বিশ্বে ১ কোটি ১৫ লাখ মানুষ করোনা আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৭:৪২:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ জুলাই ২০২০
  • / ১৩১ Time View

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বেড়ে চলেছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বে ১ কোটি ১৫ লাখ ৫৫ হাজার ৪১৪ জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ৩৬ হাজার ৭২০ জনে। ইতোমধ্যে আক্রান্ত ৬৫ লাখ ৩৪ হাজার ৪৫৬ জন মানুষ সুস্থ হয়েছেন।

করোনাভাইরাস এখন দরিদ্র দেশগুলোতে বিস্তার লাভ করছে। ইতোমধ্যে ব্রাজিল আক্রান্তের হিসেবে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে ১৬ লাখ ৪ হাজার ৫৮৫ জন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং ৬৪ হাজার ৯০০ জন মারা গেছেন। একইসঙ্গে রাশিয়ায় বাড়তে শুরু করেছে আক্রান্তের সংখ্যা। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৬ লাখ ৮১ হাজার ২৫১ জন এবং ১০ হাজার ১৬১ জন মারা গেছেন।

করোনায় বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ১ লাখ ৩২ হাজার ৫৬৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগী মারা গেছেন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ২৯ লাখ ৮২ হাজার ৯২৮ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১২ লাখ ৮৯ হাজার ৫৬৪ জন।

ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর তালিকায় ইতোমধ্যে উঠে এসেছে ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের নাম। এশিয়ার স্বল্পউন্নত এসব দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে। ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৬ লাখ ৯৭ হাজার ৮৩৬ জন এবং ১৯ হাজার ৭০০ জন মারা গেছে। পাকিস্তানে ২ লাখ ২৮ হাজার ৪৭৪ জন আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৪ হাজার ৭১২ জন। বাংলাদেশে আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৬২ হাজার ৪১৭ জন এবং ২ হাজার ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

চীনের উহান শহরে গত বছর ডিসেম্বর থেকে দেখা যাওয়া এই নতুন ভাইরাস মূলত ফুসফুসে বড় ধরনের সংক্রমণ ঘটায়। জ্বর, কাশি, শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যাই মূলত প্রধান লক্ষ্মণ। নতুন ভাইরাসটির জেনেটিক কোড বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে এটি অনেকটাই সার্স ভাইরাসের মতো। এখনও পর্যন্ত এ ভাইরাসের কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

বিশ্বে ১ কোটি ১৫ লাখ মানুষ করোনা আক্রান্ত

Update Time : ০৭:৪২:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ জুলাই ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বেড়ে চলেছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বে ১ কোটি ১৫ লাখ ৫৫ হাজার ৪১৪ জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ৩৬ হাজার ৭২০ জনে। ইতোমধ্যে আক্রান্ত ৬৫ লাখ ৩৪ হাজার ৪৫৬ জন মানুষ সুস্থ হয়েছেন।

করোনাভাইরাস এখন দরিদ্র দেশগুলোতে বিস্তার লাভ করছে। ইতোমধ্যে ব্রাজিল আক্রান্তের হিসেবে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে ১৬ লাখ ৪ হাজার ৫৮৫ জন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং ৬৪ হাজার ৯০০ জন মারা গেছেন। একইসঙ্গে রাশিয়ায় বাড়তে শুরু করেছে আক্রান্তের সংখ্যা। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৬ লাখ ৮১ হাজার ২৫১ জন এবং ১০ হাজার ১৬১ জন মারা গেছেন।

করোনায় বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ১ লাখ ৩২ হাজার ৫৬৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগী মারা গেছেন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ২৯ লাখ ৮২ হাজার ৯২৮ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১২ লাখ ৮৯ হাজার ৫৬৪ জন।

ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর তালিকায় ইতোমধ্যে উঠে এসেছে ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের নাম। এশিয়ার স্বল্পউন্নত এসব দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে। ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৬ লাখ ৯৭ হাজার ৮৩৬ জন এবং ১৯ হাজার ৭০০ জন মারা গেছে। পাকিস্তানে ২ লাখ ২৮ হাজার ৪৭৪ জন আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৪ হাজার ৭১২ জন। বাংলাদেশে আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৬২ হাজার ৪১৭ জন এবং ২ হাজার ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

চীনের উহান শহরে গত বছর ডিসেম্বর থেকে দেখা যাওয়া এই নতুন ভাইরাস মূলত ফুসফুসে বড় ধরনের সংক্রমণ ঘটায়। জ্বর, কাশি, শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যাই মূলত প্রধান লক্ষ্মণ। নতুন ভাইরাসটির জেনেটিক কোড বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে এটি অনেকটাই সার্স ভাইরাসের মতো। এখনও পর্যন্ত এ ভাইরাসের কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি।