নবীনগরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে অবৈধ রিং জাল জব্দ ও অর্থদণ্ড

  • Update Time : ১১:৩০:৩৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪
  • / 38

শুভ চক্রবর্ত্তী, নবীনগর প্রতিনিধি :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বীরগাঁও ইউনিয়নের বাইশমৌজা এলাকায় মেঘনা নদী থেকে অবৈধ রিং জাল জব্দ করা হয়েছে এবং ২ জন জেলে ও ৫ জন ব্যবসায়ীকে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার(২জুলাই) দুপুরে নবীনগর উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আবু মুছার নেতৃত্বে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আবুল কাসেম ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করে।

উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবু মুছা জানান, মঙ্গলবার দুপুরে নবীনগর উপজেলার মেঘনা নদীতে এবং বাইশমৌজা বাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সময় নদীতে অবৈধ রিং জাল ব্যবহার করে মাছ ধরতে থাকা ২ জন জেলেকে আটক করা হয় এবং নদী থেকে প্রায় ১৮০ টি রিং জাল জব্দ করা হয়। পরে বাইশমৌজা বাজারে অভিযান চালিয়ে প্রায় ১৩০০টি রিং জাল জব্দ করা হয় এবং এই জাল ব্যবসার সাথে জড়িত ৫ জনকে আটক করা হয়। জব্দকৃত সকল জাল জনসাধারণের সম্মুখে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। আটককৃতদের প্রত্যেককে মৎস্য সংরক্ষণ আইন,১৯৫০ এর সংশ্লিষ্ট ধারায় ৫ হাজার টাকা করে সর্বমোট ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। জনস্বার্থে এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

নবীনগরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে অবৈধ রিং জাল জব্দ ও অর্থদণ্ড

Update Time : ১১:৩০:৩৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪

শুভ চক্রবর্ত্তী, নবীনগর প্রতিনিধি :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বীরগাঁও ইউনিয়নের বাইশমৌজা এলাকায় মেঘনা নদী থেকে অবৈধ রিং জাল জব্দ করা হয়েছে এবং ২ জন জেলে ও ৫ জন ব্যবসায়ীকে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার(২জুলাই) দুপুরে নবীনগর উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আবু মুছার নেতৃত্বে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আবুল কাসেম ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করে।

উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবু মুছা জানান, মঙ্গলবার দুপুরে নবীনগর উপজেলার মেঘনা নদীতে এবং বাইশমৌজা বাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সময় নদীতে অবৈধ রিং জাল ব্যবহার করে মাছ ধরতে থাকা ২ জন জেলেকে আটক করা হয় এবং নদী থেকে প্রায় ১৮০ টি রিং জাল জব্দ করা হয়। পরে বাইশমৌজা বাজারে অভিযান চালিয়ে প্রায় ১৩০০টি রিং জাল জব্দ করা হয় এবং এই জাল ব্যবসার সাথে জড়িত ৫ জনকে আটক করা হয়। জব্দকৃত সকল জাল জনসাধারণের সম্মুখে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। আটককৃতদের প্রত্যেককে মৎস্য সংরক্ষণ আইন,১৯৫০ এর সংশ্লিষ্ট ধারায় ৫ হাজার টাকা করে সর্বমোট ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। জনস্বার্থে এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।