দেশের মানুষকে নিয়ে যৌথভাবে উৎপাদন বৃদ্ধি করতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০২:০২:৪২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০২৪
  • / ১৭ Time View

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সারা বাংলাদেশের মানুষকে নিয়ে যৌথভাবে উৎপাদন বৃদ্ধি করতে চাই। দেশটাকে স্বাবলম্বী করতে চাই। শুক্রবার (১৯ মে) গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় ১ আমার বাড়ি আমার খামার’ প্রকল্পের সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সমবায়ের ধারণাকে সারাদেশে ছড়িয়ে দিয়ে কৃষি উৎপাদন বাড়ানো এবং স্বনির্ভর বাংলাদেশ গঠনে সকলের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, এক ইঞ্চি জমিও যেন অনাবাদি না থাকে। গণভবনেও আমরা সবজি চাষ করছি। টুঙ্গিপাড়ায়ও অনেক জমি চাষের আওতায় এনেছি। আশা করি, বাংলাদেশের মানুষ আর দরিদ্র থাকবে না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশটাকে স্বাবলম্বী করতে চাই। যুব সমাজ যেন চাকরির পেছনে না ছুটে ব্যবসা করতে পারে সেজন্য বিনা জামানতে ঋণের ব্যবস্থা করেছে সরকার। পেনশন স্কিমে যোগ দিলে আর ভাতার আশায় থাকতে হবে না দেশের মানুষকে।

তিনি বলেন, নতুন আরেকটি আধুনিক স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হবে। আজকের শিশু-কিশোর যুবক তারাই হবে স্মার্ট বাংলাদেশের সৈনিক। জলবায়ু পরিবর্তন থেকে দেশকে বাঁচাতে প্রত্যেকে যেন দুই-তিনটা করে গাছ লাগায়।

এর আগে সকালে একদিনের সফরে গণভবন থেকে সড়ক পথে টুঙ্গিপাড়ায় যান প্রধানমন্ত্রী। সেখানে পৌঁছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান তিনি। পাশাপাশি ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন তিনি। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন ছোট বোন শেখ রেহানা, চাচাতো ভাই শেখ হেলালসহ পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের মানুষকে নিয়ে যৌথভাবে উৎপাদন বৃদ্ধি করতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

Update Time : ০২:০২:৪২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০২৪

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সারা বাংলাদেশের মানুষকে নিয়ে যৌথভাবে উৎপাদন বৃদ্ধি করতে চাই। দেশটাকে স্বাবলম্বী করতে চাই। শুক্রবার (১৯ মে) গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় ১ আমার বাড়ি আমার খামার’ প্রকল্পের সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সমবায়ের ধারণাকে সারাদেশে ছড়িয়ে দিয়ে কৃষি উৎপাদন বাড়ানো এবং স্বনির্ভর বাংলাদেশ গঠনে সকলের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, এক ইঞ্চি জমিও যেন অনাবাদি না থাকে। গণভবনেও আমরা সবজি চাষ করছি। টুঙ্গিপাড়ায়ও অনেক জমি চাষের আওতায় এনেছি। আশা করি, বাংলাদেশের মানুষ আর দরিদ্র থাকবে না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশটাকে স্বাবলম্বী করতে চাই। যুব সমাজ যেন চাকরির পেছনে না ছুটে ব্যবসা করতে পারে সেজন্য বিনা জামানতে ঋণের ব্যবস্থা করেছে সরকার। পেনশন স্কিমে যোগ দিলে আর ভাতার আশায় থাকতে হবে না দেশের মানুষকে।

তিনি বলেন, নতুন আরেকটি আধুনিক স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হবে। আজকের শিশু-কিশোর যুবক তারাই হবে স্মার্ট বাংলাদেশের সৈনিক। জলবায়ু পরিবর্তন থেকে দেশকে বাঁচাতে প্রত্যেকে যেন দুই-তিনটা করে গাছ লাগায়।

এর আগে সকালে একদিনের সফরে গণভবন থেকে সড়ক পথে টুঙ্গিপাড়ায় যান প্রধানমন্ত্রী। সেখানে পৌঁছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান তিনি। পাশাপাশি ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন তিনি। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন ছোট বোন শেখ রেহানা, চাচাতো ভাই শেখ হেলালসহ পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।