নেত্রকোনা বিসিক শিল্পনগরীতে নকল প্রসাধনী তৈরির কারখানায় অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৯:৫৩:০৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ জুলাই ২০২০
  • / ১০৪ Time View

 

ইকবাল হাসান,নেত্রকোনা জেলা প্রতিনিধি:

নেত্রকোনায় বিসিক শিল্প নগরীতে নকল প্রসাধনী তৈরির কারখানায় হানা দিয়েছে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা ও র‍্যাব-১৪ এর একটি দল।

রাতে সদরের চল্লিশা এলাকায় বিসিকের একটি রহিমা সোয়েটার নামক ফ্যাক্টরির ভেতরে এই অভিযান পরিচালিত হয়।

এ সময় নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার, বিদেশী সেন্ট, বডিস্প্রে, মেহেদীসহ বিভিন্ন জাতের ৪৫ প্রকারের বিপুল পরিমাণ নকল প্রসাধনীসহ মেশিন জব্দ করা হয়।

পরে জেড এন্ড এম নামের একটি নকল প্রোডাক্ট কারখানার প্রস্তুতকারক মালিক নুরুর রহমান জাহিদকে (৪২) আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন এন এস আইয়ের উপ পরিচালক মো. তৌফিকুর রহমান ও র‍্যাব-১৪ এর অধিনায়ক এস এম শোভন খান।

পরে খবর পেয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এসে জব্দকৃত প্রসাধনীগুলো রাতেই ধংস করে দেয়।

জানা গেছে, নকল প্রস্তুতকারক জাহিদ দীর্ঘদিন ধরে সোয়েটার ফ্যাক্টরির ভেতরে জেড এন্ড এম নামে এসকল নকল প্রসাধনী তৈরি করে দেশের বিভিন্ন জেলায় পাঠাতো।

নওগা, দিনাজপুর, চাপাইনবাবগঞ্জসহ দেশের মোট ১৮টি জেলায় ডিলারের মাধ্যমে এ সকল নকল পন্য গ্রামে গঞ্জের বিভিন্ন বাজারে বিক্রি করতো।

জাহিদ নেত্রকোনা শহরের নাগড়া এলাকার বাসিন্দা এবং শহরের পুরনো বিদ্যাপীঠ দত্ত উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক হামিদুর রহমান খানের ছেলে।

তিনি কাশমেরী মেহেদী, ফগ নামের মতো বিভিন্ন দামী বডিস্প্রের মোড়কে নকল ক্যামিক্যাল বাজারজাত করে আসছিল।

বাইরে থেকে রহিমা ফ্যাক্টরি দেখা গেলেও ভেতরে ছিলো তার নকল কারখানা।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

নেত্রকোনা বিসিক শিল্পনগরীতে নকল প্রসাধনী তৈরির কারখানায় অভিযান

Update Time : ০৯:৫৩:০৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ জুলাই ২০২০

 

ইকবাল হাসান,নেত্রকোনা জেলা প্রতিনিধি:

নেত্রকোনায় বিসিক শিল্প নগরীতে নকল প্রসাধনী তৈরির কারখানায় হানা দিয়েছে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা ও র‍্যাব-১৪ এর একটি দল।

রাতে সদরের চল্লিশা এলাকায় বিসিকের একটি রহিমা সোয়েটার নামক ফ্যাক্টরির ভেতরে এই অভিযান পরিচালিত হয়।

এ সময় নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার, বিদেশী সেন্ট, বডিস্প্রে, মেহেদীসহ বিভিন্ন জাতের ৪৫ প্রকারের বিপুল পরিমাণ নকল প্রসাধনীসহ মেশিন জব্দ করা হয়।

পরে জেড এন্ড এম নামের একটি নকল প্রোডাক্ট কারখানার প্রস্তুতকারক মালিক নুরুর রহমান জাহিদকে (৪২) আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন এন এস আইয়ের উপ পরিচালক মো. তৌফিকুর রহমান ও র‍্যাব-১৪ এর অধিনায়ক এস এম শোভন খান।

পরে খবর পেয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এসে জব্দকৃত প্রসাধনীগুলো রাতেই ধংস করে দেয়।

জানা গেছে, নকল প্রস্তুতকারক জাহিদ দীর্ঘদিন ধরে সোয়েটার ফ্যাক্টরির ভেতরে জেড এন্ড এম নামে এসকল নকল প্রসাধনী তৈরি করে দেশের বিভিন্ন জেলায় পাঠাতো।

নওগা, দিনাজপুর, চাপাইনবাবগঞ্জসহ দেশের মোট ১৮টি জেলায় ডিলারের মাধ্যমে এ সকল নকল পন্য গ্রামে গঞ্জের বিভিন্ন বাজারে বিক্রি করতো।

জাহিদ নেত্রকোনা শহরের নাগড়া এলাকার বাসিন্দা এবং শহরের পুরনো বিদ্যাপীঠ দত্ত উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক হামিদুর রহমান খানের ছেলে।

তিনি কাশমেরী মেহেদী, ফগ নামের মতো বিভিন্ন দামী বডিস্প্রের মোড়কে নকল ক্যামিক্যাল বাজারজাত করে আসছিল।

বাইরে থেকে রহিমা ফ্যাক্টরি দেখা গেলেও ভেতরে ছিলো তার নকল কারখানা।