ত্রিশালে গর্তে মিলল দুই শিশুসহ তিনজনের মরদেহ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৭:১৯:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪
  • / 21

ময়মনসিংহের ত্রিশালে পতিত জমির একটি গর্ত থেকে এক নারী ও দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার কাকচর নয়াপাড়া এলাকায় স্থানীয়রা বিষয়টি টের পেয়ে পুলিশকে জানান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানিয়েছে, মরদেহগুলো ক্ষতবিক্ষত ও আঙুল না থাকায় পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব হচ্ছে না। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে।

ত্রিশাল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. হুমায়ুন কবির মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এসআই হুমায়ুন কবির বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, প্রায় সপ্তাহখানেক আগে ওই নারী ও শিশুদের হত্যা করা হয়েছে। পরে মরদেহ তিনটি মাটিতে পুঁতে রাখা হয়। আজ সকালে একটি শিয়াল গর্ত করে একটি শিশুর মরদেহ মাটির নিচ থেকে টেনে বের করে। স্থানীয়রা টের পেয়ে থানায় খবর দেন। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে গর্ত খুঁড়ে এক নারী ও আরও এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, অন্য কোনো এলাকায় তিন জনকে হত্যার পর রামপুর ইউনিয়নের কাকচর নয়াপাড়া গ্রামের একটি নির্জন জায়গায় মাটি খুঁড়ে পুঁতে রাখা হয়েছিল। এখনো নিহতদের নাম ঠিকানা জানা যায়নি।

এদিকে, এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বিভিন্ন বয়সী মানুষজন ভিড় করেছেন ঘটনাস্থলে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

ত্রিশালে গর্তে মিলল দুই শিশুসহ তিনজনের মরদেহ

Update Time : ০৭:১৯:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

ময়মনসিংহের ত্রিশালে পতিত জমির একটি গর্ত থেকে এক নারী ও দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার কাকচর নয়াপাড়া এলাকায় স্থানীয়রা বিষয়টি টের পেয়ে পুলিশকে জানান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানিয়েছে, মরদেহগুলো ক্ষতবিক্ষত ও আঙুল না থাকায় পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব হচ্ছে না। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে।

ত্রিশাল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. হুমায়ুন কবির মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এসআই হুমায়ুন কবির বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, প্রায় সপ্তাহখানেক আগে ওই নারী ও শিশুদের হত্যা করা হয়েছে। পরে মরদেহ তিনটি মাটিতে পুঁতে রাখা হয়। আজ সকালে একটি শিয়াল গর্ত করে একটি শিশুর মরদেহ মাটির নিচ থেকে টেনে বের করে। স্থানীয়রা টের পেয়ে থানায় খবর দেন। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে গর্ত খুঁড়ে এক নারী ও আরও এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, অন্য কোনো এলাকায় তিন জনকে হত্যার পর রামপুর ইউনিয়নের কাকচর নয়াপাড়া গ্রামের একটি নির্জন জায়গায় মাটি খুঁড়ে পুঁতে রাখা হয়েছিল। এখনো নিহতদের নাম ঠিকানা জানা যায়নি।

এদিকে, এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বিভিন্ন বয়সী মানুষজন ভিড় করেছেন ঘটনাস্থলে।