তোপের মুখে নতুন সিদ্ধান্ত নিল গ্রামীণফোন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৩:০৬:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ৯৩ Time View

গ্রাহকের তোপের মুখে নিজেদের সিদ্ধান্তের পরিবর্তন করল গ্রামীণফোন। গতকাল মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) রিচার্জের সর্বনিম্ন সীমা ৩০ টাকা নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় গ্রাহকের মাঝে। পরে সেই সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হটে প্রতিষ্ঠানটি।

গ্রামীণফোনের হেড অব কমিউনিকেশন শরফুদ্দিন আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা এটা এখনই বাস্তবায়ন করছি না। এ বিষয়ে বিটিআরসির সঙ্গে আলোচনা হবে। সেই আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব।’

শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, সর্বনিম্ন ব্যালান্স রিচার্জ ৩০ টাকা করার বিষয়টি আমরা বিবেচনা করেছিলাম। তবে গ্রাহক সুবিধার্থে বর্তমানে আমাদের আরও বিভিন্ন ধরনের যে রিচার্জ অপশনগুলো রয়েছে। যেমন – ১৪ টাকা, ১৯ টাকা। একইসাথে ২৯ টাকা রিচার্জে মিনিট প্যাক, ২০ টাকার ব্যালান্স রিচার্জ কার্ড, ১৪ টাকা ও ১৯ টাকার মিনিট ও ডাটা কার্ড এবং ২৯ টাকার ডাটা কার্ড সেবা চালু রয়েছে।

সর্বনিম্ন ব্যালান্স রিচার্জ ৩০ টাকা হলেও, অন্যান্য এই অপশনগুলো গ্রাহকরা ব্যবহার করতে পারতেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সম্প্রতি এসএমএস-এর মাধ্যমে গ্রামীণফোন গ্রাহকদের জানিয়েছিল, ‘প্রিয় গ্রাহক, আগামী ১০ জানুয়ারি থেকে সর্বনিম্ন রিচার্জ অ্যামাউন্ট ৩০ টাকা করা হবে। তবে ৩০ টাকার নিচের রিচার্জ অফার এবং স্ক্র্যাচকার্ড আগের মতো ব্যবহার করা যাবে।’

মাইজিপি অ্যাপের মাধ্যমেও প্রতিষ্ঠানটি গ্রাহকদের জানিয়েছিল, ‘আগামী ১০ জানুয়ারি থেকে সর্বনিম্ন রিচার্জ অ্যামাউন্ট ৩০ টাকা হয়ে যাবে।’

এদিকে গ্রামীণফোনের নোটিশের প্রতিবাদে গ্রাহক পর্যায়ে ব্যাপক সমালোচনা ঝড় ওঠে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘বয়কট গ্রামীণসিম’ নামে কয়েকটি ইভেন্টও খোলা হয়। এসব সমালোচনার মুখেই এমন সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে গ্রামীণফোন।

বর্তমানে গ্রামীণফোনের গ্রাহকরা সর্বনিম্ন ২০ টাকা রিচার্জ করতে পারেন। ২০২২ সালের জুলাই থেকে সর্বনিম্ন রিচার্জের পরিমাণ ২০ টাকা করা হয়। এর আগে সর্বনিম্ন ১০ টাকা রিচার্জ করা যেত।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

তোপের মুখে নতুন সিদ্ধান্ত নিল গ্রামীণফোন

Update Time : ০৩:০৬:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০২৪

গ্রাহকের তোপের মুখে নিজেদের সিদ্ধান্তের পরিবর্তন করল গ্রামীণফোন। গতকাল মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) রিচার্জের সর্বনিম্ন সীমা ৩০ টাকা নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় গ্রাহকের মাঝে। পরে সেই সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হটে প্রতিষ্ঠানটি।

গ্রামীণফোনের হেড অব কমিউনিকেশন শরফুদ্দিন আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা এটা এখনই বাস্তবায়ন করছি না। এ বিষয়ে বিটিআরসির সঙ্গে আলোচনা হবে। সেই আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব।’

শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, সর্বনিম্ন ব্যালান্স রিচার্জ ৩০ টাকা করার বিষয়টি আমরা বিবেচনা করেছিলাম। তবে গ্রাহক সুবিধার্থে বর্তমানে আমাদের আরও বিভিন্ন ধরনের যে রিচার্জ অপশনগুলো রয়েছে। যেমন – ১৪ টাকা, ১৯ টাকা। একইসাথে ২৯ টাকা রিচার্জে মিনিট প্যাক, ২০ টাকার ব্যালান্স রিচার্জ কার্ড, ১৪ টাকা ও ১৯ টাকার মিনিট ও ডাটা কার্ড এবং ২৯ টাকার ডাটা কার্ড সেবা চালু রয়েছে।

সর্বনিম্ন ব্যালান্স রিচার্জ ৩০ টাকা হলেও, অন্যান্য এই অপশনগুলো গ্রাহকরা ব্যবহার করতে পারতেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সম্প্রতি এসএমএস-এর মাধ্যমে গ্রামীণফোন গ্রাহকদের জানিয়েছিল, ‘প্রিয় গ্রাহক, আগামী ১০ জানুয়ারি থেকে সর্বনিম্ন রিচার্জ অ্যামাউন্ট ৩০ টাকা করা হবে। তবে ৩০ টাকার নিচের রিচার্জ অফার এবং স্ক্র্যাচকার্ড আগের মতো ব্যবহার করা যাবে।’

মাইজিপি অ্যাপের মাধ্যমেও প্রতিষ্ঠানটি গ্রাহকদের জানিয়েছিল, ‘আগামী ১০ জানুয়ারি থেকে সর্বনিম্ন রিচার্জ অ্যামাউন্ট ৩০ টাকা হয়ে যাবে।’

এদিকে গ্রামীণফোনের নোটিশের প্রতিবাদে গ্রাহক পর্যায়ে ব্যাপক সমালোচনা ঝড় ওঠে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘বয়কট গ্রামীণসিম’ নামে কয়েকটি ইভেন্টও খোলা হয়। এসব সমালোচনার মুখেই এমন সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে গ্রামীণফোন।

বর্তমানে গ্রামীণফোনের গ্রাহকরা সর্বনিম্ন ২০ টাকা রিচার্জ করতে পারেন। ২০২২ সালের জুলাই থেকে সর্বনিম্ন রিচার্জের পরিমাণ ২০ টাকা করা হয়। এর আগে সর্বনিম্ন ১০ টাকা রিচার্জ করা যেত।