Homeআন্তর্জাতিকবাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচার ১৭ কোটি রুপির সাপের বিষ উদ্ধার

বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচার ১৭ কোটি রুপির সাপের বিষ উদ্ধার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হিলি থানা থেকে জারভর্তি ২ কেজি ১৪০ গ্রাম সাপের বিষ উদ্ধার করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। গোপনসূত্রে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) হিলি থানার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের কালীবাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে এ বিষ উদ্ধার করা হয়।

বিএসএফ সূত্রে জানা গেছে, জারটিতে কোবরা সাপের বিষ ছিল। উদ্ধারকৃত সাপের বিষের আনুমানিক বাজারমূল্য ১৭ কোটি রুপি। জব্দ করার পর জারটি বালুরঘাট বনদপ্তরের হাতে তুলে দেয় বিএসএফ।

বাংলাদেশ থেকে চোরা কারবারিরা বিষভর্তি জার এনে কালীবাড়ি এলাকায় লুকিয়ে রাখেন। পরে স্থানীয় বাসিন্দারা বিষয়টি জানতে পেরে বিএসএফকে খবর দেন।

খবর পেয়ে, দ্রুত অভিযানে নামে বিএসএফের ১৩৭ নম্বর ব্যাটেলিয়ান। কালীবাড়ি এলাকায় শুরু হয় চিরুনি তল্লাশি। একপর্যায়ে বিএসএফের তাড়া খেয়ে এক ব্যক্তি ঝোপের আড়ালে কালো একটি জার রেখে পালিয়ে যান। পরে মেড ইন ফ্রান্স লেখা সাপের বিষভর্তি কাঁচের জার উদ্ধার করা হয়।

বালুরঘাট বনদপ্তরের ডেপুটি রেঞ্জার নিখিল ছেত্রী জানান, বিএসএফের দেওয়া বিষের নমুনা আদালতের মাধ্যমে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।

বিএসএফের এক কর্মকর্তা জানান, সম্প্রতি সাপের বিষভর্তি যেসব জার উদ্ধার করা হচ্ছে, তাতে ফ্রান্সের নাম লেখা থাকছে। ১ সেপ্টেম্বর ৬১ নম্বর ব্যাটেলিয়নের ডিগিপাড়া বর্ডার আউটপোস্ট ১৭ কোটি চব্বিশ লাখ পয়তাল্লিশ হাজার রুপি মূল্যের সাপের বিষ উদ্ধার করে। ওই জারের গায়েও রেড ড্রাগন লেখা ছিল।

এর মাধ্যমে ধারণা করা হচ্ছে, এ কারবারের সঙ্গে ফ্রান্সের কুখ্যাত মাফিয়াগোষ্ঠী রেড ড্রাগনের যোগাসাজশ রয়েছে।

সারাবিশ্বের ওষুধ নির্মাতাদের কাছে সাপের বিষ একটি মহামূল্যবান উপাদান। আর সাপের বিষ সংগ্রহের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ও ভারত বিষ পাচারের আন্তর্জাতিক চক্রের কাছে স্বর্গরাজ্যের মতো। ভারত- বাংলাদেশ সীমান্ত এখন সাপের বিষ চোরাচালানের অন্যতম স্পট হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বাংলাদেশের গোখরা, কালাচ, কেউটে ও ভারতের বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গের গোখরা, কেউটে, শাখামুটি, চন্দ্রবোড়া সাপের বিষের চাহিদা বিশ্বজুড়ে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular