গ্রাহক অ্যাকাউন্টের ঘাটতি পূরণে ব্যর্থ সিনহা সিকিউরিটিজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৪:৫৪:১৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪
  • / ২৪ Time View

bn বাংলা en English
কি খুজতে চান?
খুঁজুন
Logo
শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নির্দেশনা অনুযায়ি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সদস্য প্রতিষ্ঠান সিনহা সিকিউরিটিজ লিমিটেড নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টের (সিসিএ) ঘাটতি পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে।

এই ব্যর্থতার পরও ব্রোকারেজ হাউজটি বিএসইসি’র কাছে এক চিঠিতে প্রতিষ্ঠানটির ডিপোজিটরি পার্টিসিপেন্ট (ডিপি) লাইসেন্স নবায়ন এবং এর মেয়াদ ১২ মাস বাড়ানোর জন্য আবেদন জানিয়েছে।

এর আগে গত বছরের ডিসেম্বর মাসে বিএসইসি প্রতিষ্ঠানটির ২০২৪ সালের ১৯ মার্চের মধ্যে সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টের ঘাটতি মেটানে নির্দেশ দেয়। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটি এই সময়সীমার মধ্যে ঘাটতি মেটাতে ব্যর্থ হয়েছে।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, সর্বশেষ ৭ মার্চ পর্যন্ত সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টে প্রতিষ্ঠানিটির ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৮ কোটি ৫১ লাখ টাকায়।

সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্ট বা সিসিএ হল একটি পৃথক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট যা স্টক ব্রোকাররা তাদের গ্রাহকদের বিও অ্যাকাউন্টে অব্যবহৃত নগদ রাখার জন্য রক্ষণাবেক্ষণ করে।

বিনিয়োগকারীদের ক্রয়কৃত সিকিউরিটিজের জন্য অর্থ প্রদান বা ক্লায়েন্ট কর্তৃক বকেয়া কমিশন বা ফি আদায় করা ছাড়া অন্য কোনো উদ্দেশ্যে এই অর্থ ব্যবহার করা কঠোরভাবে নিষেধ।

নির্দিষ্ট এসব অর্থ প্রদান ব্যতীত অন্য উদ্দেশ্যে সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টে থেকে তহবিলের যে কোনও ব্যবহার ঘাটতির কারণ হবে৷

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কর্মকর্তারা বলছেন, সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টের কোনো ঘাটতি ইঙ্গিত দেয় যে গ্রাহকদের তহবিল অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

এর আগে সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টে ঘাটতি খুঁজে পাওয়ায় ২০২৩ সালের ১৪ মে থেকে ২৭ জুন পর্যন্ত সিনহা সিকিউরিটিজের লেনদেন স্থগিত রাখা হয়। এরপর ঘাটতির একটি অংশ পরিশোধ করাতে প্রতিষ্ঠানটির উপর স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হয়।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

গ্রাহক অ্যাকাউন্টের ঘাটতি পূরণে ব্যর্থ সিনহা সিকিউরিটিজ

Update Time : ০৪:৫৪:১৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪

bn বাংলা en English
কি খুজতে চান?
খুঁজুন
Logo
শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নির্দেশনা অনুযায়ি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সদস্য প্রতিষ্ঠান সিনহা সিকিউরিটিজ লিমিটেড নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টের (সিসিএ) ঘাটতি পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে।

এই ব্যর্থতার পরও ব্রোকারেজ হাউজটি বিএসইসি’র কাছে এক চিঠিতে প্রতিষ্ঠানটির ডিপোজিটরি পার্টিসিপেন্ট (ডিপি) লাইসেন্স নবায়ন এবং এর মেয়াদ ১২ মাস বাড়ানোর জন্য আবেদন জানিয়েছে।

এর আগে গত বছরের ডিসেম্বর মাসে বিএসইসি প্রতিষ্ঠানটির ২০২৪ সালের ১৯ মার্চের মধ্যে সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টের ঘাটতি মেটানে নির্দেশ দেয়। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটি এই সময়সীমার মধ্যে ঘাটতি মেটাতে ব্যর্থ হয়েছে।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, সর্বশেষ ৭ মার্চ পর্যন্ত সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টে প্রতিষ্ঠানিটির ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৮ কোটি ৫১ লাখ টাকায়।

সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্ট বা সিসিএ হল একটি পৃথক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট যা স্টক ব্রোকাররা তাদের গ্রাহকদের বিও অ্যাকাউন্টে অব্যবহৃত নগদ রাখার জন্য রক্ষণাবেক্ষণ করে।

বিনিয়োগকারীদের ক্রয়কৃত সিকিউরিটিজের জন্য অর্থ প্রদান বা ক্লায়েন্ট কর্তৃক বকেয়া কমিশন বা ফি আদায় করা ছাড়া অন্য কোনো উদ্দেশ্যে এই অর্থ ব্যবহার করা কঠোরভাবে নিষেধ।

নির্দিষ্ট এসব অর্থ প্রদান ব্যতীত অন্য উদ্দেশ্যে সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টে থেকে তহবিলের যে কোনও ব্যবহার ঘাটতির কারণ হবে৷

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কর্মকর্তারা বলছেন, সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টের কোনো ঘাটতি ইঙ্গিত দেয় যে গ্রাহকদের তহবিল অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

এর আগে সমন্বিত গ্রাহক অ্যাকাউন্টে ঘাটতি খুঁজে পাওয়ায় ২০২৩ সালের ১৪ মে থেকে ২৭ জুন পর্যন্ত সিনহা সিকিউরিটিজের লেনদেন স্থগিত রাখা হয়। এরপর ঘাটতির একটি অংশ পরিশোধ করাতে প্রতিষ্ঠানটির উপর স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হয়।