যবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু একাডেমিক ভবনে লিফট বন্ধ, জানেন না প্রধান প্রকৌশলী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০২:৪৪:৫০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০২৪
  • / ১১৭ Time View

যবিপ্রবি প্রতিনিধি:

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের লিফট বিড়ম্বনায় শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি চরমে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বারবার আশ্বাসের পরেও সমস্যার সমাধান মেলেনি। মাঝে মধ্যেই সারাদিন বন্ধ থাকে শিক্ষার্থীদের জন্য নির্ধারিত দুইটির মধ্যে একটি লিফট। এছাড়াও প্রায় সময় লিফট বিকল হয়ে ভেতরে আটকে পড়ার ঘটনায় আতঙ্কিত শিক্ষার্থীরা।

রবিবার (১০ মার্চ) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ৯ তলা বিশিষ্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দকৃত দুইটি লিফটের একটি পার্টস নষ্ট হয়ে বন্ধ রয়েছে। বাকি আরেকটি লিফটে গাদাগাদি করে চলাচল করছে শিক্ষার্থীরা। এ বিষয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে শিক্ষার্থীদের মাঝে। এমন ভোগান্তি থেকে মুক্তি চান তাঁরা।

পরিবেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের শিক্ষার্থী মোঃ আশিকুল ইসলাম বলেন, বেশ অনেক দিন ধরেই বঙ্গবন্ধু একাডেমি বিল্ডিং এর লিফটে সমস্যা। চলমান অবস্থায়ই অনেক সময় লিফট বন্ধ হয়ে কয়েকবার শিক্ষার্থীরা এর মধ্যে আটকে পরার মত ঘটনা অনেক বার ঘটেছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনে মোট তিনটি লিফট। এর মধ্যে একটি শিক্ষকদের ব্যবহারের জন্য, বাকি দুটি শিক্ষার্থীরা ব্যবহার করতো। সম্প্রতি শিক্ষার্থীদের ব্যবহৃত দুটি লিফটের মধ্যে একটি লিফট অচল হয়ে আছে। অবশিষ্ট একটি লিফটে শিক্ষার্থীরা চলাচল করে যেখানে লিফটে উঠতে গেলে দীর্ঘ সময় ধরে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। তাতেও আবার নেই ফ্যানের কোন ব্যবস্থা! শিক্ষার্থীদের এই ভোগান্তি দূর করতে আশা করি প্রশাসন খুব দ্রুতই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিবেন।

এগ্রো প্রোডাক্ট প্রসেসিং টেকনোলজি বিভাগের শিক্ষার্থী লাবিব বলেন, যবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একাডেমিক ভবনের লিফট যেন এখন শিক্ষার্থীদের কাছে সবচেয়ে বড় আতঙ্ক । ফাঁটলযুক্ত ভাঙা লিফট, হুট হাট বন্ধ হয়ে যাওয়া, প্রত্যেক তলায় লিফট না থামা, বৈদ্যুতিক বিড়ম্বনাসহ সব মিলিয়ে দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে এই ভবনের শিক্ষার্থীদের জন্য। তাই সুষ্ঠু পাঠদান ও গ্রহণ নিশ্চিত করতে এই লিফট-বিড়ম্বনার প্রতিকার সকলের এখন একমাত্র দাবি।

এই বিষয়ে প্রধান প্রকৌশলী মো:মাহবুবুস সুবহান বলেন, আমি বিষয়টি সম্পর্কে অবগত ছিলাম না।পরবর্তীতে তিনি জানান, লিফটের পার্টস নষ্ট হয়ে গেছে, যা ঢাকা থেকে নিয়ে আসতে হবে। পার্টসগুলো চলে আসলেই লিফট চালু হবে খুব দ্রুত।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

যবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু একাডেমিক ভবনে লিফট বন্ধ, জানেন না প্রধান প্রকৌশলী

Update Time : ০২:৪৪:৫০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০২৪

যবিপ্রবি প্রতিনিধি:

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের লিফট বিড়ম্বনায় শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি চরমে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বারবার আশ্বাসের পরেও সমস্যার সমাধান মেলেনি। মাঝে মধ্যেই সারাদিন বন্ধ থাকে শিক্ষার্থীদের জন্য নির্ধারিত দুইটির মধ্যে একটি লিফট। এছাড়াও প্রায় সময় লিফট বিকল হয়ে ভেতরে আটকে পড়ার ঘটনায় আতঙ্কিত শিক্ষার্থীরা।

রবিবার (১০ মার্চ) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ৯ তলা বিশিষ্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দকৃত দুইটি লিফটের একটি পার্টস নষ্ট হয়ে বন্ধ রয়েছে। বাকি আরেকটি লিফটে গাদাগাদি করে চলাচল করছে শিক্ষার্থীরা। এ বিষয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে শিক্ষার্থীদের মাঝে। এমন ভোগান্তি থেকে মুক্তি চান তাঁরা।

পরিবেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের শিক্ষার্থী মোঃ আশিকুল ইসলাম বলেন, বেশ অনেক দিন ধরেই বঙ্গবন্ধু একাডেমি বিল্ডিং এর লিফটে সমস্যা। চলমান অবস্থায়ই অনেক সময় লিফট বন্ধ হয়ে কয়েকবার শিক্ষার্থীরা এর মধ্যে আটকে পরার মত ঘটনা অনেক বার ঘটেছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনে মোট তিনটি লিফট। এর মধ্যে একটি শিক্ষকদের ব্যবহারের জন্য, বাকি দুটি শিক্ষার্থীরা ব্যবহার করতো। সম্প্রতি শিক্ষার্থীদের ব্যবহৃত দুটি লিফটের মধ্যে একটি লিফট অচল হয়ে আছে। অবশিষ্ট একটি লিফটে শিক্ষার্থীরা চলাচল করে যেখানে লিফটে উঠতে গেলে দীর্ঘ সময় ধরে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। তাতেও আবার নেই ফ্যানের কোন ব্যবস্থা! শিক্ষার্থীদের এই ভোগান্তি দূর করতে আশা করি প্রশাসন খুব দ্রুতই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিবেন।

এগ্রো প্রোডাক্ট প্রসেসিং টেকনোলজি বিভাগের শিক্ষার্থী লাবিব বলেন, যবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একাডেমিক ভবনের লিফট যেন এখন শিক্ষার্থীদের কাছে সবচেয়ে বড় আতঙ্ক । ফাঁটলযুক্ত ভাঙা লিফট, হুট হাট বন্ধ হয়ে যাওয়া, প্রত্যেক তলায় লিফট না থামা, বৈদ্যুতিক বিড়ম্বনাসহ সব মিলিয়ে দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে এই ভবনের শিক্ষার্থীদের জন্য। তাই সুষ্ঠু পাঠদান ও গ্রহণ নিশ্চিত করতে এই লিফট-বিড়ম্বনার প্রতিকার সকলের এখন একমাত্র দাবি।

এই বিষয়ে প্রধান প্রকৌশলী মো:মাহবুবুস সুবহান বলেন, আমি বিষয়টি সম্পর্কে অবগত ছিলাম না।পরবর্তীতে তিনি জানান, লিফটের পার্টস নষ্ট হয়ে গেছে, যা ঢাকা থেকে নিয়ে আসতে হবে। পার্টসগুলো চলে আসলেই লিফট চালু হবে খুব দ্রুত।