ছুটির দিনে সরব বইমেলা, যোগ হয়েছে নতুন ৬৭১টি বই

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৮:০২:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ২০ Time View

ছুটির দিনে জমজমাট অমর একুশে বইমেলা। শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) বইপ্রেমী পাঠকদের বিপুল উপস্থিতিতে সরব ছিল মেলা প্রাঙ্গন। নবম দিনে মেলায় যোগ হয়েছে নতুন ৬৭১টি বই।

সন্ধ্যা নামতেই মেলায় বেড়েছে দর্শনার্থীদের আনাগোনা। সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গনে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের সরব উপস্থিতি চোখে পড়েছে। কেউ বই কিনছেন আবার কেউ তাদের পছন্দের লেখকের বই খুঁজে বেড়িয়েছেন।

মানুষের ভিড় বেশি হওয়ায় বিক্রিও বেশ ভালো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা। মোটামুটি সব ধরনের বইয়ের বিক্রি চলছে। তবে উপন্যাসের কাটতি বেশি। নতুন-পুরাতন সব ধরনের বই-ই পাঠকরা কিনেছেন। এছাড়াও গল্প, সায়েন্স ফিকশন, আত্ম উন্নয়নমূলক বইয়ের বিক্রিও ভালো হচ্ছে বলে জানান তারা।

এদিকে, সাপ্তাহিক ছুটির দিনে সকাল থেকেই জমজমাট ছিল বইমেলার শিশুপ্রহর। তাই সিসিমপুরের মঞ্চে ছিল শিশু ও অভিভাবকদের ভিড়। হালুম, টুকটুকি, শিকু, ইকরিদের শিক্ষনীয় আয়োজন শেষে বইয়ের স্টলেও শিশুদের ব্যাপক ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। সন্তানদের পছন্দের বই কিনে দিতে পেরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন অভিভাবকরাও।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

ছুটির দিনে সরব বইমেলা, যোগ হয়েছে নতুন ৬৭১টি বই

Update Time : ০৮:০২:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ছুটির দিনে জমজমাট অমর একুশে বইমেলা। শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) বইপ্রেমী পাঠকদের বিপুল উপস্থিতিতে সরব ছিল মেলা প্রাঙ্গন। নবম দিনে মেলায় যোগ হয়েছে নতুন ৬৭১টি বই।

সন্ধ্যা নামতেই মেলায় বেড়েছে দর্শনার্থীদের আনাগোনা। সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গনে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের সরব উপস্থিতি চোখে পড়েছে। কেউ বই কিনছেন আবার কেউ তাদের পছন্দের লেখকের বই খুঁজে বেড়িয়েছেন।

মানুষের ভিড় বেশি হওয়ায় বিক্রিও বেশ ভালো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা। মোটামুটি সব ধরনের বইয়ের বিক্রি চলছে। তবে উপন্যাসের কাটতি বেশি। নতুন-পুরাতন সব ধরনের বই-ই পাঠকরা কিনেছেন। এছাড়াও গল্প, সায়েন্স ফিকশন, আত্ম উন্নয়নমূলক বইয়ের বিক্রিও ভালো হচ্ছে বলে জানান তারা।

এদিকে, সাপ্তাহিক ছুটির দিনে সকাল থেকেই জমজমাট ছিল বইমেলার শিশুপ্রহর। তাই সিসিমপুরের মঞ্চে ছিল শিশু ও অভিভাবকদের ভিড়। হালুম, টুকটুকি, শিকু, ইকরিদের শিক্ষনীয় আয়োজন শেষে বইয়ের স্টলেও শিশুদের ব্যাপক ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। সন্তানদের পছন্দের বই কিনে দিতে পেরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন অভিভাবকরাও।