ঠাকুরগাঁওয়ে নিখোঁজের ২ দিন পর শিশু নিবিরের মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৭:১১:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪
  • / ২৭ Time View

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ের পৌর
শহরের মাদ্রাসাপাড়া এলাকা থেকে নিখোঁজের দুইদিন পর
শনিবার২০এপ্রিল
মো.নিবির(১২)নামে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন ২ জনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এদিন সকালে শিশুটির বাড়ির পাশের গলি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ঠাকুরগাঁও সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ বিএম ফিরোজ ওয়াহিদ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। নিবির ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের মাদ্রাসাপাড়া মহল্লার ওমান প্রবাসী আব্দুস সালাম বাবুলের ছেলে। এবং সে সালন্দর কৃষ্ণপুর সরকারি বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। এ ঘটনায় আটককৃতরা হলেন পৌরশহরের মাদ্রাসাপাড়া এলাকার শিপনের ছেলে আলিফ (১৬) এবং একই এলাকার বজলু মাষ্টারের ছেলে লিখন (১৭)। পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানায়, গত বৃহস্প‌তিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে খাবার খেয়ে বা‌ড়ির পাশে বন্ধুদের সঙ্গে খেলতে যায় নি‌বির। এরপর সে আর বাড়ি ফিরে না আসায় বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও সন্ধান মেলেনি তার। পরে শনিবার ভোরে ‌নিজ বাড়ির বসতঘরের পেছন থেকে নি‌বিরের মরদেহ দেখতে পায় তার মা শিল্পী খাতুন। এ সময় পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সদর থানা পু‌লিশ, পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) ও গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) কর্মকর্তারা। এ বিষয়ে মা শিল্পী খাতুন আহাজারি করতে করতে বলেন, দুইদিন থেকে কত জায়গাতে খোঁজাখোঁজি করেও তাকে পায়নি। অথচ আজ তার মরদেহ বাড়ির পেছনে গলিতে পাওয়া গেল। আমার সন্তানকে কেউ শত্রুতাবশত অপরহণ করে হত্যা করেছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই। তবে কীভাবে কারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে, সে সম্পর্কে কিছুই জানাতে পারেননি স্বজন এবং প্রতিবেশীরা। স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো.জমিরুল ইসলাম বলেন শ‌নিবার রাতের কোনো এক সময় বাড়ির পেছনের গলিতে শিশুটির মরদেহ রেখে যায় ঘাতকরা। ঠাকুরগাঁও সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ ওয়াহিদ জানায়, আমারা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পরে তদন্ত সাপেক্ষে বিস্তারিত আরো জানা যাবে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

ঠাকুরগাঁওয়ে নিখোঁজের ২ দিন পর শিশু নিবিরের মরদেহ উদ্ধার

Update Time : ০৭:১১:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ের পৌর
শহরের মাদ্রাসাপাড়া এলাকা থেকে নিখোঁজের দুইদিন পর
শনিবার২০এপ্রিল
মো.নিবির(১২)নামে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন ২ জনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এদিন সকালে শিশুটির বাড়ির পাশের গলি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ঠাকুরগাঁও সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ বিএম ফিরোজ ওয়াহিদ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। নিবির ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের মাদ্রাসাপাড়া মহল্লার ওমান প্রবাসী আব্দুস সালাম বাবুলের ছেলে। এবং সে সালন্দর কৃষ্ণপুর সরকারি বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। এ ঘটনায় আটককৃতরা হলেন পৌরশহরের মাদ্রাসাপাড়া এলাকার শিপনের ছেলে আলিফ (১৬) এবং একই এলাকার বজলু মাষ্টারের ছেলে লিখন (১৭)। পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানায়, গত বৃহস্প‌তিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে খাবার খেয়ে বা‌ড়ির পাশে বন্ধুদের সঙ্গে খেলতে যায় নি‌বির। এরপর সে আর বাড়ি ফিরে না আসায় বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও সন্ধান মেলেনি তার। পরে শনিবার ভোরে ‌নিজ বাড়ির বসতঘরের পেছন থেকে নি‌বিরের মরদেহ দেখতে পায় তার মা শিল্পী খাতুন। এ সময় পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সদর থানা পু‌লিশ, পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) ও গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) কর্মকর্তারা। এ বিষয়ে মা শিল্পী খাতুন আহাজারি করতে করতে বলেন, দুইদিন থেকে কত জায়গাতে খোঁজাখোঁজি করেও তাকে পায়নি। অথচ আজ তার মরদেহ বাড়ির পেছনে গলিতে পাওয়া গেল। আমার সন্তানকে কেউ শত্রুতাবশত অপরহণ করে হত্যা করেছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই। তবে কীভাবে কারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে, সে সম্পর্কে কিছুই জানাতে পারেননি স্বজন এবং প্রতিবেশীরা। স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো.জমিরুল ইসলাম বলেন শ‌নিবার রাতের কোনো এক সময় বাড়ির পেছনের গলিতে শিশুটির মরদেহ রেখে যায় ঘাতকরা। ঠাকুরগাঁও সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ ওয়াহিদ জানায়, আমারা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পরে তদন্ত সাপেক্ষে বিস্তারিত আরো জানা যাবে।