বিদ্যুৎ কিনতে ১০ হাজার ৬১২ কোটি টাকা ব্যয় করবে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৩:০০:১৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪
  • / ৩২ Time View

নো ইলেকট্রিসিটি, নো পেমেন্ট ভিত্তিতে দেশের তিনটি সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে ৩০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কিনবে সরকার। ২০ বছর মেয়াদী এই বিদ্যুৎ চুক্তিতে সরকারের মোট ১০ হাজার ৬১২ কোটি ৮০ লাখ টাকা ব্যয় হবে। এজন্য খুলনা, মৌলভীবাজার ও রাজবাড়ী জেলায় প্রতিটি ১০০ মেগাওয়াট সক্ষমতার তিনটি সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের অনুমতি দেওয়া হয়।

অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় গতকাল এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এছাড়া সভায় তেল, ডাল, চিনি, গম ও কর্ণফুলী টানেলের ব্যয় বৃদ্ধি-সংক্রান্ত বেশকিছু প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে।

সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সমন্বয় ও সংস্কার অনুবিভাগের সচিব মো. মাহমুদুল হোসাইন খান সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

তিনি জানান, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিউবো) কর্তৃক খুলনার রূপসা উপজেলায় ১০০ মেগাওয়াট (এসি) সক্ষমতার সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। একইভাবে মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর উপজেলায় ১০০ মেগাওয়াট ও রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলায় ১০০ মেগাওয়াট (এসি) সক্ষমতার সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। কেন্দ্র তিনটি থেকে ২০ বছর মেয়াদে নো ইলেকট্রিসিটি, নো পেমেন্ট ভিত্তিতে প্রতি কিলোওয়াট ঘণ্টা ১০ টাকা ৯২ পয়সা হিসেবে বিদ্যুৎ কেনা হবে। এতে প্রতিটি কেন্দ্রকে আনুমানিক ৩ হাজার ৫৩৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা পরিশোধ করতে হবে।

সভায় স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজার থেকে ৫০৬ কোটি ৯৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকার তেল, ডাল, চিনি ও গম কেনার প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়। এর মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ৫০ হাজার টন গম ১ কোটি ৩৯ লাখ ৯৭ হাজার ৫০০ ডলারে আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশী মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় ১৫৩ কোটি ৯৭ লাখ ২৫ হাজার টাকা। প্রতি টন গমের মূল্য ধরা হয়েছে ২৭৯ দশমিক ৯৫ ডলার। এক্ষেত্রে প্রতি কেজি গমের দাম পড়বে ৩০ টাকা ৭৯ পয়সা।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

বিদ্যুৎ কিনতে ১০ হাজার ৬১২ কোটি টাকা ব্যয় করবে সরকার

Update Time : ০৩:০০:১৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪

নো ইলেকট্রিসিটি, নো পেমেন্ট ভিত্তিতে দেশের তিনটি সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে ৩০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কিনবে সরকার। ২০ বছর মেয়াদী এই বিদ্যুৎ চুক্তিতে সরকারের মোট ১০ হাজার ৬১২ কোটি ৮০ লাখ টাকা ব্যয় হবে। এজন্য খুলনা, মৌলভীবাজার ও রাজবাড়ী জেলায় প্রতিটি ১০০ মেগাওয়াট সক্ষমতার তিনটি সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের অনুমতি দেওয়া হয়।

অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় গতকাল এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এছাড়া সভায় তেল, ডাল, চিনি, গম ও কর্ণফুলী টানেলের ব্যয় বৃদ্ধি-সংক্রান্ত বেশকিছু প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে।

সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সমন্বয় ও সংস্কার অনুবিভাগের সচিব মো. মাহমুদুল হোসাইন খান সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

তিনি জানান, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিউবো) কর্তৃক খুলনার রূপসা উপজেলায় ১০০ মেগাওয়াট (এসি) সক্ষমতার সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। একইভাবে মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর উপজেলায় ১০০ মেগাওয়াট ও রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলায় ১০০ মেগাওয়াট (এসি) সক্ষমতার সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। কেন্দ্র তিনটি থেকে ২০ বছর মেয়াদে নো ইলেকট্রিসিটি, নো পেমেন্ট ভিত্তিতে প্রতি কিলোওয়াট ঘণ্টা ১০ টাকা ৯২ পয়সা হিসেবে বিদ্যুৎ কেনা হবে। এতে প্রতিটি কেন্দ্রকে আনুমানিক ৩ হাজার ৫৩৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা পরিশোধ করতে হবে।

সভায় স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজার থেকে ৫০৬ কোটি ৯৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকার তেল, ডাল, চিনি ও গম কেনার প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়। এর মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ৫০ হাজার টন গম ১ কোটি ৩৯ লাখ ৯৭ হাজার ৫০০ ডলারে আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশী মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় ১৫৩ কোটি ৯৭ লাখ ২৫ হাজার টাকা। প্রতি টন গমের মূল্য ধরা হয়েছে ২৭৯ দশমিক ৯৫ ডলার। এক্ষেত্রে প্রতি কেজি গমের দাম পড়বে ৩০ টাকা ৭৯ পয়সা।