চাঁদপুরের অনেক সূর্যসন্তান নিজেদের কর্মগুনে বাংলাদেশকে সমৃদ্ধ করেছেন‌: প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন‌

  • Update Time : ০৫:৪৯:৪৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জুলাই ২০২৪
  • / 20

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

তরুণ লেখক আশিক বিন রহিমের লেখা ‘সংগ্রামে-অর্জনে চাঁদপুরের নারীগণ’ গ্রন্থের পাঠ পর্যালোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সাহিত্য মঞ্চ ও আপনের যৌথ আয়োজনে ৬ জুলাই বিকেল ৪টায় চাঁদপুর সাহিত্য একাডেমী মিলনায়তনে এ পাঠ পর্যালোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন‌। প্রধান আলোচক ছিলেন প্রবন্ধিক ও‌ গবেষক ড. সরকার আবদুল মান্নান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে, পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন‌ বলেন, বাংলাদেশের অনেক সূর্যসন্তানদের জন্মভূমি এই চাঁদপুর জেলা। যারা নিজেদের জীবন ও কর্মের মাধ্যমে বাংলাদেশকে সমৃদ্ধ করেছেন এবং চাঁদপুরকে আলোকিত করেছেন। তাদের মধ্যে অসংখ্য নারী রয়েছেন। ‌এমন সব আলোকিত নারীদের জীবন-ও কর্ম নিয়ে আশিক বিন রহিম একটি গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থ রচনা করেছেন। ‌এজন্য লেখককে আমরা আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

তিনি আরো বলেন, আশিক বিন রহিম একজন তরুণ প্রতিভাবান ও‌ পরিশ্রমী লেখক। ‌ চাঁদপুরকে নিয়ে এর আগেও তিনি একটি গ্রন্থ রচনা করেছেন। ‌’সংগ্রামে-অর্জনের চাঁদপুরে নারীগণ’ গ্রন্থটিতে যে ২৫ জনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে,‌ আমি মনে করি এই সম্মান তাদের প্রাপ্য। এই গ্রন্থটির মাধ্যমে চাঁদপুরের আলোকিত নারীদের সম্পর্কে নতুন প্রজন্ম জানতে পারবে।

যাদের নিয়ে এই গ্রন্থটি লেখা তাদের মধ্যে অনুভূতি প্রকাশ করেন, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডাক্তার সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী, কণ্ঠসৈনিক মুক্তিযোদ্ধা কৃষ্ণা সাহা, চাঁদপুর উইমেন চেম্বারের প্রেসিডেন্ট মুনিরা আক্তার ট্রাস্ট ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সুরাইয়া তালুকদার।

অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে ছিলেন পুরানবাজার ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক ফেরদৌসী বেগম, কবি ও গবেষক মুহাম্মদ ফরিদ হাসান।
আপনের সভাপতি রোটারিয়ান ডা. রাশেদা আক্তারের সভাপতিত্বে ও সাহিত্য মঞ্চের সভাপতি মাইনুল ইসলাম মানিকের সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, আপনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট আব্দুল্লাহ আল ফারুক, সহ-সভাপতি রোটারিয়ান আশরাফুল আরিফ, কবি ও নাট্যকার জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়, কবি সুমন কুমার দত্ত প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর সাহিত্য একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য কবি আব্দুল্লা-হিল কাফি, নজরুল গবেষণা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গনি, লেখক আশিক বিন রহিমের বড় ভাই আলী আকবর শেখ, চাঁদপুর লেখক পরিষদের সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন, চাঁদপুর সাহিত্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ম. নূরে আলম পাটওয়ারী, বঙ্গবন্ধু লেখক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক উজ্জল হোসেন, কবি ও লেখক কবির হোসেন মিজি, কবি জাহিদ নয়ন, কবি আবু হানিফ, বাংলাদেশের ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য হোসেন মীর, প্রকৌশলী নেছার পাটওয়ারী, চাঁদপুর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ফারুক আহমেদ, আপনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিত্তুল মোনা চৈতি, সাংগঠনিক সম্পাদক আলামিন মুন্সী, সাহিত্য মঞ্চে সদস্য সদস্য তৈয়বসহ অন্যান্য লেখক ও সাহিত্যকর্মীবৃন্দ। ‌

এছাড়াও প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন, বেলা ১২ টায় হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তির প্রায় শতাধিক শ্রমজীবীদের মাঝে রেইনকোট বিতরণ করেন এবং হাজীগঞ্জ উপজেলার ৯ নং গন্ধব্যপুর উত্তর ইউনিয়নের আহম্মদপুর এতিমখানায় কোরআনে হাফেজদের নিয়ে মধ্যাহ্নভোজে অংশগ্রহণ করেন।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

চাঁদপুরের অনেক সূর্যসন্তান নিজেদের কর্মগুনে বাংলাদেশকে সমৃদ্ধ করেছেন‌: প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন‌

Update Time : ০৫:৪৯:৪৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জুলাই ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

তরুণ লেখক আশিক বিন রহিমের লেখা ‘সংগ্রামে-অর্জনে চাঁদপুরের নারীগণ’ গ্রন্থের পাঠ পর্যালোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সাহিত্য মঞ্চ ও আপনের যৌথ আয়োজনে ৬ জুলাই বিকেল ৪টায় চাঁদপুর সাহিত্য একাডেমী মিলনায়তনে এ পাঠ পর্যালোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন‌। প্রধান আলোচক ছিলেন প্রবন্ধিক ও‌ গবেষক ড. সরকার আবদুল মান্নান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে, পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন‌ বলেন, বাংলাদেশের অনেক সূর্যসন্তানদের জন্মভূমি এই চাঁদপুর জেলা। যারা নিজেদের জীবন ও কর্মের মাধ্যমে বাংলাদেশকে সমৃদ্ধ করেছেন এবং চাঁদপুরকে আলোকিত করেছেন। তাদের মধ্যে অসংখ্য নারী রয়েছেন। ‌এমন সব আলোকিত নারীদের জীবন-ও কর্ম নিয়ে আশিক বিন রহিম একটি গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থ রচনা করেছেন। ‌এজন্য লেখককে আমরা আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

তিনি আরো বলেন, আশিক বিন রহিম একজন তরুণ প্রতিভাবান ও‌ পরিশ্রমী লেখক। ‌ চাঁদপুরকে নিয়ে এর আগেও তিনি একটি গ্রন্থ রচনা করেছেন। ‌’সংগ্রামে-অর্জনের চাঁদপুরে নারীগণ’ গ্রন্থটিতে যে ২৫ জনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে,‌ আমি মনে করি এই সম্মান তাদের প্রাপ্য। এই গ্রন্থটির মাধ্যমে চাঁদপুরের আলোকিত নারীদের সম্পর্কে নতুন প্রজন্ম জানতে পারবে।

যাদের নিয়ে এই গ্রন্থটি লেখা তাদের মধ্যে অনুভূতি প্রকাশ করেন, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডাক্তার সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী, কণ্ঠসৈনিক মুক্তিযোদ্ধা কৃষ্ণা সাহা, চাঁদপুর উইমেন চেম্বারের প্রেসিডেন্ট মুনিরা আক্তার ট্রাস্ট ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সুরাইয়া তালুকদার।

অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে ছিলেন পুরানবাজার ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক ফেরদৌসী বেগম, কবি ও গবেষক মুহাম্মদ ফরিদ হাসান।
আপনের সভাপতি রোটারিয়ান ডা. রাশেদা আক্তারের সভাপতিত্বে ও সাহিত্য মঞ্চের সভাপতি মাইনুল ইসলাম মানিকের সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, আপনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট আব্দুল্লাহ আল ফারুক, সহ-সভাপতি রোটারিয়ান আশরাফুল আরিফ, কবি ও নাট্যকার জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়, কবি সুমন কুমার দত্ত প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর সাহিত্য একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য কবি আব্দুল্লা-হিল কাফি, নজরুল গবেষণা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গনি, লেখক আশিক বিন রহিমের বড় ভাই আলী আকবর শেখ, চাঁদপুর লেখক পরিষদের সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন, চাঁদপুর সাহিত্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ম. নূরে আলম পাটওয়ারী, বঙ্গবন্ধু লেখক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক উজ্জল হোসেন, কবি ও লেখক কবির হোসেন মিজি, কবি জাহিদ নয়ন, কবি আবু হানিফ, বাংলাদেশের ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য হোসেন মীর, প্রকৌশলী নেছার পাটওয়ারী, চাঁদপুর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ফারুক আহমেদ, আপনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিত্তুল মোনা চৈতি, সাংগঠনিক সম্পাদক আলামিন মুন্সী, সাহিত্য মঞ্চে সদস্য সদস্য তৈয়বসহ অন্যান্য লেখক ও সাহিত্যকর্মীবৃন্দ। ‌

এছাড়াও প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন, বেলা ১২ টায় হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তির প্রায় শতাধিক শ্রমজীবীদের মাঝে রেইনকোট বিতরণ করেন এবং হাজীগঞ্জ উপজেলার ৯ নং গন্ধব্যপুর উত্তর ইউনিয়নের আহম্মদপুর এতিমখানায় কোরআনে হাফেজদের নিয়ে মধ্যাহ্নভোজে অংশগ্রহণ করেন।