নীলফামারীর ডিমলায় ৭২ বস্তা ভারতীয় ভুট্টা জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৭:৪২:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০
  • / ১০৫ Time View
মশিয়ার রহমান, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি:
নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার তিস্তা নদী দিয়ে নিয়ে আসা ভারতীয় ৭২ বস্তা ( ৫ হাজার কেজি) ভুট্টার চালান আটক করেছে ডিমলা থানা পুলিশ। গত কাল রাত ১ টার দিকে নীলফামারী ডিমলা উপজেলা ৭ নং খালিশা চাপানী ইউনিয়নের ছোটখাতা মৌজায় গ্রোয়িং বাধঁ সংলগ্ন তিস্তা নদী থেকে এই চালান আটক করা হয়।
.
ডিমলা থানা সাব ইন্সপেক্টর শুভ্রত রায় ও তার সঙ্গীয় ফোর্স সহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভুট্টা বাহী ভ্যান আটক করেন, তবে চোরাকারবারির সাথে জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হন নাই।
.
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে, ডিমলা থানা ওসি (তদন্ত) মোঃ সোহেল রানা বলেন, আটককৃত ভুট্টার বাজার মূল্য রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা করা হবে। তবে কে বা কারা জড়িত এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, স্বাক্ষ্য প্রমাণ ছাড়া কিছুই বলা যাচ্ছে না।
.
তিনি আরো বলেন,বিজিবির পাশাপাশি ডিমলা থানা পুলিশ আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও চোরাকারবারী বন্ধে পুলিশ তৎপর রয়েছে। ইতিমধ্যে গরু চোরাকারবারী সহ অনেকে ধরা হয়েছে এবং কোর্টের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
.
উল্লেখ্য, বিগত দিনগুলোতে উল্লেখযোগ্য হারে ডিমলা থানায় গরু চোরাকারবারী সহ অন্যন্য চোরাকারবারী বৃদ্ধি পেয়েছে প্রশাসন যদি এখনি তত্পর না হন, তাহলে বর্ডার এলাকায় অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটতে পারে। এর মধ্যে গত ২৯/৬/২০ইং ভুট্টার চালান ধরা পড়েছিল সেটার এখনো কোনো সুরাহা হয় নাই।
Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

নীলফামারীর ডিমলায় ৭২ বস্তা ভারতীয় ভুট্টা জব্দ

Update Time : ০৭:৪২:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০
মশিয়ার রহমান, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি:
নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার তিস্তা নদী দিয়ে নিয়ে আসা ভারতীয় ৭২ বস্তা ( ৫ হাজার কেজি) ভুট্টার চালান আটক করেছে ডিমলা থানা পুলিশ। গত কাল রাত ১ টার দিকে নীলফামারী ডিমলা উপজেলা ৭ নং খালিশা চাপানী ইউনিয়নের ছোটখাতা মৌজায় গ্রোয়িং বাধঁ সংলগ্ন তিস্তা নদী থেকে এই চালান আটক করা হয়।
.
ডিমলা থানা সাব ইন্সপেক্টর শুভ্রত রায় ও তার সঙ্গীয় ফোর্স সহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভুট্টা বাহী ভ্যান আটক করেন, তবে চোরাকারবারির সাথে জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হন নাই।
.
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে, ডিমলা থানা ওসি (তদন্ত) মোঃ সোহেল রানা বলেন, আটককৃত ভুট্টার বাজার মূল্য রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা করা হবে। তবে কে বা কারা জড়িত এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, স্বাক্ষ্য প্রমাণ ছাড়া কিছুই বলা যাচ্ছে না।
.
তিনি আরো বলেন,বিজিবির পাশাপাশি ডিমলা থানা পুলিশ আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও চোরাকারবারী বন্ধে পুলিশ তৎপর রয়েছে। ইতিমধ্যে গরু চোরাকারবারী সহ অনেকে ধরা হয়েছে এবং কোর্টের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
.
উল্লেখ্য, বিগত দিনগুলোতে উল্লেখযোগ্য হারে ডিমলা থানায় গরু চোরাকারবারী সহ অন্যন্য চোরাকারবারী বৃদ্ধি পেয়েছে প্রশাসন যদি এখনি তত্পর না হন, তাহলে বর্ডার এলাকায় অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটতে পারে। এর মধ্যে গত ২৯/৬/২০ইং ভুট্টার চালান ধরা পড়েছিল সেটার এখনো কোনো সুরাহা হয় নাই।