নেত্রকোনায় জঙ্গি আস্তানার খোঁজ, ঘিরে রেখেছে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৭:০২:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪
  • / 9

জেলা প্রতিনিধি

নেত্রকোনায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি বাড়ি ও মাছের খামার ঘিরে রেখেছে পুলিশ। প্রাথমিক অভিযানে একটি পিস্তল ও ১৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখনও কাউকে আটক করা যায়নি। অভিযান চলছে।

শনিবার সকাল থেকে জেলা সদরের কাইলাটি ইউনিয়নের ভাসাপাড়া গ্রামে ওই মাছের খামারটি ঘিরে রাখা হয়েছে।

পুলিশ সুপার ফয়েজ আহমেদ জানান, ওই এলাকার প্রফেসর আব্দুল মান্নানের ফিসারিতে জঙ্গি আস্তানা রয়েছে, গোপন এমন সংবাদ পেয়ে শুক্রবার রাত জায়গায়টি পুলিশ নজরদারিতে রাখে। পরে শনিবার সকাল থেকে জায়গায়টি ঘিরে ফেলা হয়।

তিনি জানান, প্রাথমিকভাবে অভিযান চালিয়ে একটি পিস্তল ও ১৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা যায়নি। অভিযান চলছে। তিনি আরও বলেন, ভেতরে বোমা অথবা বোমা তৈরির সরঞ্জাম থাকতে পারে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। এখনও ভেতরে কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি।

এদিকে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ময়মনসিংহ থেকে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছেছে। তারা বাড়িটির ভেতরে ঢুকে অভিযান চালাচ্ছে।

অন্যদিকে, কাইলাটি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার আনোয়ার হোসেন জানান, ওই স্থানটির মালিক প্রফেসর আব্দুল মান্নান। তার বাড়ি জেলার আটপাড়া উপজেলায়। বছর তিনেক আগে তাদের কাছে বাড়িটি ভাড়া দেয়া হয়। তবে ভাড়া নেয়া কাউকে এলাকার লোকজন কখনো দেখেননি। পুরো বাড়িটি সিসি ক্যামেরার নিয়ন্ত্রণে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

নেত্রকোনায় জঙ্গি আস্তানার খোঁজ, ঘিরে রেখেছে পুলিশ

Update Time : ০৭:০২:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪

জেলা প্রতিনিধি

নেত্রকোনায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি বাড়ি ও মাছের খামার ঘিরে রেখেছে পুলিশ। প্রাথমিক অভিযানে একটি পিস্তল ও ১৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখনও কাউকে আটক করা যায়নি। অভিযান চলছে।

শনিবার সকাল থেকে জেলা সদরের কাইলাটি ইউনিয়নের ভাসাপাড়া গ্রামে ওই মাছের খামারটি ঘিরে রাখা হয়েছে।

পুলিশ সুপার ফয়েজ আহমেদ জানান, ওই এলাকার প্রফেসর আব্দুল মান্নানের ফিসারিতে জঙ্গি আস্তানা রয়েছে, গোপন এমন সংবাদ পেয়ে শুক্রবার রাত জায়গায়টি পুলিশ নজরদারিতে রাখে। পরে শনিবার সকাল থেকে জায়গায়টি ঘিরে ফেলা হয়।

তিনি জানান, প্রাথমিকভাবে অভিযান চালিয়ে একটি পিস্তল ও ১৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা যায়নি। অভিযান চলছে। তিনি আরও বলেন, ভেতরে বোমা অথবা বোমা তৈরির সরঞ্জাম থাকতে পারে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। এখনও ভেতরে কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি।

এদিকে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ময়মনসিংহ থেকে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছেছে। তারা বাড়িটির ভেতরে ঢুকে অভিযান চালাচ্ছে।

অন্যদিকে, কাইলাটি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার আনোয়ার হোসেন জানান, ওই স্থানটির মালিক প্রফেসর আব্দুল মান্নান। তার বাড়ি জেলার আটপাড়া উপজেলায়। বছর তিনেক আগে তাদের কাছে বাড়িটি ভাড়া দেয়া হয়। তবে ভাড়া নেয়া কাউকে এলাকার লোকজন কখনো দেখেননি। পুরো বাড়িটি সিসি ক্যামেরার নিয়ন্ত্রণে।