ঢাবি আইন অনুষদের ডিনের পদ ফিরে পাচ্ছেন অধ্যাপক রহমতউল্লাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১১:০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০২৪
  • / ৩৭ Time View

জাননাহ, ঢাবি প্রতিবেদক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ রহমত উল্লাহকে হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী ডিন পদ ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ মে) ঢাবি উপাচার্য ড. এ এস এম মাকসুদ কামালের সভাপতিত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম সিন্ডিকেটের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

সিন্ডিকেট সদস্যদের সূত্রে জানা যায়, অধ্যাপক ড. মোঃ রহমত উল্লাহকে একাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজে পুন:বহাল করার জন্য উচ্চ আদালতের আদেশ আছে। সেই আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে ডিন পদে পুনর্বহাল করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০২২ সালের ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবসের এক আলোচনা সভায় খন্দকার মোশতাকের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর অভিযোগে, অধ্যাপক ড. মো. রহমত উল্লাহকে সিন্ডিকেটের এক জরুরি সভায় সব একাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়।

পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রিট করলে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে হাইকোর্ট। ফলে অধ্যাপক রহমত উল্লাহ সব একাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজে পুনরায় অংশ নেন। বর্তমানে অধ্যাপক ড. মোঃ রহমত উল্লাহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

ঢাবি আইন অনুষদের ডিনের পদ ফিরে পাচ্ছেন অধ্যাপক রহমতউল্লাহ

Update Time : ১১:০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০২৪

জাননাহ, ঢাবি প্রতিবেদক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ রহমত উল্লাহকে হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী ডিন পদ ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ মে) ঢাবি উপাচার্য ড. এ এস এম মাকসুদ কামালের সভাপতিত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম সিন্ডিকেটের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

সিন্ডিকেট সদস্যদের সূত্রে জানা যায়, অধ্যাপক ড. মোঃ রহমত উল্লাহকে একাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজে পুন:বহাল করার জন্য উচ্চ আদালতের আদেশ আছে। সেই আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে ডিন পদে পুনর্বহাল করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০২২ সালের ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবসের এক আলোচনা সভায় খন্দকার মোশতাকের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর অভিযোগে, অধ্যাপক ড. মো. রহমত উল্লাহকে সিন্ডিকেটের এক জরুরি সভায় সব একাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়।

পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রিট করলে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে হাইকোর্ট। ফলে অধ্যাপক রহমত উল্লাহ সব একাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজে পুনরায় অংশ নেন। বর্তমানে অধ্যাপক ড. মোঃ রহমত উল্লাহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।