বিকেল থেকে ‘বাংলা ব্লকেড’

  • Update Time : ০৩:৩৩:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪
  • / 29

কোটা পদ্ধতি সংস্কার ও মেধাভিত্তিক নিয়োগের জন্য ২০১৮ সালে সরকারের জারি করা পরিপত্র পুনর্বহালের দাবিতে ঘোষিত ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি আজ সোমবার (৮ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে শুরু করার কথা রয়েছে শিক্ষার্থীদের।

রবিবার (৭ জুলাই) আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম প্রথম দিনের কর্মসূচির সমাপনী বক্তব্যে রাত পৌনে আটটায় এই ঘোষণা দেন।

এ সময় তিনি বলেন, আমরা আজ (রবিবার) বাংলা ব্লকেড কর্মসূচি করেছি কারওয়ান বাজার পর্যন্ত। আগামীকাল (সোমবার) আমরা ফার্মগেট পার হয়ে যাবো।

নাহিদ বলেন, আমাদের দাবি মেনে নিন। না হয় ১০০ পারসেন্ট কোটা দিয়ে দিন। ঘোষণা করে দিন— এটা কোটাধারীদের দেশ। আমাদের পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে ছাত্রধর্মঘট চলবে। পাশাপাশি বাংলা ব্লকেড কর্মসূচিও চলবে। আগামীকাল বিকাল সাড়ে ৩টার সময়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে জড়ো হয়ে শাহবাগে ব্লকেড কর্মসূচি পালন করবো। সারা দেশে এ কর্মসূচি পালন করারও আহ্বান জানান তিনি।

গত পাঁচ জুন হাইকোর্ট সরকারি পরিপত্রের অংশবিশেষ বাতিল করে দেওয়ার পর আন্দোলনকারীরা চার দফা দাবি জানিয়ে আন্দোলন করে আসছিলেন। কিন্তু গতকাল (রবিবার) তারা এক দফা দাবি ঘোষণা করেন।

আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক হাসনাত আবদুল্লাহ এক দফা দাবি ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, আমাদের চার দফা দাবি ছিল। এখন থেকে আমাদের দাবি একটাই, সব গ্রেডে বৈষম্যমূলক ও অনায্য কোটা বাতিল করে যৌক্তিকভাবে সংস্কার করতে হবে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

বিকেল থেকে ‘বাংলা ব্লকেড’

Update Time : ০৩:৩৩:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪

কোটা পদ্ধতি সংস্কার ও মেধাভিত্তিক নিয়োগের জন্য ২০১৮ সালে সরকারের জারি করা পরিপত্র পুনর্বহালের দাবিতে ঘোষিত ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি আজ সোমবার (৮ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে শুরু করার কথা রয়েছে শিক্ষার্থীদের।

রবিবার (৭ জুলাই) আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম প্রথম দিনের কর্মসূচির সমাপনী বক্তব্যে রাত পৌনে আটটায় এই ঘোষণা দেন।

এ সময় তিনি বলেন, আমরা আজ (রবিবার) বাংলা ব্লকেড কর্মসূচি করেছি কারওয়ান বাজার পর্যন্ত। আগামীকাল (সোমবার) আমরা ফার্মগেট পার হয়ে যাবো।

নাহিদ বলেন, আমাদের দাবি মেনে নিন। না হয় ১০০ পারসেন্ট কোটা দিয়ে দিন। ঘোষণা করে দিন— এটা কোটাধারীদের দেশ। আমাদের পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে ছাত্রধর্মঘট চলবে। পাশাপাশি বাংলা ব্লকেড কর্মসূচিও চলবে। আগামীকাল বিকাল সাড়ে ৩টার সময়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে জড়ো হয়ে শাহবাগে ব্লকেড কর্মসূচি পালন করবো। সারা দেশে এ কর্মসূচি পালন করারও আহ্বান জানান তিনি।

গত পাঁচ জুন হাইকোর্ট সরকারি পরিপত্রের অংশবিশেষ বাতিল করে দেওয়ার পর আন্দোলনকারীরা চার দফা দাবি জানিয়ে আন্দোলন করে আসছিলেন। কিন্তু গতকাল (রবিবার) তারা এক দফা দাবি ঘোষণা করেন।

আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক হাসনাত আবদুল্লাহ এক দফা দাবি ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, আমাদের চার দফা দাবি ছিল। এখন থেকে আমাদের দাবি একটাই, সব গ্রেডে বৈষম্যমূলক ও অনায্য কোটা বাতিল করে যৌক্তিকভাবে সংস্কার করতে হবে।