নতুন মুদ্রানীতিতে যা থাকছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১২:১৩:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ মে ২০২৩
  • / ১১৮ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

আগামী অর্থবছরের ষাণ্মাসিক (জুলাই–ডিসেম্বর) মুদ্রানীতি ১৮ জুন ঘোষণা করা হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদারের সভাপতিত্বে নির্বাহী পরিচালকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানায়, আগামী অর্থবছরের ষাণ্মাসিক মুদ্রানীতিতে ডলারের একক রেট নির্ধারণ করা হবে। এর ফলে ইচ্ছা করলেই যেকোনো অনুমোদিত ডিলার ব্যাংক অথবা ভিন্ন ভিন্ন রেটে ডলার ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে না। ডলার কেনা-বেচায় অভিন্ন রেট থাকবে। নতুন মুদ্রানীতিতে ৯ শতাংশ সুদের হারের সীমা তুলে দেওয়া হবে। সুদহারে করিডর পলিসি ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বেন্সমার্ক পদ্ধতি মেনে চলা হবে। এ রেট মেনেই ব্যাংকগুলো লেনদেন করবে। এখানে মূল্যস্ফীতির চেয়ে সুদহার কম হবে না।

বাংলাদেশ ব্যাংকে এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, এবারের মুদ্রানীতিতে বেশকিছু চমক থাকছে। আগামী ১৮ জুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হবে। অনিবার্য কারণে পেছানো হলে ২২ জুনের মধ্যে যেকোনো দিন ঘোষণা করা হবে মুদ্রানীতি। গভর্নর মুদ্রানীতি ঘোষণা করে ওইদিনই হজ পালনের উদ্দেশ্যে সৌদি আরব যেতে পারেন।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

নতুন মুদ্রানীতিতে যা থাকছে

Update Time : ১২:১৩:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ মে ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

আগামী অর্থবছরের ষাণ্মাসিক (জুলাই–ডিসেম্বর) মুদ্রানীতি ১৮ জুন ঘোষণা করা হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদারের সভাপতিত্বে নির্বাহী পরিচালকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানায়, আগামী অর্থবছরের ষাণ্মাসিক মুদ্রানীতিতে ডলারের একক রেট নির্ধারণ করা হবে। এর ফলে ইচ্ছা করলেই যেকোনো অনুমোদিত ডিলার ব্যাংক অথবা ভিন্ন ভিন্ন রেটে ডলার ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে না। ডলার কেনা-বেচায় অভিন্ন রেট থাকবে। নতুন মুদ্রানীতিতে ৯ শতাংশ সুদের হারের সীমা তুলে দেওয়া হবে। সুদহারে করিডর পলিসি ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বেন্সমার্ক পদ্ধতি মেনে চলা হবে। এ রেট মেনেই ব্যাংকগুলো লেনদেন করবে। এখানে মূল্যস্ফীতির চেয়ে সুদহার কম হবে না।

বাংলাদেশ ব্যাংকে এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, এবারের মুদ্রানীতিতে বেশকিছু চমক থাকছে। আগামী ১৮ জুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হবে। অনিবার্য কারণে পেছানো হলে ২২ জুনের মধ্যে যেকোনো দিন ঘোষণা করা হবে মুদ্রানীতি। গভর্নর মুদ্রানীতি ঘোষণা করে ওইদিনই হজ পালনের উদ্দেশ্যে সৌদি আরব যেতে পারেন।