রাণীশংকৈলে নিখোঁজের ৫ ঘন্টা পরও নদী থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা ছাত্রের লাশ

  • Update Time : ০৮:১৪:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪
  • / 32

হুমায়ুন কবির,
রাণীশংকৈল(ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধিঃ

নতুন কারিকুলামে ষান্মাসিক পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফিরছিলো রাণীশংকৈল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রণির ছাত্র সঞ্জয় মহন্ত সাহা(১৫)।স্কুলের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে কুলিক নদী। চলমান বর্ষায় প্লাবিত নদীর দুকূল। নদীর উপর দিয়ে স্থাপিত ব্রিজ। কয়েকজন বন্ধু ব্রিজের নিচে গৌসল করছিল। তাদের দেখে লোভ সামলাতে না পেরে গৌসলের উদ্দেশ্যে ব্রিজ থেকে লাফ দিয়ে নদীর পানিতে ঝাঁপিয়ে পড়ে সঞ্জয়। কিন্তু হঠাৎ পানির প্রবল স্রোত আর স্রোতের ঘুন্নিতে তলিয়ে যায় সঞ্জয়। এতে তার বন্ধুরা তাকে দেখতে না পেয়ে তারা খোঁজাখুঁজি করে। না পেয়ে সঞ্জয়’র বাড়িতে খবর দেয়।
পরে খবর পেয়ে রাণীশংকৈল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা কুলিক নদীর সম্ভাব্য সকল স্থানে খুঁজেও সঞ্জয়ের কোন হদিস পায়নি। বুধবার (৩ জুলাই) ঘটনাটি ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন কুলিক নদীতে বন্ধুদের সাথে গোসল করতে গিয়ে এ নির্মম ঘটনা ঘটেছে। সঞ্জয় মহন্ত সাহা পৌরশহরের ডাবতলী এলাকার অমল মহন্ত সাহার ছেলে। রাণীশংকৈল ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার নাসিম ইকবাল জানান, খবর পেয়ে ফায়ারসার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে খোঁজাখুজি করেছেন। কিন্তু তাকে পাওয়া যায়নি। রংপুর ডুবুরি টিমকে খবর দেয়া হয়েছে। তারা পৌঁছালে পূর্ণাঙ্গ উদ্ধার কাজ পরিচালনা করা হবে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত (রাত ৮ টা) ওই ছাত্রের সন্ধানে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। রাণীশংকৈল উপজেলা নির্বাহী অফিসার রকিবুল হাসান জানান, স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা খোঁজাখুঁজির অভিযান অব্যাহত রেখেছে। এবং ইতোমধ্যে রংপুরের ডুবুরি দলকে খবর দেয়া হয়েছে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

রাণীশংকৈলে নিখোঁজের ৫ ঘন্টা পরও নদী থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা ছাত্রের লাশ

Update Time : ০৮:১৪:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪

হুমায়ুন কবির,
রাণীশংকৈল(ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধিঃ

নতুন কারিকুলামে ষান্মাসিক পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফিরছিলো রাণীশংকৈল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রণির ছাত্র সঞ্জয় মহন্ত সাহা(১৫)।স্কুলের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে কুলিক নদী। চলমান বর্ষায় প্লাবিত নদীর দুকূল। নদীর উপর দিয়ে স্থাপিত ব্রিজ। কয়েকজন বন্ধু ব্রিজের নিচে গৌসল করছিল। তাদের দেখে লোভ সামলাতে না পেরে গৌসলের উদ্দেশ্যে ব্রিজ থেকে লাফ দিয়ে নদীর পানিতে ঝাঁপিয়ে পড়ে সঞ্জয়। কিন্তু হঠাৎ পানির প্রবল স্রোত আর স্রোতের ঘুন্নিতে তলিয়ে যায় সঞ্জয়। এতে তার বন্ধুরা তাকে দেখতে না পেয়ে তারা খোঁজাখুঁজি করে। না পেয়ে সঞ্জয়’র বাড়িতে খবর দেয়।
পরে খবর পেয়ে রাণীশংকৈল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা কুলিক নদীর সম্ভাব্য সকল স্থানে খুঁজেও সঞ্জয়ের কোন হদিস পায়নি। বুধবার (৩ জুলাই) ঘটনাটি ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন কুলিক নদীতে বন্ধুদের সাথে গোসল করতে গিয়ে এ নির্মম ঘটনা ঘটেছে। সঞ্জয় মহন্ত সাহা পৌরশহরের ডাবতলী এলাকার অমল মহন্ত সাহার ছেলে। রাণীশংকৈল ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার নাসিম ইকবাল জানান, খবর পেয়ে ফায়ারসার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে খোঁজাখুজি করেছেন। কিন্তু তাকে পাওয়া যায়নি। রংপুর ডুবুরি টিমকে খবর দেয়া হয়েছে। তারা পৌঁছালে পূর্ণাঙ্গ উদ্ধার কাজ পরিচালনা করা হবে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত (রাত ৮ টা) ওই ছাত্রের সন্ধানে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। রাণীশংকৈল উপজেলা নির্বাহী অফিসার রকিবুল হাসান জানান, স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা খোঁজাখুঁজির অভিযান অব্যাহত রেখেছে। এবং ইতোমধ্যে রংপুরের ডুবুরি দলকে খবর দেয়া হয়েছে।