Friday, September 24, 2021
Homeআন্তর্জাতিকদ. আফ্রিকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালুর সিদ্ধান্ত

দ. আফ্রিকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালুর সিদ্ধান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনা মহামারির কারণে দেয়া লকডাউন শিথিল করে বেশ কিছু বিধিনিষেধ তুলে নিচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা। একই সঙ্গে ব্যাপকভাবে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সবাইকে টিকার আওতায় আনতে যাচ্ছে দেশটি।

সোমবার (২৬ জুলাই) করোনা পরিস্থিতি নিয়ে জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে দক্ষিণ আফ্রিকার রাষ্ট্রপতি সিরিল রামাফোসা এ কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনায় নিয়ে সীমিত আকারে সামাজিক, শিক্ষা ও ধর্মীয় এবং বাণিজ্যিক কার্যক্রমে বেশ কিছু বিধিনিষেধ তুলে নিতে উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এতে প্রতিষ্ঠান ও জনসাধারণের সহযোগিতা করতে হবে। তা না হলে সরকার যে উদ্দেশে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা কোনো কাজে আসবে না।’

এই সময়ে রাষ্ট্রপতি সোমবার থেকে লকডাউন লেভেল তিন ঘোষণা করেন।

এতে বলা হয়, রাত ১০টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত কারফিউ থাকবে। রাত ৯টার মধ্যে রেস্টুরেন্ট ও দোকানপাট বন্ধ করতে হবে। মসজিদ, চার্চসহ ধর্মীয় উপাসনালয়গুলোতে ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক মানুষ উপস্থিত হওয়া যাবে। এছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসা-বাড়িতে ৫০ জন ও খোলা মাঠে ১০০ জনের জনসমাগম করা যাবে।

করোনা পরিস্থিতিতে চিকিৎসা বিষয়ক অগ্রগতি নিয়ে রামাফোসা তার বক্তব্যে বলেন, ‘সেপ্টেম্বর থেকে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে ভ্যাকসিন শুরু হবে। অক্টোবর থেকে কেপটাউনে ফাইজারের ভ্যাকসিন উৎপাদন শুরু হবে।’

সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকায় রাজনৈতিক দাঙ্গার বিষয়ে কঠোর হুঁশিয়ার উচ্চারণ করে তিনি বলেন, ‘সহিংসতা প্রতিরোধে অনির্দিষ্টকালের জন্য সেনাবাহিনী মাঠে থাকবে। দাঙ্গা-লুটপাটের সঙ্গে জড়িত ইন্ধনদাতাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ বিচার ও শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।’

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular