ডেঙ্গু: ভারত যেতে ইমিগ্রেশনে রক্ত পরীক্ষা করতে হবে

  • Update Time : ০৮:২৫:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই ২০২৩
  • / 230

নিজস্ব প্রতিবেদক

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশে ডেঙ্গুতে পাঁচজনের প্রাণহানি ও দুই শতাধিক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে রাজ্য সরকার। ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় এই সংকট মোকাবিলায় বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তর। সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বাংলাদেশ থেকে পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশে যাওয়ার আগে ইমিগ্রেশনের সময় বাংলাদেশিদের ডেঙ্গু পরীক্ষার সুপারিশ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গের বাংলা সংবাদমাধ্যম টিভি নাইনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে ডেঙ্গুর ব্যাপক তাণ্ডব শুরু হয়েছে। রাজ্যে এখন পর্যন্ত পাঁচজন ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালে ২০০ জনেরও বেশি ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি রয়েছেন।

টিভি নাইন বলছে, প্রতিবেশি বাংলাদেশেও ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে কলকাতা মিউনিসিপ্যাল ​​করপোরেশনের পক্ষ থেকে রাজ্য সরকারকে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, রাজ্য সরকারকে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে অনুরোধ জানানো উচিত, যাতে বাংলাদেশ থেকে আগত লোকজনের ইমিগ্রেশন সেন্টারে রক্ত ​​পরীক্ষা করার ব্যবস্থা করা হয়।

পশ্চিমবঙ্গের আরেক সংবাদমাধ্যম এবিপি আনন্দ বলছে, সময় যত এগোচ্ছে ততই এই রাজ্যে বাড়ছে ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা। রাজ্যে একদিনে তিন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ থেকে আসা লোকজনের এবার ইমিগ্রেশনের সময়েই করাতে হবে রক্ত পরীক্ষা।

বাংলাদেশ থেকে আসা যাত্রীরা ডেঙ্গুর বাহক হতে পারেন আশঙ্কায় সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসাবে কলকাতা পৌর কর্তৃপক্ষ ওই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা ভাবছে। বিষয়টি জানিয়ে রাজ্য সরকারকে চিঠি দিচ্ছে পৌর কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার কলকাতা পৌরসভার ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ বলেছেন, স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে কেন্দ্রকে জানানো হবে, যাতে ইমিগ্রেশন সেন্টারে বাংলাদেশিদের ডেঙ্গু পরীক্ষার ব্যবস্থা করা যায়। এদিকে, ডেঙ্গু মোকাবিলার প্রস্তুতি নিয়ে বুধবার রাজ্য সরকারের ভার্চ্যুয়াল বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। কাল স্বাস্থ্য ভবনে ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

ডেঙ্গু: ভারত যেতে ইমিগ্রেশনে রক্ত পরীক্ষা করতে হবে

Update Time : ০৮:২৫:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশে ডেঙ্গুতে পাঁচজনের প্রাণহানি ও দুই শতাধিক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে রাজ্য সরকার। ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় এই সংকট মোকাবিলায় বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তর। সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বাংলাদেশ থেকে পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশে যাওয়ার আগে ইমিগ্রেশনের সময় বাংলাদেশিদের ডেঙ্গু পরীক্ষার সুপারিশ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গের বাংলা সংবাদমাধ্যম টিভি নাইনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে ডেঙ্গুর ব্যাপক তাণ্ডব শুরু হয়েছে। রাজ্যে এখন পর্যন্ত পাঁচজন ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালে ২০০ জনেরও বেশি ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি রয়েছেন।

টিভি নাইন বলছে, প্রতিবেশি বাংলাদেশেও ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে কলকাতা মিউনিসিপ্যাল ​​করপোরেশনের পক্ষ থেকে রাজ্য সরকারকে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, রাজ্য সরকারকে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে অনুরোধ জানানো উচিত, যাতে বাংলাদেশ থেকে আগত লোকজনের ইমিগ্রেশন সেন্টারে রক্ত ​​পরীক্ষা করার ব্যবস্থা করা হয়।

পশ্চিমবঙ্গের আরেক সংবাদমাধ্যম এবিপি আনন্দ বলছে, সময় যত এগোচ্ছে ততই এই রাজ্যে বাড়ছে ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা। রাজ্যে একদিনে তিন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ থেকে আসা লোকজনের এবার ইমিগ্রেশনের সময়েই করাতে হবে রক্ত পরীক্ষা।

বাংলাদেশ থেকে আসা যাত্রীরা ডেঙ্গুর বাহক হতে পারেন আশঙ্কায় সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসাবে কলকাতা পৌর কর্তৃপক্ষ ওই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা ভাবছে। বিষয়টি জানিয়ে রাজ্য সরকারকে চিঠি দিচ্ছে পৌর কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার কলকাতা পৌরসভার ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ বলেছেন, স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে কেন্দ্রকে জানানো হবে, যাতে ইমিগ্রেশন সেন্টারে বাংলাদেশিদের ডেঙ্গু পরীক্ষার ব্যবস্থা করা যায়। এদিকে, ডেঙ্গু মোকাবিলার প্রস্তুতি নিয়ে বুধবার রাজ্য সরকারের ভার্চ্যুয়াল বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। কাল স্বাস্থ্য ভবনে ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে