Friday, May 20, 2022
Homeসারাদেশমানিকগঞ্জে গুদামে মিলল ১ হাজার ৩০০ লিটার তেল

মানিকগঞ্জে গুদামে মিলল ১ হাজার ৩০০ লিটার তেল

নিজস্ব প্রতিবেদক:

মানিকগঞ্জ শহরে সয়াবিন তেলের অবৈধ মজুদের দায়ে এক ব্যবসায়ীকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের জেলা কার্যালয় এ জরিমানা করে।

জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল শহরের বড়বাজারে কালীপদ অ্যান্ড সন্স নামে তেলের ডিলারের গুদামে অভিযান চালিয়ে পাঁচ লিটার ও দুই লিটারের ১ হাজার ৩০০ লিটার তেল পাওয়া যায়।

জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, মানিকগঞ্জ শহরের বিভিন্ন বাজারে কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ীরা সয়াবিন তেল অবৈধভাবে মজুদ রেখেছেন। এসব তেলের বোতল খুলে খোলাবাজারে বেশি দামে বিক্রি করে আসছিলেন। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে দুপুরে জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আবদুল লতিফের নির্দেশনায় মানিকগঞ্জ শহর বাজারে অভিযান পরিচালনা করে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের জেলা কার্যালয়।

এ সময় জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল বলেন, বাজারে সয়াবিন তেলের বেশ চাহিদা রয়েছে। এরপরও কালীপদ অ্যান্ড সন্স ডিলার বাজারে তেল বিক্রি না করে অবৈধভাবে মজুদ করে বেশি দামে খোলাবাজারে বিক্রি করে আসছিল।

অভিযান দলের সদস্যরা জানান, এ গুদামে পাওয়া এসব তেলের বোতল গত রমজান মাসে মজুদ করে রাখা হয়েছে। ওই সময় পাঁচ লিটার এক বোতল সয়াবিনের মূল্য ছিল ৭৯৫ টাকা। তবে বর্তমানে তেলের দাম বাড়ায় প্রতি পাঁচ লিটার সয়াবিনের মুল্য ৯৯০ টাকা। তবে বোতলে পূর্বের ওই মূল্য তালিকা থাকায় ক্রেতাদের কাছে তা বিক্রি না করে খুলে বিক্রি করা হয়। এতে প্রতি লিটার তেলে ২০ টাকা হারে অতিরিক্ত লাভে বিক্রি করা হচ্ছে। এ কারণে কালীপদ অ্যান্ড সন্সের গুদামে অবৈধভাবে মজুত করার দায়ে প্রতিষ্ঠানটির মালিক নিরঞ্জন বণিককে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযানে জেলা ক্যাবের সাধারণ সম্পাদক সামছুন্নবী তুলিপ এবং সদর থানার পুলিশ সদস্যরা সহযোগিতা করেন।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular