নীলফামারী জেলায় নতুন শনাক্ত ৯, মোট ২৭৯

  • Update Time : ০৩:২০:৩৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুন ২০২০
  • / 161

 

মশিয়ার রহমান, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি:

নীলফামারী জেলায় নতুন করে আরও ৯ জন করোনায় শনাক্ত হয়েছে।

আজ শুক্রবার সকালে সিভিল সার্জন ডাঃ রনজিৎ কুমার বর্মন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের নিকট হতে ১১,১২,১৫ ও ১৮ জুনের প্রেরিত ২৮টি নমুনার রির্পোটে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

৯ জনের মধ্যে নীলফামারী পৌরসভার কলেজপাড়ায় একই পরিবারের দুইজন,পঞ্চপুকুর ইউনিয়নের চেংমারী গ্রামের এক জন , জলঢাকা পৌরসভার বগুলাগাড়ী এলাকায় দুইজন, ডাঙ্গাপাড়ায় এক যুবক। ডোমারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনার বিভাগে ২ জন ও ডিমলা উপজেলার খগাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের বন্দরখড়িবাড়ি এলাকার এক যুবক।

স্বাস্থ্য বিভাগ জানায় , পূর্বের শনাক্ত সহ এ নিয়ে গোটা জেলায় সর্বমোট করোনা শনাক্ত হলো ২৭৯ জন। এর মধ্যে নীলফামারী সদরে ৮৮, জলঢাকা উপজেলায় ৫২, ডিমলা উপজেলায় ৪৫, সৈয়দপুর উপজেলায় ৩৬, ডোমার উপজেলায় ৩৩ ও কিশোরীগঞ্জ উপজেলায় ২৫ জন। এর মধ্যে প্রাণহানি ৬ জন। সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩৬ জন।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

নীলফামারী জেলায় নতুন শনাক্ত ৯, মোট ২৭৯

Update Time : ০৩:২০:৩৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুন ২০২০

 

মশিয়ার রহমান, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি:

নীলফামারী জেলায় নতুন করে আরও ৯ জন করোনায় শনাক্ত হয়েছে।

আজ শুক্রবার সকালে সিভিল সার্জন ডাঃ রনজিৎ কুমার বর্মন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের নিকট হতে ১১,১২,১৫ ও ১৮ জুনের প্রেরিত ২৮টি নমুনার রির্পোটে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

৯ জনের মধ্যে নীলফামারী পৌরসভার কলেজপাড়ায় একই পরিবারের দুইজন,পঞ্চপুকুর ইউনিয়নের চেংমারী গ্রামের এক জন , জলঢাকা পৌরসভার বগুলাগাড়ী এলাকায় দুইজন, ডাঙ্গাপাড়ায় এক যুবক। ডোমারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনার বিভাগে ২ জন ও ডিমলা উপজেলার খগাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের বন্দরখড়িবাড়ি এলাকার এক যুবক।

স্বাস্থ্য বিভাগ জানায় , পূর্বের শনাক্ত সহ এ নিয়ে গোটা জেলায় সর্বমোট করোনা শনাক্ত হলো ২৭৯ জন। এর মধ্যে নীলফামারী সদরে ৮৮, জলঢাকা উপজেলায় ৫২, ডিমলা উপজেলায় ৪৫, সৈয়দপুর উপজেলায় ৩৬, ডোমার উপজেলায় ৩৩ ও কিশোরীগঞ্জ উপজেলায় ২৫ জন। এর মধ্যে প্রাণহানি ৬ জন। সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩৬ জন।