ফ্রান্সের পরমাণু সাবমেরিনে আগুন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৫:১২:২৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুন ২০২০
  • / ১৪২ Time View
ভূমধ্যসাগরের তুলোন বন্দরে অবস্থানরত ফ্রান্সের একটি পরমাণু শক্তিচালিত সাবমেরিনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ বন্দরটি হচ্ছে ফ্রান্সের নৌ বাহিনীর জন্য সবচেয়ে বড় ঘাঁটি।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বারবার দাবি করছে যে, সাবমরিনের আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। আগুন নেভানোর জন্য কয়েক ডজন দমকল কর্মী কাজ করে এবং আগুন নেভানোর জন্য মারসেলি থেকে একটি জাহাজ মোতায়েন করা হয়। সাবমেরিনটি মেরামতের জন্য বন্দরে নোঙ্গর করা ছিল।

ভূমধ্যসাগরে অবস্থিত নৌঘাঁটির একজন মুখপাত্র বলেছেন, এরইমধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে এবং আগুন আর ছড়িয়ে পড়ছে না তবে এখনো পরিপূর্ণভাবে নিভে যায় নি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় একজন জন আহত হয়েছেন তবে সাবমেরিনের কোন পরমাণু পদার্থ বা অস্ত্র থেকে তিনি আহত হন নি। কী কারণে এই সাবমেরিনে আগুন লেগেছে তা এখনো পরিষ্কার নয়। ১৯৯০ সালে ফ্রান্স এই পরমাণু শক্তিচালিত সাবমেরিনটি চালু করে এবং ১৯৯৩ সালে সক্রিয়ভাবে নৌবাহিনীতে যুক্ত হয়।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

ফ্রান্সের পরমাণু সাবমেরিনে আগুন

Update Time : ০৫:১২:২৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুন ২০২০
ভূমধ্যসাগরের তুলোন বন্দরে অবস্থানরত ফ্রান্সের একটি পরমাণু শক্তিচালিত সাবমেরিনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ বন্দরটি হচ্ছে ফ্রান্সের নৌ বাহিনীর জন্য সবচেয়ে বড় ঘাঁটি।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বারবার দাবি করছে যে, সাবমরিনের আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। আগুন নেভানোর জন্য কয়েক ডজন দমকল কর্মী কাজ করে এবং আগুন নেভানোর জন্য মারসেলি থেকে একটি জাহাজ মোতায়েন করা হয়। সাবমেরিনটি মেরামতের জন্য বন্দরে নোঙ্গর করা ছিল।

ভূমধ্যসাগরে অবস্থিত নৌঘাঁটির একজন মুখপাত্র বলেছেন, এরইমধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে এবং আগুন আর ছড়িয়ে পড়ছে না তবে এখনো পরিপূর্ণভাবে নিভে যায় নি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় একজন জন আহত হয়েছেন তবে সাবমেরিনের কোন পরমাণু পদার্থ বা অস্ত্র থেকে তিনি আহত হন নি। কী কারণে এই সাবমেরিনে আগুন লেগেছে তা এখনো পরিষ্কার নয়। ১৯৯০ সালে ফ্রান্স এই পরমাণু শক্তিচালিত সাবমেরিনটি চালু করে এবং ১৯৯৩ সালে সক্রিয়ভাবে নৌবাহিনীতে যুক্ত হয়।