নতুন বছর উদযাপনে সুন্দরবনে ট্যুরিস্ট লঞ্চের ভিড়

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১২:০৭:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ জানুয়ারী ২০২৩
  • / ১৯১ Time View

মোংলা প্রতিনিধি:

থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে ছোট-বড় অর্ধশতাধিক ট্যুরিস্ট লঞ্চ সুন্দরবনে ভিড় করেছে। বছরের শেষ দিন ও নতুন বছরের প্রথমদিনকে স্মরণীয় করে রাখতে প্রায় আড়াই হাজারেরও বেশি পর্যটক বনের অভ্যন্তরে প্রবেশ করেছেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) রাতে ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব সুন্দরবন’র (খুলনা) সাধারণ সম্পাদক মো. নাজমুল আজম ডেভিট বলেন, থার্টি-ফাস্ট নাইট উদযাপনে মোংলা ও খুলনা থেকে ছোট-বড় মিলিয়ে ৫০টিরও অধিক লঞ্চে আড়াই হাজারের বেশি পর্যটক শনিবার দিনভর পর্যায়ক্রমে সুন্দরবনের অভ্যন্তরে প্রবেশ করেছেন। তারা বনের বিভিন্ন পর্যটন স্পটসহ নদী ও খালে অবস্থান নিয়ে উৎসবে মেতেছেন। তাদের মধ্যে বিদেশিরাও রয়েছেন।

তবে দুরত্বের দিক দিয়ে মোংলা-খুলনার সবচেয়ে কাছাকাছির আকর্ষণীয় পর্যটন স্পট করমজলে বছরের শেষ দিনে আশানুরূপ পর্যটকের সাড়া মেলেনি।

এব্যাপারে করমজল পর্যটন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আজাদ কবির বলেন, শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) এখানে দেড় হাজারের বেশি পর্যটকের আগমন ঘটেছিল। আশা ছিলো শনিবার আরও বেশি লোক হবে। কিন্তু শুক্রবারের তুলনায় অর্ধেক লোক আসে শনিবার, এমনটা অবশ্য আশা ছিল না।

Please Share This Post in Your Social Media

নতুন বছর উদযাপনে সুন্দরবনে ট্যুরিস্ট লঞ্চের ভিড়

Update Time : ১২:০৭:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ জানুয়ারী ২০২৩

মোংলা প্রতিনিধি:

থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে ছোট-বড় অর্ধশতাধিক ট্যুরিস্ট লঞ্চ সুন্দরবনে ভিড় করেছে। বছরের শেষ দিন ও নতুন বছরের প্রথমদিনকে স্মরণীয় করে রাখতে প্রায় আড়াই হাজারেরও বেশি পর্যটক বনের অভ্যন্তরে প্রবেশ করেছেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) রাতে ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব সুন্দরবন’র (খুলনা) সাধারণ সম্পাদক মো. নাজমুল আজম ডেভিট বলেন, থার্টি-ফাস্ট নাইট উদযাপনে মোংলা ও খুলনা থেকে ছোট-বড় মিলিয়ে ৫০টিরও অধিক লঞ্চে আড়াই হাজারের বেশি পর্যটক শনিবার দিনভর পর্যায়ক্রমে সুন্দরবনের অভ্যন্তরে প্রবেশ করেছেন। তারা বনের বিভিন্ন পর্যটন স্পটসহ নদী ও খালে অবস্থান নিয়ে উৎসবে মেতেছেন। তাদের মধ্যে বিদেশিরাও রয়েছেন।

তবে দুরত্বের দিক দিয়ে মোংলা-খুলনার সবচেয়ে কাছাকাছির আকর্ষণীয় পর্যটন স্পট করমজলে বছরের শেষ দিনে আশানুরূপ পর্যটকের সাড়া মেলেনি।

এব্যাপারে করমজল পর্যটন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আজাদ কবির বলেন, শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) এখানে দেড় হাজারের বেশি পর্যটকের আগমন ঘটেছিল। আশা ছিলো শনিবার আরও বেশি লোক হবে। কিন্তু শুক্রবারের তুলনায় অর্ধেক লোক আসে শনিবার, এমনটা অবশ্য আশা ছিল না।