মিষ্টি কিনে রেখেছিলেন বাবা, ছেলের জায়গা হলো না বিশ্বকাপে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০২:১৯:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মে ২০২৪
  • / ৩৯ Time View

স্পোর্টস ডেস্ক

ভারত জাতীয় দলে কিংবা আইপিএল; যেখানেই ম্যাচ খেলেছেন, নিজেকে প্রমাণ করেছেন তরুণ ব্যাটসম্যান রিঙ্কু সিং। বিশ্বকাপ দলে তার থাকা নিয়ে কারোই কোনো সংশয় ছিলো না। কিন্তু সবাইকে হতাশ করলেন ভারতীয় নির্বাচকরা। মূল দলের ১৫ জনে জায়গা হলো না রিঙ্কুর। অথচ তার বাবা কিনে রেখেছিলেন মিষ্টি!

ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ারব রাতে জানা যায়, ছেলে বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাবে সেটা ভেবেই বাজারে গিয়ে মিষ্টি আর আতশবাজি কিনে এনেছিলেন রিঙ্কুর বাবা খানচন্দ্র সিং। বিশ্বকাপ দল দল ঘোষণা হলেই উদযাপন করা যাবে, মিষ্টিমুখ করানো হবে সবাইকে। কিন্তু দল ঘোষণার পর হতাশই হতে হয়েছে রিঙ্কুর বাবাকে।

গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে খানচন্দ্র বলেন, ‘আশা তো অনেক ছিল। মনটা খারাপও হয়ে গেছে কিছুটা। মিষ্টি এবং বাজি কিনে এনে রেখেছিলাম। আশা করেছিলাম যে বিশ্বকাপের দলে ও একাদশে রিঙ্কু থাকবে। তারপরও আমরা আনন্দিত।’

তবে রিঙ্কুর মন খারাপ জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘হ্যাঁ ওরও মন খারাপ। সেটা ওর মাকে বলেছে। ওরও মন ভেঙে গেছে। ওর মাকে বলছিল যে প্রথম একাদশে বা ১৫ জনের দলে আমার নাম নেই, তবে আমি আমেরিকায় যাব (রিজার্ভ খেলোয়াড়)।’

তবে এখনই আশা হারাচ্ছেন না খানচন্দ্র সিং। ছেলেকে সামনে এগিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তার বিশ্বাস, ভবিষ্যতে ভালো করার সুযোগ পাবেন ছেলে, ‘আমি তো এটাই চাই যে সে যেন ভারতের হয়ে আগামীতে খেলে সফল হয়। ছেলের জন্য আমি পরিচিতি পেয়েছি। সবাই এখন আমাকে ওর জন্যই চেনে। রিঙ্কু আমার নাম উজ্জ্বল করেছে।’

জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ১৫টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন রিঙ্কু। তাতে ব্যাট হাতে মাঠে নামার সুযোগ হয়েছে ১১ ইনিংসে। ১১ ইনিংসে ৮৯ গড়ে এই বাঁহাতি রান করেছেন ৩৫৬। স্ট্রাইক রেট ১৭৬.২৩। ফিফটি রয়েছে ২টি। এমন একজনের দলে না থাকা ফিনিশিংয়ে ভারতকে বিপাকে ফেলে কিনা সেটাই এখন দেখার।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

মিষ্টি কিনে রেখেছিলেন বাবা, ছেলের জায়গা হলো না বিশ্বকাপে

Update Time : ০২:১৯:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মে ২০২৪

স্পোর্টস ডেস্ক

ভারত জাতীয় দলে কিংবা আইপিএল; যেখানেই ম্যাচ খেলেছেন, নিজেকে প্রমাণ করেছেন তরুণ ব্যাটসম্যান রিঙ্কু সিং। বিশ্বকাপ দলে তার থাকা নিয়ে কারোই কোনো সংশয় ছিলো না। কিন্তু সবাইকে হতাশ করলেন ভারতীয় নির্বাচকরা। মূল দলের ১৫ জনে জায়গা হলো না রিঙ্কুর। অথচ তার বাবা কিনে রেখেছিলেন মিষ্টি!

ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ারব রাতে জানা যায়, ছেলে বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাবে সেটা ভেবেই বাজারে গিয়ে মিষ্টি আর আতশবাজি কিনে এনেছিলেন রিঙ্কুর বাবা খানচন্দ্র সিং। বিশ্বকাপ দল দল ঘোষণা হলেই উদযাপন করা যাবে, মিষ্টিমুখ করানো হবে সবাইকে। কিন্তু দল ঘোষণার পর হতাশই হতে হয়েছে রিঙ্কুর বাবাকে।

গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে খানচন্দ্র বলেন, ‘আশা তো অনেক ছিল। মনটা খারাপও হয়ে গেছে কিছুটা। মিষ্টি এবং বাজি কিনে এনে রেখেছিলাম। আশা করেছিলাম যে বিশ্বকাপের দলে ও একাদশে রিঙ্কু থাকবে। তারপরও আমরা আনন্দিত।’

তবে রিঙ্কুর মন খারাপ জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘হ্যাঁ ওরও মন খারাপ। সেটা ওর মাকে বলেছে। ওরও মন ভেঙে গেছে। ওর মাকে বলছিল যে প্রথম একাদশে বা ১৫ জনের দলে আমার নাম নেই, তবে আমি আমেরিকায় যাব (রিজার্ভ খেলোয়াড়)।’

তবে এখনই আশা হারাচ্ছেন না খানচন্দ্র সিং। ছেলেকে সামনে এগিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তার বিশ্বাস, ভবিষ্যতে ভালো করার সুযোগ পাবেন ছেলে, ‘আমি তো এটাই চাই যে সে যেন ভারতের হয়ে আগামীতে খেলে সফল হয়। ছেলের জন্য আমি পরিচিতি পেয়েছি। সবাই এখন আমাকে ওর জন্যই চেনে। রিঙ্কু আমার নাম উজ্জ্বল করেছে।’

জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ১৫টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন রিঙ্কু। তাতে ব্যাট হাতে মাঠে নামার সুযোগ হয়েছে ১১ ইনিংসে। ১১ ইনিংসে ৮৯ গড়ে এই বাঁহাতি রান করেছেন ৩৫৬। স্ট্রাইক রেট ১৭৬.২৩। ফিফটি রয়েছে ২টি। এমন একজনের দলে না থাকা ফিনিশিংয়ে ভারতকে বিপাকে ফেলে কিনা সেটাই এখন দেখার।