বক্তব্যের জবাব দেন রিজভী আহমেদ। তিনি বলেন, দেশের স্বাধীনতাকামী মানুষের আকাঙ্ক্ষার বিরুদ্ধে গিয়ে কোনো রাষ্ট্র গণবিরোধী অপশাসনকে অযাচিত সমর্থন করতে পারে না।

আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক বলয়ের বাইরের সব বাংলাদেশি নাগরিক আজ স্বাধীনতা হারিয়ে নিজ দেশে পরাধীন বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন, গত ১৫ বছরে গণবিদ্বেষী সরকারের দুর্নীতি-দুঃশাসনে বৈষম্যের শিকার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

তার অভিযোগ, ইলেকশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের মাধ্যমে ভোট পড়ার হার ফুলিয়ে-ফাঁপিয়ে দেখানো হয়েছে। সত্যিকার অর্থে শতকরা ৫ ভাগেরও কম ভোটার ভোটকেন্দ্রে গেছেন। দেশের মানুষ ভাগ-বাটোয়ারার এই নির্বাচন ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে বলেও দাবি করা হয় বিবৃতিতে।

এর আগে, বুধবার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষৎ শেষে এক ব্রিফিংয়ে রুশ রাষ্ট্রদূত আলেক্সান্ডার মন্টিটস্কি বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিএনপির বক্তব্য ভুল। নির্বাচনসহ বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কোনো প্রকার নাক গলায় না রাশিয়া। আওয়ামী লীগ জনগণের ভোটেই ক্ষমতায় এসেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

রুশ রাষ্ট্রদূতের বক্তব্যের জবাব দিল বিএনপি

Update Time : ০৪:১০:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে রাশিয়ান রাষ্ট্রদূতের বক্তব্য অনাকাঙ্ক্ষিত, অনভিপ্রেত ও আওয়ামীসুলভ। এমন মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, রাষ্ট্রদূতের এ ধরনের বক্তব্য দেশের জনগণের গণতান্ত্রিক অনুভূতিতে আঘাত করেছে।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকালে রিজভীর সই করা এক বিবৃতিতে এসব কথা বলা হয়। এতে ঢাকায় নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার মান্টিটস্কির বক্তব্যের জবাব দেন রিজভী আহমেদ। তিনি বলেন, দেশের স্বাধীনতাকামী মানুষের আকাঙ্ক্ষার বিরুদ্ধে গিয়ে কোনো রাষ্ট্র গণবিরোধী অপশাসনকে অযাচিত সমর্থন করতে পারে না।

আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক বলয়ের বাইরের সব বাংলাদেশি নাগরিক আজ স্বাধীনতা হারিয়ে নিজ দেশে পরাধীন বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন, গত ১৫ বছরে গণবিদ্বেষী সরকারের দুর্নীতি-দুঃশাসনে বৈষম্যের শিকার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

তার অভিযোগ, ইলেকশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের মাধ্যমে ভোট পড়ার হার ফুলিয়ে-ফাঁপিয়ে দেখানো হয়েছে। সত্যিকার অর্থে শতকরা ৫ ভাগেরও কম ভোটার ভোটকেন্দ্রে গেছেন। দেশের মানুষ ভাগ-বাটোয়ারার এই নির্বাচন ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে বলেও দাবি করা হয় বিবৃতিতে।

এর আগে, বুধবার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষৎ শেষে এক ব্রিফিংয়ে রুশ রাষ্ট্রদূত আলেক্সান্ডার মন্টিটস্কি বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিএনপির বক্তব্য ভুল। নির্বাচনসহ বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কোনো প্রকার নাক গলায় না রাশিয়া। আওয়ামী লীগ জনগণের ভোটেই ক্ষমতায় এসেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।