নীলফামারীর তিন উপজেলায় চেয়ারম্যান হলেন যারা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৭:০৮:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪
  • / 33

মশিয়ার রহমান, নীলফামারী প্রতিনিধি।

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপে নীলফামারীর তিন উপজেলায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জলঢাকা, কিশোরগঞ্জ ও সৈয়দপুর উপজেলা। ২১মে মঙ্গলবার বিকেলে ভোটগ্রহণ শেষে রাতে ফলাফল ঘোষণা করেছে স্ব স্ব উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাগণ। এতে জলঢাকা উপজেলায় ঘোড়া প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মো: আনছার আলী মিন্টু। তিনি ৩৯ হাজার ৬৪ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী গোলাম আজম এলিচ মোটরসাইকেল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৩১ হাজার ৪৬ ভোট। এছাড়াও বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর চিংড়ি প্রতীকে পেয়েছেন ২১ হাজার ৮শত ৩৬ ভোট।
এ উপজেলায় পুরুষ ভাইস-চেয়ারম্যান শাহিনুর রহমান (টিউবওয়েল ) ও দ্বিতীয় বারের মতো মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবে মোছা: মনোয়ারা বেগম (ফুটবল) বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মোঃ রশিদুল ইসলাম (রশিদ ঠিকাদার) ঘোড়া প্রতীক নিয়ে ২৮ হাজার ৩শত ৪৩ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ও বর্তমান চেয়ারম্যান শাহ মোঃ আবুল কালাম বারী পাইলট ১৪২ ভোটে পিছিয়ে গেছেন।
এ উপজেলায় পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মাহবুবর রহমান। এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হয়েছেন স্বপ্না খাতুন।
এদিকে জেলার মাল্টিমিডিয়া বাণিজ্যিক শহর সৈয়দপুর উপজেলায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন প্রয়াত সৈয়দপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র ও জাতীয় সংসদ সদস্য মরহুম আমজাদ আলী সরকারের ছেলে রিয়াদ আরফান সরকার রানা। তিনি দোয়াতকলম প্রতীক নিয়ে ভোটে লড়াই করে ভোট পেয়েছেন ৩২ হাজার ৩শত ৩৬ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আজমল হোসেন সরকার পেয়েছেন ১৮ হাজার ১শত ৭২ ভোট।

এ উপজেলায় পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোঃ মহসিন মন্ডল মিঠু ৩৬ হাজার ৬৩৬ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন। এবং ৩য় বারের মতো মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন পদ্ম ফুল প্রতীক নিয়ে সানজিদা বেগম লাকী।
তিনি ভোট পেয়েছেন ৩০ হাজার ৮শত ৮৪ ভোট।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

নীলফামারীর তিন উপজেলায় চেয়ারম্যান হলেন যারা

Update Time : ০৭:০৮:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪

মশিয়ার রহমান, নীলফামারী প্রতিনিধি।

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপে নীলফামারীর তিন উপজেলায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জলঢাকা, কিশোরগঞ্জ ও সৈয়দপুর উপজেলা। ২১মে মঙ্গলবার বিকেলে ভোটগ্রহণ শেষে রাতে ফলাফল ঘোষণা করেছে স্ব স্ব উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাগণ। এতে জলঢাকা উপজেলায় ঘোড়া প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মো: আনছার আলী মিন্টু। তিনি ৩৯ হাজার ৬৪ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী গোলাম আজম এলিচ মোটরসাইকেল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৩১ হাজার ৪৬ ভোট। এছাড়াও বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর চিংড়ি প্রতীকে পেয়েছেন ২১ হাজার ৮শত ৩৬ ভোট।
এ উপজেলায় পুরুষ ভাইস-চেয়ারম্যান শাহিনুর রহমান (টিউবওয়েল ) ও দ্বিতীয় বারের মতো মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবে মোছা: মনোয়ারা বেগম (ফুটবল) বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মোঃ রশিদুল ইসলাম (রশিদ ঠিকাদার) ঘোড়া প্রতীক নিয়ে ২৮ হাজার ৩শত ৪৩ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ও বর্তমান চেয়ারম্যান শাহ মোঃ আবুল কালাম বারী পাইলট ১৪২ ভোটে পিছিয়ে গেছেন।
এ উপজেলায় পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মাহবুবর রহমান। এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হয়েছেন স্বপ্না খাতুন।
এদিকে জেলার মাল্টিমিডিয়া বাণিজ্যিক শহর সৈয়দপুর উপজেলায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন প্রয়াত সৈয়দপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র ও জাতীয় সংসদ সদস্য মরহুম আমজাদ আলী সরকারের ছেলে রিয়াদ আরফান সরকার রানা। তিনি দোয়াতকলম প্রতীক নিয়ে ভোটে লড়াই করে ভোট পেয়েছেন ৩২ হাজার ৩শত ৩৬ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আজমল হোসেন সরকার পেয়েছেন ১৮ হাজার ১শত ৭২ ভোট।

এ উপজেলায় পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোঃ মহসিন মন্ডল মিঠু ৩৬ হাজার ৬৩৬ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন। এবং ৩য় বারের মতো মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন পদ্ম ফুল প্রতীক নিয়ে সানজিদা বেগম লাকী।
তিনি ভোট পেয়েছেন ৩০ হাজার ৮শত ৮৪ ভোট।