রাণীশংকৈলে একই রশিতে স্বামী-স্ত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১১:০৫:৪০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুন ২০২০
  • / ১৩৩ Time View
হুমায়ুন কবির,রাণীশংকৈল,(ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃ
ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার চাপোড় পারবর্তীপুর গ্রামে ১৬ জুন সকালে বিপুল ও পারুল রাণীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
.
বিপুল চন্দ্র রায় ( ২২) চাপোড় পারবর্তীপুর গ্রামের শেদ কুমারের ছেলে ও পারুল রাণী রায় (২০) চাপোড় পারবর্তীপুর গ্রামের বিপুল চন্দ্রের স্ত্রী ও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার আধারদিঘি গ্রামের ঝাটালু শিংহের মেয়ে। পারুল রাণী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রমতে, বিপুল ও পারুল গত ১৫ জুন রাতে খেয়ে দেয়ে নিজ ঘরে শুতে যায়।
.
পরদিন সকালে তার বিমাতা মা ঘুম থেকে দেরিতে উঠায় ডাকতে যায়। কিন্তু দরজায় শব্দ করার পরও কোন সাড়াশব্দ না পেলে চিৎকার করে পাশের লোকজনকে ডাকে। লোকজন দরজা ভেঙ্গে দেখে স্বামী স্ত্রী ঘরের সরের দুপাশে একই রশিতে ফাঁস লাগিয়ে মৃত অবস্থায় ঝুলে আছে।
.
পুলিশকে খবর দিলে, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। এ নিয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।মামলা নং ১৩ তারিখ- ১৬/৬/২০২০ খ্রিঃ।
.
রাণীশংকৈলথানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে, রিপোর্ট আসলে ঘটনার সত্যতা জেনে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।
Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

রাণীশংকৈলে একই রশিতে স্বামী-স্ত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

Update Time : ১১:০৫:৪০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুন ২০২০
হুমায়ুন কবির,রাণীশংকৈল,(ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃ
ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার চাপোড় পারবর্তীপুর গ্রামে ১৬ জুন সকালে বিপুল ও পারুল রাণীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
.
বিপুল চন্দ্র রায় ( ২২) চাপোড় পারবর্তীপুর গ্রামের শেদ কুমারের ছেলে ও পারুল রাণী রায় (২০) চাপোড় পারবর্তীপুর গ্রামের বিপুল চন্দ্রের স্ত্রী ও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার আধারদিঘি গ্রামের ঝাটালু শিংহের মেয়ে। পারুল রাণী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রমতে, বিপুল ও পারুল গত ১৫ জুন রাতে খেয়ে দেয়ে নিজ ঘরে শুতে যায়।
.
পরদিন সকালে তার বিমাতা মা ঘুম থেকে দেরিতে উঠায় ডাকতে যায়। কিন্তু দরজায় শব্দ করার পরও কোন সাড়াশব্দ না পেলে চিৎকার করে পাশের লোকজনকে ডাকে। লোকজন দরজা ভেঙ্গে দেখে স্বামী স্ত্রী ঘরের সরের দুপাশে একই রশিতে ফাঁস লাগিয়ে মৃত অবস্থায় ঝুলে আছে।
.
পুলিশকে খবর দিলে, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। এ নিয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।মামলা নং ১৩ তারিখ- ১৬/৬/২০২০ খ্রিঃ।
.
রাণীশংকৈলথানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে, রিপোর্ট আসলে ঘটনার সত্যতা জেনে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।