নোবিপ্রবিতে গুচ্ছের ‘বি’ ইউনিটে অনুপস্থিত ১০.৬১ শতাংশ ভর্তিচ্ছু

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৪:০৪:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪
  • / ৩৬ Time View

এস আহমেদ ফাহিম, নোবিপ্রবি

গুচ্ছভুক্ত নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক শ্রেণির ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অনুপস্থিতির হার ছিল ১০.৬১ শতাংশ।এই কেন্দ্রে ১৭৮২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১৫৯৩ জন অংশগ্রহণ করেছে যা মোট পরীক্ষার্থীর ৮৯.৩৯ শতাংশ।

আজ শুক্রবার (৩ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩টি ভবনের মোট ৪২টি কক্ষে সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত চলে এই ভর্তি পরীক্ষা।ভর্তি পরীক্ষা ঘিরে সকাল থেকেই ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আনাগোনায় মুখরিত হয়ে উঠে ক্যাম্পাস। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সহযোগিতায় বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনসিসি,রোভার স্কাউট, নোবিপ্রবি ছাত্রলীগ সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ছাত্রসংগঠন।

পরীক্ষা চলাকালীন নোবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ দিদার-উল-আলম কেন্দ্রসমূহ ঘুরে দেখেন। এ সময় নোবিপ্রবির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আব্দুল বাকী, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর, শিক্ষক সমিতির সভাপতি এবং পরীক্ষা পরিচালনা ও আসন বিন্যাস উপ-কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. বিপ্লব মল্লিক, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও নোবিপ্রবি প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোঃ আনিসুজ্জামান, রেজিস্ট্রার ও ভর্তি কমিটির সদস্য সচিব মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন, শৃঙ্খলা ও ভিজিল্যান্স কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. এস এম মাহবুবুর রহমানসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিনবৃন্দ, দপ্তর প্রধানবৃন্দ, শিক্ষক সমিতি ও অফিসার্স এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ, পরীক্ষা পরিচালনা কমিটি ও বিভিন্ন উপ-কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে নোবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ দিদার-উল-আলম বলেন, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অত্যন্ত সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে বি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সারাদেশের মতো নোয়াখালীতেও তীব্র তাপদাহ অনুভূত হচ্ছে। বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে শিক্ষার্থীরা যাতে স্বাচ্ছন্দ্যে পরীক্ষায় অংশ নিতে পারে, সেজন্য নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎসেবা নিশ্চিত করা হয়েছে। পাশাপাশি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে পর্যাপ্ত পরিবহন সেবা প্রদান করা হয়েছে।

এ সময় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ দিদার-উল-আলম তথ্য সেবা ও মেডিকেল টিমের সদস্যবৃন্দসহ ভর্তি পরীক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কমিটির সদস্যবৃন্দ, নোবিপ্রবির শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ সকলকে ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি নোয়াখালী জেলা প্রশাসন, নোয়াখালী পৌরসভা, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যবৃন্দ, স্থানীয় পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থা, সাংবাদিকবৃন্দসহ ভর্তি পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

প্রসঙ্গত, আগামী ১০ মে নোবিপ্রবিতে গুচ্ছের ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

নোবিপ্রবিতে গুচ্ছের ‘বি’ ইউনিটে অনুপস্থিত ১০.৬১ শতাংশ ভর্তিচ্ছু

Update Time : ০৪:০৪:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪

এস আহমেদ ফাহিম, নোবিপ্রবি

গুচ্ছভুক্ত নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক শ্রেণির ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অনুপস্থিতির হার ছিল ১০.৬১ শতাংশ।এই কেন্দ্রে ১৭৮২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১৫৯৩ জন অংশগ্রহণ করেছে যা মোট পরীক্ষার্থীর ৮৯.৩৯ শতাংশ।

আজ শুক্রবার (৩ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩টি ভবনের মোট ৪২টি কক্ষে সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত চলে এই ভর্তি পরীক্ষা।ভর্তি পরীক্ষা ঘিরে সকাল থেকেই ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আনাগোনায় মুখরিত হয়ে উঠে ক্যাম্পাস। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সহযোগিতায় বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনসিসি,রোভার স্কাউট, নোবিপ্রবি ছাত্রলীগ সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ছাত্রসংগঠন।

পরীক্ষা চলাকালীন নোবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ দিদার-উল-আলম কেন্দ্রসমূহ ঘুরে দেখেন। এ সময় নোবিপ্রবির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আব্দুল বাকী, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর, শিক্ষক সমিতির সভাপতি এবং পরীক্ষা পরিচালনা ও আসন বিন্যাস উপ-কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. বিপ্লব মল্লিক, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও নোবিপ্রবি প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোঃ আনিসুজ্জামান, রেজিস্ট্রার ও ভর্তি কমিটির সদস্য সচিব মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন, শৃঙ্খলা ও ভিজিল্যান্স কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. এস এম মাহবুবুর রহমানসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিনবৃন্দ, দপ্তর প্রধানবৃন্দ, শিক্ষক সমিতি ও অফিসার্স এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ, পরীক্ষা পরিচালনা কমিটি ও বিভিন্ন উপ-কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে নোবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ দিদার-উল-আলম বলেন, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অত্যন্ত সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে বি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সারাদেশের মতো নোয়াখালীতেও তীব্র তাপদাহ অনুভূত হচ্ছে। বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে শিক্ষার্থীরা যাতে স্বাচ্ছন্দ্যে পরীক্ষায় অংশ নিতে পারে, সেজন্য নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎসেবা নিশ্চিত করা হয়েছে। পাশাপাশি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে পর্যাপ্ত পরিবহন সেবা প্রদান করা হয়েছে।

এ সময় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ দিদার-উল-আলম তথ্য সেবা ও মেডিকেল টিমের সদস্যবৃন্দসহ ভর্তি পরীক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কমিটির সদস্যবৃন্দ, নোবিপ্রবির শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ সকলকে ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি নোয়াখালী জেলা প্রশাসন, নোয়াখালী পৌরসভা, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যবৃন্দ, স্থানীয় পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থা, সাংবাদিকবৃন্দসহ ভর্তি পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

প্রসঙ্গত, আগামী ১০ মে নোবিপ্রবিতে গুচ্ছের ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।