মিরসরাইয়ে বিএসআরএম কারখানার কাঁচামাল থেকে তাজা হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১০:৫২:২৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই ২০২০
  • / ১৫১ Time View
মিরসরাই (চট্রগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলা জোরারগঞ্জ থানা এলাকায় বিএসআরএম স্টিল কারখানার লোহার কাঁচামাল রাখার জায়গায় একটি তাজা হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার করেছে পুলিশ।
.
বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) সকালে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের একটি দল গ্রেনেডটি উদ্ধার করে নিষ্ক্রিয় করেছে।
.
জোরারগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন গ্রেণেড উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
.
পরিদর্শক (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন জানান, কারখানার রড তৈরির কাঁচামাল রাখার খোলা জায়গায় শ্রমিকরা কাজ করার সময় বোমার মতো একটি বস্তু দেখতে পান শ্রমিকরা। পরে কারখানার কর্মকর্তারা পুলিশকে খবর দেন।
খবর পেয়ে নগর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের বোম ডিজপোজাল ইউনিটের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে গ্রেনেডটি উদ্ধার করে নিষ্ক্রিয় করে।
.
পুলিশের এই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আরও জানান, গ্রেনেডটি বাইরে থেকে জং ধরা ছিলো। তবে এটি একটি তাজা গ্রেনেড। গ্রেনেডটি বিএসআরএম কারখানার ভিতর কিভাবে এলো এই বিষয়টি তদন্ত করছে পুলিশ।
Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

মিরসরাইয়ে বিএসআরএম কারখানার কাঁচামাল থেকে তাজা হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার

Update Time : ১০:৫২:২৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই ২০২০
মিরসরাই (চট্রগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলা জোরারগঞ্জ থানা এলাকায় বিএসআরএম স্টিল কারখানার লোহার কাঁচামাল রাখার জায়গায় একটি তাজা হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার করেছে পুলিশ।
.
বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) সকালে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের একটি দল গ্রেনেডটি উদ্ধার করে নিষ্ক্রিয় করেছে।
.
জোরারগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন গ্রেণেড উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
.
পরিদর্শক (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন জানান, কারখানার রড তৈরির কাঁচামাল রাখার খোলা জায়গায় শ্রমিকরা কাজ করার সময় বোমার মতো একটি বস্তু দেখতে পান শ্রমিকরা। পরে কারখানার কর্মকর্তারা পুলিশকে খবর দেন।
খবর পেয়ে নগর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের বোম ডিজপোজাল ইউনিটের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে গ্রেনেডটি উদ্ধার করে নিষ্ক্রিয় করে।
.
পুলিশের এই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আরও জানান, গ্রেনেডটি বাইরে থেকে জং ধরা ছিলো। তবে এটি একটি তাজা গ্রেনেড। গ্রেনেডটি বিএসআরএম কারখানার ভিতর কিভাবে এলো এই বিষয়টি তদন্ত করছে পুলিশ।