মহান স্বাধীনতা দিবসে সুজিত রায় নন্দীর শুভেচ্ছা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৫:৪১:৫০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০২৪
  • / ১১৩ Time View

ছবি:সুজিত রায় নন্দী

২৬ শে মার্চ ‘মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস’ উপলক্ষে রক্তিম শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী।

সুজিত রায় নন্দী বলেন, আজ ২৬ মার্চ, ৫৪তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। বাঙালি জাতির সবচেয়ে গৌরবের দিন, পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর দিন। দীর্ঘ পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে ১৯৭১ সালের এই দিনে বিশ্বের মাঝে স্বাধীন রাষ্ট্র গঠনের লক্ষ্যে স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করি স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।

বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে সাড়া দিয়ে ছাত্র, কৃষক, শ্রমিক, চাকরিজীবী, নারী, পুরুষ, বাংলার সর্বস্তরের সব শ্রেণি-পেশার মানুষ জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধভাবে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

তিনি আরো বলেন, কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করি জাতীয় চার নেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও সকল স্তরের জনগণকে, যাঁরা বাংলাদেশের অধিকার আদায় ও মুক্তিসংগ্রামে বিভিন্ন ভাবে অবদান রেখেছেন।

এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের মহান স্বাধীনতার মহানায়ক বঙ্গবন্ধু, সবসময় স্বপ্ন দেখতেন একটি সুখী-সমৃদ্ধ দেশ গড়ার। তাঁর সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে।

সুজিত রায় নন্দী বলেন,  স্বাধীনতার এই সন্ধিক্ষণে সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত উন্নত দেশে পরিণত হোক-মহান স্বাধীনতা দিবসে এটাই হোক আমাদের সকলের প্রত্যাশা।

Please Share This Post in Your Social Media

মহান স্বাধীনতা দিবসে সুজিত রায় নন্দীর শুভেচ্ছা

Update Time : ০৫:৪১:৫০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০২৪

২৬ শে মার্চ ‘মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস’ উপলক্ষে রক্তিম শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী।

সুজিত রায় নন্দী বলেন, আজ ২৬ মার্চ, ৫৪তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। বাঙালি জাতির সবচেয়ে গৌরবের দিন, পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর দিন। দীর্ঘ পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে ১৯৭১ সালের এই দিনে বিশ্বের মাঝে স্বাধীন রাষ্ট্র গঠনের লক্ষ্যে স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করি স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।

বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে সাড়া দিয়ে ছাত্র, কৃষক, শ্রমিক, চাকরিজীবী, নারী, পুরুষ, বাংলার সর্বস্তরের সব শ্রেণি-পেশার মানুষ জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধভাবে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

তিনি আরো বলেন, কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করি জাতীয় চার নেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও সকল স্তরের জনগণকে, যাঁরা বাংলাদেশের অধিকার আদায় ও মুক্তিসংগ্রামে বিভিন্ন ভাবে অবদান রেখেছেন।

এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের মহান স্বাধীনতার মহানায়ক বঙ্গবন্ধু, সবসময় স্বপ্ন দেখতেন একটি সুখী-সমৃদ্ধ দেশ গড়ার। তাঁর সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে।

সুজিত রায় নন্দী বলেন,  স্বাধীনতার এই সন্ধিক্ষণে সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত উন্নত দেশে পরিণত হোক-মহান স্বাধীনতা দিবসে এটাই হোক আমাদের সকলের প্রত্যাশা।