দেশের বৃহৎ কোরবানি পশুর ডিজিটাল হাট চালু করলো সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১১:৪৫:৫৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ জুলাই ২০২০
  • / ২৪৫ Time View
ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে মানুষ যখন অফিস, ব্যবসা-বাণিজ্য, নিত্যপণ্য কেনাকাটা, শিক্ষা-স্বাস্থ্য সবকিছুতেই ব্যবহার করছে অনলাইন প্লাটফর্ম। তখনই সামনে আসছে কোরবানির ঈদ। এই ঈদে পশু কেনা, পশু পছন্দ করতে হাটে যাওয়াসহ নানা কারণেই প্রচণ্ড ভিড় ও ব্যাপক মানুষের সমাগম ঘটবে হাটগুলোতে। এতে বাড়তে পারে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বলেও মনে করছে বিশ্লেষকরা।
এছাড়া দেশের অসংখ্য চাষি ও ছোট বড় খামারিরা দেশের কুরবানির পশুর চাহিদা মেটাতে সারা বছর ধরে গরু-ছাগল পালন করে থাকেন, শুধু মাত্র লাভের আশায়। করোনা রোধে সিটি কর্পোরেশনগুলো পশুর হাটের সংখ্যা কমিয়ে দেয়ায় তারা পড়েছেন বিপাকে।
.
এসব কথা মাথায় রেখে খামারি ও ক্রেতাদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তায় ‘কুরবানির পশুর ডিজিটাল হাট’  চালু করেছে সরকার। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ কোরবানির পশু ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য এই ডিজিটাল হাটের ব্যবস্থা করেছে।
.
জানা গেছে, এই হাটে ক্রেতারা ঘরে বসেই গরুর ছবি ও ভিডিও দেখার ও লাইভ ওজন জানার সুযোগ পাবেন। একইসঙ্গে তিনি গরু চাষি, খামারি বা ব্যাপারীদের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করার সুযোগ পাবেন। এরপর নির্দিষ্ট স্থান থেকে অথবা হোম ডেলিভারির ভিত্তিতে অর্থের বিনিময়ে গরু সংগ্রহ করতে পারবেন।
.
করোনা পরিস্থিতিতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আওতায় বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের অধীনে ‘উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প (iDEA)’ এর আগে ‘ফুড ফর ন্যাশন’ নামে একটি প্ল্যাটফর্ম গঠন করে। এরই আলোকে (iDEA) প্রজেক্টের ‘স্টার্টআপ বাংলাদেশ’ ব্যানারে ডিজিটাল হাটের এই উদ্যোগটি গ্রহণ করে প্রকল্পটি।
.
জানা গেছে, ডিজিটাল হাটের জন্য সারাদেশ থেকে গরু- ছাগলের চাষি, খামারের মালিক ও সাধারণ পশু ব্যবসায়ীদের নিবন্ধন কার্যক্রম ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে। চাষি-খামারিদের সবাই https://foodfornation.gov.bd/qurbani2020/ এই ওয়েব সাইটে প্রবেশ করে বিনামূল্যে নিবন্ধন করতে পারবেন। নিবন্ধনের পর নিজস্ব প্যানেল থেকে পশুর ছবি, ভিডিও ও অন্যান্য তথ্য আপলোড করতে হবে। এই সকল ছবি ও তথ্য ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকার তার নিজ খরচে প্রচার করবে। ফলে ক্রেতারা সহজেই তাদের কোরবানির জন্য প্রয়োজনীয় পশু পছন্দের সুযোগ পাবেন এবং বিক্রেতার সাথে যোগাযোগ করে ডেলিভারি নিতে পারবেন।
.
এই প্রসঙ্গে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক বলেন, ‘ফুড ফর ন্যাশন’ প্লাটফর্মটি কোরবানির পশুর জন্য দেশের সবচেয়ে বড় ম্যাচ মেকিং ডিজিটাল হাট হতে যাচ্ছে। খামারি ও চাষিদের অর্থনৈতিক ক্ষতি ও ক্রেতাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য আমরা এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। আমি সারাদেশের খামারি ও চাষিদের অনুরোধ জানাচ্ছি, আপনারা আপনাদের পশুর তথ্য নিয়ে এই প্লাটফর্মে আসুন। আমরা দেশের সকলের স্বাস্থ্য সুরক্ষা অটুট রেখেই আমাদের অর্থনৈতিক ও ধর্মীয় কর্মকাণ্ডগুলো চালু রাখতে চাই।
Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের বৃহৎ কোরবানি পশুর ডিজিটাল হাট চালু করলো সরকার

Update Time : ১১:৪৫:৫৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ জুলাই ২০২০
ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে মানুষ যখন অফিস, ব্যবসা-বাণিজ্য, নিত্যপণ্য কেনাকাটা, শিক্ষা-স্বাস্থ্য সবকিছুতেই ব্যবহার করছে অনলাইন প্লাটফর্ম। তখনই সামনে আসছে কোরবানির ঈদ। এই ঈদে পশু কেনা, পশু পছন্দ করতে হাটে যাওয়াসহ নানা কারণেই প্রচণ্ড ভিড় ও ব্যাপক মানুষের সমাগম ঘটবে হাটগুলোতে। এতে বাড়তে পারে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বলেও মনে করছে বিশ্লেষকরা।
এছাড়া দেশের অসংখ্য চাষি ও ছোট বড় খামারিরা দেশের কুরবানির পশুর চাহিদা মেটাতে সারা বছর ধরে গরু-ছাগল পালন করে থাকেন, শুধু মাত্র লাভের আশায়। করোনা রোধে সিটি কর্পোরেশনগুলো পশুর হাটের সংখ্যা কমিয়ে দেয়ায় তারা পড়েছেন বিপাকে।
.
এসব কথা মাথায় রেখে খামারি ও ক্রেতাদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তায় ‘কুরবানির পশুর ডিজিটাল হাট’  চালু করেছে সরকার। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ কোরবানির পশু ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য এই ডিজিটাল হাটের ব্যবস্থা করেছে।
.
জানা গেছে, এই হাটে ক্রেতারা ঘরে বসেই গরুর ছবি ও ভিডিও দেখার ও লাইভ ওজন জানার সুযোগ পাবেন। একইসঙ্গে তিনি গরু চাষি, খামারি বা ব্যাপারীদের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করার সুযোগ পাবেন। এরপর নির্দিষ্ট স্থান থেকে অথবা হোম ডেলিভারির ভিত্তিতে অর্থের বিনিময়ে গরু সংগ্রহ করতে পারবেন।
.
করোনা পরিস্থিতিতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আওতায় বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের অধীনে ‘উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প (iDEA)’ এর আগে ‘ফুড ফর ন্যাশন’ নামে একটি প্ল্যাটফর্ম গঠন করে। এরই আলোকে (iDEA) প্রজেক্টের ‘স্টার্টআপ বাংলাদেশ’ ব্যানারে ডিজিটাল হাটের এই উদ্যোগটি গ্রহণ করে প্রকল্পটি।
.
জানা গেছে, ডিজিটাল হাটের জন্য সারাদেশ থেকে গরু- ছাগলের চাষি, খামারের মালিক ও সাধারণ পশু ব্যবসায়ীদের নিবন্ধন কার্যক্রম ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে। চাষি-খামারিদের সবাই https://foodfornation.gov.bd/qurbani2020/ এই ওয়েব সাইটে প্রবেশ করে বিনামূল্যে নিবন্ধন করতে পারবেন। নিবন্ধনের পর নিজস্ব প্যানেল থেকে পশুর ছবি, ভিডিও ও অন্যান্য তথ্য আপলোড করতে হবে। এই সকল ছবি ও তথ্য ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকার তার নিজ খরচে প্রচার করবে। ফলে ক্রেতারা সহজেই তাদের কোরবানির জন্য প্রয়োজনীয় পশু পছন্দের সুযোগ পাবেন এবং বিক্রেতার সাথে যোগাযোগ করে ডেলিভারি নিতে পারবেন।
.
এই প্রসঙ্গে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক বলেন, ‘ফুড ফর ন্যাশন’ প্লাটফর্মটি কোরবানির পশুর জন্য দেশের সবচেয়ে বড় ম্যাচ মেকিং ডিজিটাল হাট হতে যাচ্ছে। খামারি ও চাষিদের অর্থনৈতিক ক্ষতি ও ক্রেতাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য আমরা এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। আমি সারাদেশের খামারি ও চাষিদের অনুরোধ জানাচ্ছি, আপনারা আপনাদের পশুর তথ্য নিয়ে এই প্লাটফর্মে আসুন। আমরা দেশের সকলের স্বাস্থ্য সুরক্ষা অটুট রেখেই আমাদের অর্থনৈতিক ও ধর্মীয় কর্মকাণ্ডগুলো চালু রাখতে চাই।